Home /News /business /
দুর্ঘটনায় গাড়ির এয়ারব্যাগ কেন খোলেনি ? গতি কত ছিল ? জানতে ফের দেবাঞ্জনের গাড়ির ফরেনসিক পরীক্ষা

দুর্ঘটনায় গাড়ির এয়ারব্যাগ কেন খোলেনি ? গতি কত ছিল ? জানতে ফের দেবাঞ্জনের গাড়ির ফরেনসিক পরীক্ষা

  • Share this:

    #কলকাতা: নিমতায় দেবাঞ্জন দাস খুনের তদন্তে ব্রেক থ্রু। গ্রেফতার বিশাল মারু নামে দমদমের এক যুবক। পুলিশ সূত্রে খবর, দেবাঞ্জনের মোবাইল ঘেঁটে মেলে বিশালের হদিশ। খুনের পর, মূল অভিযুক্ত প্রিন্স সিং-এর সঙ্গে বেশ কয়েকবার কথা হয় বিশালের। গা ঢাকা দেওয়ার আগে বন্ধু বিশালের বাড়িতেই একদিন ছিল প্রিন্স।

    আজ, শনিবার ফের দেবাঞ্জনের গাড়ির ফরেনসিক পরীক্ষা হবে ৷ দুর্ঘটনার সময় খোলেনি গাড়ির এয়ারব্যাগ ৷ যান্ত্রিক ত্রুটি আছে কিনা তার পরীক্ষা হবে ৷ দুর্ঘটনার সময় গাড়ির গতি জানার চেষ্টা চালাচ্ছে পুলিশ ৷ গাড়ির ইভেন্ট ডেটা রেকর্ডারের খোঁজ করা হচ্ছে ৷ গতকাল, শুক্রবার গাড়ি থেকে রক্তের নমুনা সংগ্রহ করে পুলিশ ৷ রক্ত শুধুই দেবাঞ্জনের কিনা তার পরীক্ষা হবে ৷ গাড়িতে ধস্তাধস্তি হয় কিনা জানার চেষ্টা চালাচ্ছে তদন্তকারী অফিসাররা ৷

    নবমীর রাতে নিমতায় দমদমের যুবক দেবাঞ্জন দাসের দেহ উদ্ধার। খুনের দু’সপ্তাহের মাথায় তদন্তে ব্রেক-থ্রু পেল পুলিশ।

    বিশাল মারু নামে দমদমের এক যুবককে গ্রেফতার করলেন তদন্তকারীরা। ধৃত বিশাল প্রিন্সেরই বন্ধু। দেবাঞ্জনের মোবাইলের কল ডিটেলস ঘেঁটে তার হদিশ পায় পুলিশ। তদন্তকারীরা জানতে পেরেছেন, খুনের পরে প্রিন্সের সঙ্গে একাধিকবার কথা হয়েছে বিশালের। এমনকী, গা ঢাকা দেওয়ার আগে, বিশালের বাড়িতেই একদিন ছিল প্রিন্স। এরপরই দেবাঞ্জন-খুনে বিশাল মারুর জড়িত থাকার ব্যাপারে নিশ্চিত হয় পুলিশ।

    - নিমতা-খুনে গ্রেফতার বিশাল মারু - মূল অভিযুক্ত প্রিন্স সিং-এর বন্ধু বিশাল - দেবাঞ্জনের কল ডিটেলস সূত্রে হদিশ বিশালের - খুনের পরে প্রিন্সের সঙ্গে একাধিকবার কথা বিশালের - গা ঢাকা দেওয়ার আগে বিশালের বাড়িতে প্রিন্স - একদিন বিশালের বাড়িতেই ছিল প্রিন্স সিং

    দেবাঞ্জন-খুনের কিনারা করতে একইসঙ্গে ফরেনসিক পরীক্ষার উপরও জোর দিচ্ছেন তদন্তকারীরা। শুক্রবারের পর শনিবারও দেবাঞ্জনের গাড়ির খুঁটিনাটি পরীক্ষা করে দেখে ফরেনসিক টিম। নিমতার বঙ্কিম মোড়ে, ঘটনাস্থলেও গিয়েও পরীক্ষা করেন ফরেনসিক বিশেষজ্ঞরা।

    একদিকে জেরা-ধরপাকড়। অন্যদিকে ফরেনসিক পরীক্ষা। জোড়া অস্ত্রে ফেরার প্রিন্স পর্যন্ত পৌঁছতে চাইছেন তদন্তকারীরা।

    First published:

    Tags: Debanjan Murder Case, Nimta Murder case

    পরবর্তী খবর