উৎসব হবে! বিশ্বভারতীর লোগো ব্যবহার করে ফেক নোটিফিকেশন, কঠোর কর্তৃপক্ষ

উৎসব হবে! বিশ্বভারতীর লোগো ব্যবহার করে ফেক নোটিফিকেশন, কঠোর কর্তৃপক্ষ

এই ঘটনায় পদক্ষেপ নিতে চলেছে বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ।

  • Share this:

#শান্তিনিকেতন:বিশ্বভারতীর বসন্ত উৎসব বাতিল ঘোষনার পর  বিশ্বভারতীর লোগো নকল করে ফেক নোটিফিকেশন ঘুরে বেড়াচ্ছে সোশাল মিডিয়ায়। ৭ মার্চের সেই ভুয়ো নির্দেশিকায় লেখা রয়েছে - বসন্ত উৎসব বাতিল হলেও 8 মার্চ বিশ্বভারতীতে সন্ধ্যায় বসন্ত বন্দনা ও ৯ মার্চ সকালে বিশ্বভারতীতে বৈতালিক হবে। এই ভুয়ো নির্দেশিকার জেরে সাধারন মানুষের মধ্যে বিভ্রান্তি ছাড়ালেও প্রশাসনের নজরদারী ও পাল্টা প্রচারে সাধারণ মানুষ ওই নির্দেশিকা সম্পর্কে বুঝতে পেরেছেন।

জানা গিয়েছে এই ঘটনায় পদক্ষেপ নিতে চলেছে বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ।বিশ্বভারতীর কর্মসমিতির বৈঠকের পর বাতিল হয় শান্তিনিকেতনের বসন্ত উৎসব। ইউজিসি বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষের কাছে করোনা ভাইরাস সম্পর্কে সতর্কীকরণ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে চিঠি পাঠায়। ওই চিঠি আসার পরই বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ বৈঠকে বসে। বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন বিশ্বভারতীর উপাচার্য বিদ্যুত চক্রবর্তী, বসন্ত উৎসব কমিটির চেয়ারম্যান সুশোভন বন্দ্যোপাধ্যায়-সহ অন্যান্য কর্মীরা ও বিশ্বভারতীর আধিকারিকরা। কয়েকঘণ্টা মিটিং চলার পর বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ সাংবাদিক বৈঠক করে জানান, এই বছরের মত বসন্ত উৎসব বাতিল করা হল। অবশ্য এই বসন্ত উৎসব পরে অন্য কোনও সময় বিশ্বভারতীতে পালিত হতে পারে। যদিও তা নিয়ে পরে সিদ্ধান্ত নেবে বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ।

বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ জানান, যেহেতু বসন্ত উৎসবে প্রচুর মানুষের সমাগম ঘটে কোন মানুষ যদি করোনা ভাইরাস সংক্রামিত থাকে সে ক্ষেত্রে অন্যদের মধ্যে ছড়িয়ে পড়তে এই ভাইরাস। বসন্ত উৎসব পালন করার জন্য বিশ্বভারতীর মেলার মাঠে সমস্ত প্রস্তুতি প্রায় শেষ পর্যায়ে ছিল। পরে বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ নোটিফিকেশন জারি করে। নোটিফিকেশনে রাজ্য সরকারকে ধন্যবাদ জানানো হয়েছে।  পাশাপাশি শনি ও রবিবার বিশ্বভারতী অন্যান্য শনিবার ও রবিবারের মতই বন্ধ থাকবে বলে জানানো হয়েছে। ৯  মার্চ বিশ্বভারতীতে দোলযাত্রা হিসাবে ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। এই নোটিশ ২৩ জনকে মেলে পাঠিয়েছে বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ। ৭,  ৮ ও ৯ মার্চ বিশ্বভারতীর গেট বন্ধ থাকবে সাধারণের জন্য। অবশ্য আবাসিক ছাত্র-ছাত্রীরা বিশ্বভারতীতে থাকতে পারবে ওই সময়।

Supratim Das

First published: March 8, 2020, 5:58 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर