• Home
  • »
  • News
  • »
  • sports
  • »
  • OTHER SPORTS PV SINDHU WILL BE THE FLAG BEARER FOR INDIA IN TOKYO OLYMPICS RRC

PV Sindhu: টোকিও অলিম্পিকসে ভারতের পতাকা বাহক পিভি সিন্ধু

টোকিওতে সিন্ধুর হাতেই জাতীয় সম্মান

টোকিও অলিম্পিকসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মহিলা অ্যাথলিট হিসেবে ভারতের পতাকা বহন করবেন পিভি সিন্ধু। ভারতের এই ব্যাডমিন্টন তারকা এর আগে ২০১৮ গোল্ড কোস্ট কমনওয়েলথ গেমসের মার্চপাস্টেও পতাকা বহন করেছিলেন

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: ভারতের ব্যাডমিন্টন দলে এবার টোকিও অলিম্পিকসে যথেষ্ট ভাল করার ক্ষমতা রয়েছে আগেই জানিয়েছিলেন গোপিচাঁদ। যদিও এবার তিনি সরাসরি যুক্ত নন, কিন্তু প্রতিদিন সিন্ধু, সাত্ত্বিক, সাই প্রণীত দের প্রস্তুতিতে উপস্থিত থেকেছেন। লন্ডন অলিম্পিকসে জেতা ছটি পদকের থেকে বেশি পদক জিতবে ভারত নিশ্চিত তিনি। ছাত্রী সিন্ধুর জন্য আলাদা গর্ব তো আছেই। টোকিও অলিম্পিকসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মহিলা অ্যাথলিট হিসেবে ভারতের পতাকা বহন করবেন পিভি সিন্ধু। ভারতের এই ব্যাডমিন্টন তারকা এর আগে ২০১৮ গোল্ড কোস্ট কমনওয়েলথ গেমসের মার্চপাস্টেও পতাকা বহন করেছিলেন। ভারতীয় অলিম্পিক সংস্থার (আইওএ) পক্ষ থেকে এই খবর জানানো হয়েছে।

    উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ভারতের এক পুরুষ অ্যাথলিটের হাতেও থাকবে জাতীয় পতাকা। তাঁর নাম এখনও ঘোষণা করেনি আইওএ। টোকিও গেমসের উদ্বোধন হবে ২৩ জুলাই। ২০১৬ রিও গেমসে রুপো জয়ী সিন্ধুকে ঘিরে আরও একটা ওলিম্পিক পদক জয়ের স্বপ্ন দেখছে ভারত। কারণ এবার গেমসে নেই বিশ্বের এক নম্বর মহিলা ব্যাডমিন্টন তারকা ক্যারোলিনা মারিন। সিন্ধুর বাবা পিভি রামানা মেয়ের পতাকা বাহক হওয়ার খবর শুনে দারুণ গর্বিত।

    তিনি বলেন, ‘বিশ্বের সবচেয়ে বড় ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় জাতীয় পতাকা বহন করা বিরাট সম্মানের। ১৯৮৬-র এশিয়ান গেমসে দেখেছিলাম, উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে পিটি ঊষা ভারতের পতাকা বহন করেছিলেন। এবার আমার মেয়ে সেই গৌরব অর্জন করতে চলেছে। এটা যে কতখানি আনন্দের, তা বলে বোঝাতে পারব না। টোকিও গেমসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান তারিয়ে উপভোগ করব। আমি চাই, পদক জিতে এর প্রতিদান দিক সিন্ধু।’

    কোনও প্রস্তুতি টুর্নামেন্ট আর নেই তাঁর সামনে। কোভিডের কারণে মালয়েশিয়া ওপেন, ইন্ডিয়া ওপেন ও সিঙ্গাপুর ওপেন ব্যাডমিন্টন বাতিল হয়ে গিয়েছিল আগেই। এই অবস্থায় তাই বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ভারতের একনম্বর শাটলার পিভি সিন্ধুর অলিম্পিক প্রস্তুতি বেশ ধাক্কা খেয়েছে। সেটা জানেন বলেই সিন্ধু নিজেকে তৈরি করছেন অন্যভাবে। রবিবার সংবাদ সংস্থাকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে সিন্ধু বলেছেন, 'তিনটে টুর্নামেন্ট বাতিল হয়ে যাওয়ায় প্রস্তুতির সমস্যা রয়েছে ঠিকই। কিন্তু আমার কোচ আমাকে প্রচুর সিচুয়েশন ট্রেনিং করাচ্ছেন। যা টুর্নামেন্ট না থাকার ঘাটতি মিটিয়ে দেবে।'

    সিন্ধু হায়দরাবাদের গাচ্চিবাওলি স্টেডিয়ামে কোরিয়ান কোচ পার্ক তায়ে সাঙের কাছে ট্রেনিং করছেন। ফিজিক্যাল ফিটনেস সারছেন স্থানীয় সুচিত্রা অ্যাকাডেমিতে। তবে ক্যারোলিনা নেই বলে লড়াই সহজ মনে করেন না সিন্ধু। গোপিচাঁদ আশাবাদী অন্য দুই ছাত্র সাই এবং সাত্ত্বিক চমক দিতে পারেন। এঁরা যদি অন্তত একটা পদক নিয়ে আসেন অবাক হবেন না তিনি।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: