EXCLUSIVE: বড় চমক ! ডার্বিতে লাল-হলুদ জার্সিতে বাগানের ‘স্টেন-ম্যান’

EXCLUSIVE: বড় চমক ! ডার্বিতে লাল-হলুদ জার্সিতে বাগানের ‘স্টেন-ম্যান’

পুরনো ক্লাবে ফিরতে চেয়ে মিলেছে উপেক্ষা। ম্যাজিশিয়ান এবার লাল-হলুদে। ১৯-র ডার্বিতে ইস্টবেঙ্গলে অভিষেক সনি নর্ডির।

  • Share this:

#কলকাতা: বিশ্বাস হবে তো? শুনতে অবিশ্বাস্য লাগবে। কিন্তু এটাই সত্যি।নতুন বছরে বড় চমক। বছরের বড় প্রাপ্তি ইস্টবেঙ্গলের। জানুয়ারির ট্রান্সফার উইন্ডো-তে হাত গুটিয়ে বসে থেকেও শেষ সময়ে বাজিমাত লাল-হলুদের। সব কিছু ঠিকঠাক চললে উনিশের ডার্বিতে লাল-হলুদ জার্সি পড়ে মাঠে নামতে চলেছেন বাগানের ‘স্টেন-ম্যান’ সনি নর্ডি।

কথাবার্তা একরকম চূড়ান্ত। লাল-হলুদ জার্সি পড়ার বিষয়ে প্রাথমিক সম্মতিও দিয়ে ফেলেছেন হাইতিয়ান। আজারবাইজানের ক্লাব জিরা এফকে-র থেকে ছাড়পত্রও নিয়ে ফেলেছেন বাগানের ‘স্টেন-ম্যান’। আজারবাইজানের ক্লাবের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরেই বনিবনা হচ্ছিল না হাইতিয়ান তারকার।

ছেলের জন্মদিন সেলিব্রেট করতে বড়দিনের সময়ে দুবাই উড়ে আসার মাঝেই মোহনবাগানে ফেরার সম্ভাবনা বাজিয়ে দেখছিলেন সনি। কিন্তু পুরনো ক্লাব সালভা চামোরো ও কলিনাসের পরিবর্ত হিসেবে পাপা বাবাকর দিওয়ারা ও তাজাকিস্তানের তুরসভের নাম ঘোষণা করে দিতেই মোহভঙ্গ ঘটে সনির। হাইতিয়ানকে ঘিরে মোহনবাগান জনতার আবেগের কথা ভেবেই ইস্টবেঙ্গলে খেলার প্রসঙ্গ উঠলেই এড়িয়ে যেতেন সনি নর্ডি। শেষ পর্যন্ত সেই ইস্টবেঙ্গলেই সই করছেন বাগানে খেলে যাওয়া অন্যতম সেরা বিদেশি তারকা।

হোসে রামিরেজ ব্যারেটোর পর সনি নর্ডিকেই বাগানের ঘরের ছেলে ধরেন সবুজ-মেরুন জনতা। সেই সোনির ইস্টবেঙ্গলে যোগদানে বাগানজনতার যে মন ভাঙবে, বলাই বাহুল্য। আজারবাইজানের ক্লাব থেকে রিলিজ অর্ডার হাতে আসার পরেই ভারতে ক্লাব খোঁজার বিষয়ে তৎপর হন সনি নর্ডি। গোকুলামের সঙ্গে কথাবার্তাও শুরু হয়।

কথাবার্তা শুরু হয়ে মালয়েশিয়ান ক্লাবের সঙ্গেও। এরইমধ্যে প্রস্তাব আসে ইস্টবেঙ্গলের পক্ষ থেকে। টাকার পরিমাণও গোকুলামের থেকে অনেকটাই বেশি। ভারতে ফেরার জন্য ছটফট করছিলেন হাইতিয়ান-ম্যাজিসিয়ান। এই দেশের ফুটবলে পরিচিত নাম তিনি। এখানকার পরিবেশও তাঁর চেনা। তাই দ্বিতীয়বার আর ভাবেননি হাইতিয়ান। তবু মোহনবাগান-ইস্টবেঙ্গলের রেষারেষির সম্পর্কের কথা ভেবেই ইতস্তত করছিলেন। এই জায়গাটাতেই এগিয়ে এলেন ইস্টবেঙ্গল কর্তারা। মোহনবাগানের উপেক্ষার জবাব দিতে ইস্টবেঙ্গলই যে তাঁর সঠিক প্ল্যাটফর্ম, এটা বোঝানোর পরেই লাল-হলুদ জার্সি পড়ার বিষয়ে মনস্থির করে ফেলেন বাগানের ‘স্টেন-ম্যান’। সনি-কে দলে পেতে উৎসাহী ইস্টবেঙ্গল কোচ আলেজান্দ্রোও। সব কিছু ঠিকঠাক চললে গোকুলাম ম্যাচের আগেই কলকাতা চলে আসছেন সনি নর্ডি। উনিশের ডার্বিতেই লাল-হলুদ জার্সি পড়ে যুবভারতীতে অভিষেক ঘটবে স্টেন-ম্যানের।

Paradip Ghosh 

First published: January 12, 2020, 12:03 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर