Father's Day: এমন দিনে বাবার কথা খুব মনে পড়ে কোহলির, লিখলেন আবেগঘন পোস্ট

আজকের দিনে বাবার জন্য দু-চার কথা লিখতে ভুললেন না।

আজকের দিনে বাবার জন্য দু-চার কথা লিখতে ভুললেন না।

  • Share this:

    #সাউদাম্পন:

    তিনি নিজে এখন বাবা হয়েছেন। তাই এমন দিন তাঁর কাছে এখমন একটু বেশি স্পেশাল। তবে বিরাট কোহলি প্রতি বছরই এমন দিনে নিয়ম করে নিজের বাবার জন্য পোস্ট করেন। বিরাট কোহলির সাফল্যের পিছনে তাঁর বাবার অবদান ছিল অনেকটাই। আর সেই কথা যে কোনও মঞ্চে কোহলি স্বীকার করেন। বাবার স্কুটারে চেপে কোহলি ক্রিকেট প্র্যাকটিসে যেতেন। তবে তাঁর বাবা ছেলের এমন সাফল্য দেখে যেতে পারেননি। আর সেই জন্য কোহলির আফসোসের শেষ নেই। ভারতীয় দলের অধিনায়ক এখন World Test Championship (WTC) নিয়ে ব্যস্ত। তবে এসবের মাঝেও তিনি বাবার জন্য দু-চার কথা লিখতে ভুললেন না। প্রতিবারের মতো এবারও ফাদার্স ডে-তে বাবার জন্য পোস্ট করলেন কোহলি। আর এবারও তাঁর পোস্টে আবেগ মাখামাখি।

    বাবা প্রেম কোহলির কথা জীবনের প্রতিটা পদক্ষেপে মনে পড়ে কোহলির। সেটা বহুবার সাক্ষাত্কারে বলেছেন বিরাট। ৩২ বছর বয়সী তারকার বাবা প্রেম কোহলি মারা যান ২০০৬ সালে। বিরাটের বয়স তখন মাত্র ১৮ বছর। ৫৪ বছর বয়সে হার্ট অ্যাটাকে মারা যান প্রেম কোহলি। বিরাট কোহলি তখন দিল্লির হয়ে রনজি খেলছিলেন। বাবার শেষকৃত্যের পরদিন তিনি আবার ব্যাটিং করতে নেমেছিলেন। ক্রিকেটের প্রতি কোহলির দায়বদ্ধতা শুরু থেকেই ছিল। আর ওই ঘটনা সেটা প্রমাণ করেছিল। বাবার সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক ছিল বন্ধুর মতো। বাবার মৃত্যু তাই তাঁর পক্ষে মেনে নেওয়া কঠিন ছিল। তবে সেই কঠিন সময়েও কোহলি কিন্তু ক্রিকেট থেকে ফোকাস সরাননি।

    বিশেষ দিনে বাবার কথা খুব মনে পড়ে কোহলির। ফাদার্স ডে উপলক্ষে কোহলি এদিন সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রেম কোহলির জন্য আবেগঘন পোস্ট লিখলেন। বিরাটের সেই পোস্ট দেখে ক্রিকেট সমকর্থকদের মন খারাপ হল। কোহলি লিখলেন, বিশ্বের সব বাবাদের ফাদার্স ডে-র শুভেচ্ছা। ঈশ্বর আমাকে যা যা ভাল কিছু উপহার হিসাবে দিয়েছেন তাঁর মধ্যে সব থেকে সেরা খুশি হল বাবা হওয়ার আনন্দ। বাবা হওয়ার আনন্দ আমার কাছে আশীর্বাদের মতো। তবে এমন দিনে আমি আমার বুড়ো মানুষটাকে খুব মিস করি। তবে এমন বিশেষ দিনে আমি আমার বাবার সঙ্গে কাটানো সময় ও স্মূতিগুলোকে উপভোগও করি।

    Published by:Suman Majumder
    First published: