ব্রাইটের অসাধারণ গোলেও ড্র ইস্টবেঙ্গলের, শেষ প্লে-অফের আশা

ব্রাইটের অসাধারণ গোলেও ড্র ইস্টবেঙ্গলের, শেষ প্লে-অফের আশা
কাজে এল না ব্রাইটের অসাধারণ গোল photo/isl twitter

আজ সহজ ৪-৪-২ ছকে দল নামিয়েছিলেন ব্রিটিশ কোচ।ষাট মিনিটের একটু আগে গোল করে এগিয়ে যায় ইস্টবেঙ্গল।

  • Share this:
    এস সি ইস্টবেঙ্গল - ১ (ব্রাইট)

    হায়দরাবাদ - ১ (আরিদানি)

    #গোয়া: শুক্রবার প্লে-অফে যাওয়ার শেষ সুযোগ ছিল এসসি ইস্টবেঙ্গলের সামনে। তবে জয় ছাড়া অন্য কোনও রাস্তা ছিল না। কিন্তু ম্যাচে লিড নিয়েও শেষপর্যন্ত ড্র করে ফিরতে হল রবি ফাওলারের দলকে। ম্যাচের প্রথম থেকে অবশ্য দাপট ছিল হায়দরাবাদের। তবুও প্রথমার্ধে দুটো সুযোগ চলে এসেছিল লাল হলুদের সামনে। একবার বাঁপায়ে দুর্দান্ত শট নেন পিলকিংটন।কাটিমানি সেভ করেন। আর একবার অঙ্কিত নিজে না মেরে পিলকিংটনকে দিলে গোল হয়। কিন্তু তাড়াহুড়ো করে ভুল সিদ্ধান্ত নিলেন এই রাইট ব্যাক। আজ সহজ ৪-৪-২ ছকে দল নামিয়েছিলেন ব্রিটিশ কোচ।

    ষাট মিনিটের একটু আগে গোল করে এগিয়ে যায় ইস্টবেঙ্গল। একটা উঁচু বল হেডে ফ্লিক করে ব্রাইটকে বাড়ান পিলকিংটন। গতিতে সানা এবং আশিষকে পেছনে ফেলে আগুয়ান গোলরক্ষকের শরীরের তলা দিয়ে বল জালে জড়িয়ে দেন এই নাইজেরীয়। দেখার মত গোল। তবে সমান কৃতিত্ব প্রাপ্য পিলকিংটনের। এরপর হায়দরাবাদ নিখিল পূজারী, ইয়াসিরকে নামিয়ে গতি বাড়ানোর চেষ্টা করে। পরে আনা হয় রোহিত দানু এবং স্প্যানিশ স্ট্রাইকার সন্দোজাকে।

    লিড নিলেও লাল হলুদের খেলায় আক্রমণের ঝাঁঝ ছিল না সেভাবে। সৌরভ দাস চেষ্টা করলেন। সার্থক লড়াই করলেন। কিন্তু এদিন স্টেনম্যান নড়াচড়া করতে পারেননি। বিপক্ষ দলের দুই স্প্যানিশ মিডফিল্ডার শাস্ত্রে এবং ভিক্টর জায়গা দেননি এই জার্মানকে। পাশাপাশি এদিন রেফারি লোকেন মিতেই দুটো নিশ্চিত পেনাল্টি দেননি। প্রথমটা বক্সের ভেতর রাজুর হাতে বল লাগলে এবং দ্বিতীয়টা ব্রাইটকে বক্সের ভেতর ফেলে দিলে। অতিরিক্ত ছয় মিনিট সময় দিয়েছিলেন চতুর্থ রেফারি। লড়াই চালিয়ে যেতে থাকে ম্যানুয়েল মার্কেজের দল।

    অতিরিক্ত সময় গোল পেয়ে যায় হায়দরাবাদ। সান্ডাজা বক্সের ডানদিক থেকে মাইনাস করলে আরিদানি গোল করতে ভুল করেননি। আবার শেষ মুহূর্তে গোল হজম করে তিন পয়েন্ট নিয়ে ফেরা হল না লাল-হলুদের। পাশাপাশি নিশ্চিত করে বলে দেওয়া যায় এবারের মত যাত্রা শেষ শতবর্ষ প্রাচীন ক্লাবের। শেষ চারের যাবতীয় আশার বিসর্জন ঘটে গেল আজ।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: