corona virus btn
corona virus btn
Loading

এই প্রথম দুবরাজপুর রামকৃষ্ণ আশ্রমের বাইরে বের হবে না রথ

এই প্রথম দুবরাজপুর রামকৃষ্ণ আশ্রমের বাইরে বের হবে না রথ

করোনা পরিস্থিতির কথা ভেবেই এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন আশ্রম কর্তৃপক্ষ। তবে প্রথা মেনে আশ্রম চত্বরে রথ টানা হবে ৷

  • Share this:

#দুবরাজপুর: ১৯৬২ সালে দুবরাজপুরের শ্রী শ্রী রামকৃষ্ণ আশ্রমে স্বামী ভূপানন্দ মহারাজের উদ্যোগে প্রথম কাগজের রথ তৈরি হয়। এই রথ আশ্রমের আবাসিক ছাত্র ও সাধারণ মানুষের জন্য প্রচলন করেছিলেন ৷ দুবরাজপুর শহর পরিক্রমা করে সেই রথ। পরবর্তীতে ১৯৭৯ সালে তৈরি হয় কাঠের রথ। সেই রথের চাকাও রীতি মেনে প্রতিবছর ঘুড়েছে শহরে। এই রথে চড়ে শহর ঘোড়েন জগন্নাথ, বলরাম, সুভদ্রা ও ঠাকুর সত্যানন্দ দেব ৷

এই রথ দেখার জন্য দুবরাজপুর বাসি রাস্তার দু’ধারে দাঁড়িয়ে থাকে দীর্ঘক্ষণ ধরে ৷ এই রথের সময় দুবরাজপুর রামকৃষ্ণ আশ্রমে দূরদূরান্ত থেকে প্রাক্তন ছাত্র ও বহু সন্ন্যাসীরা আসেন৷ কিন্তু এই প্রথমবার দুবরাজপুরের রাস্তায় টানা হবে না রথ। করোনা পরিস্থিতির কথা ভেবেই এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন আশ্রম কর্তৃপক্ষ। তবে প্রথা মেনে আশ্রম চত্বরে রথ টানা হবে ৷

রথ টানবে শুধুমাত্র আশ্রমের সন্ন্যাসী ও ব্রহ্মচারীরা ৷ রীতি মেনে পুজো অর্চনা হবে ৷ দুবরাজপুর রামকৃষ্ণ আশ্রমের শীর্ষ সেবক স্বামী সত্য শিবানন্দ মহারাজ জানান, ভক্তদের কাছে অনুরোধ করা হয়েছে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে বিগ্রহ দর্শন করে ফিরে যাওয়ার জন্য ৷ এছাড়াও রথযাত্রা উপলক্ষে রথের শেষে প্রসাদ খাওয়ানোর ব্যবস্থা থাকে সেটি এবার বাতিল করা হয়েছে ৷ প্রসাদ হিসেবে এবার শুধু শুকনো বাদাম ও বাতাসা দেওয়া হবে ৷ সাধারণ মানুষের কথা মাথায় রেখে কিন্তু এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে দুবরাজপুর রামকৃষ্ণ আশ্রম ৷

Published by: Dolon Chattopadhyay
First published: June 22, 2020, 12:25 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर