Edible Oil Prices: জুলাইয়ে দ্বিগুণ দাম বাড়ল ভোজ্য তেলের, নেওয়া হচ্ছে একাধিক পদক্ষেপ

দেশে ভোজ্য তেলের চাহিদা এবং উৎপাদনের মধ্যে বিস্তর ফারাক আছে।

দেশে ভোজ্য তেলের চাহিদা এবং উৎপাদনের মধ্যে বিস্তর ফারাক আছে।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: খুচরো বাজারে গত বছরের তুলনায় জুলাই মাসে ভোজ্য তেলের দাম বাড়ল প্রায় ৫২ শতাংশ ৷ সরকারের তরফে এই তথ্য জানানো হয়েছে ৷ শুক্রবার রাজ্যসভায় একটি প্রশ্নের উত্তরে লিখিত উত্তরে প্রতিমন্ত্রী অশ্বিনী কুমার চৌবে বলেছেন, কোভিড মহামারির জন্য ডাল এবং ভোজ্য তেলের মতো প্রয়োজনীয় খাদ্য দ্রব্যের দাম বৃদ্ধি নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্য সরকার বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়েছে।

    সরকারের তরফে দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, গত বছরের একই সময়ের তুলনায় জুলাই মাসে চিনাবাদাম তেলের মূল্য ১৯.২৪ শতাংশ বৃদ্ধি করা হয়েছে ৷ সর্ষের তেলের দাম ৩৯.০৩ শতাংশ, বনস্পতির ৪৬.০১ শতাংশ, সয়াবিন তেল ৪৮.০৭ শতাংশ, সূর্যমুখী তেল ৫১.৬২ শতাংশ ও অপরিশোধিত পাম তেলের দাম ৪৪.৪২ শতাংশ বেড়েছে ৷

    ভোজ্য তেলের আমদানিতে কর হ্রাস করেছে কেন্দ্র। ভোজ্য তেলের দাম কমানোর জন্য পাম তেলের উপর শুল্ক ৩০ জুন ২০২১ থেকে ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২১ পর্যন্ত ৫ শতাংশ কম করা হয়েছে ৷ এর জেরে শুল্ক ৩৫.৭৫ শতাংশ থেকে কমে ৩০.২৫ শতাংশ করা হয়েছে ৷ এছাড়া রিফাইন্ড পাম তেলের শুল্ক ৪৫ শতাংশ থেকে কমিয়ে ৩৭.৫ শতাংশ করা হয়েছে ৷

    দেশে ভোজ্য তেলের চাহিদা এবং উৎপাদনের মধ্যে বিস্তর ফারাক আছে। ফলে বিপুল পরিমাণ তেল বাইরে থেকে আমদানি করতে হয় ৷ এর জেরে গত কয়েক মাসে খুচরো বাজারে তেলের অনেকটাই দাম বেড়েছে ৷ বিশ্ব বাজারে দাম বৃদ্ধির কারণে গত এক বছরে ভারতের বাজারে ভোজ্য তেলের দাম প্রায় দ্বিগুণ হয়ে গিয়েছে।

    Published by:Dolon Chattopadhyay
    First published: