• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • চলন্ত টোটোয় ছাত্রীর শ্লীলতাহানি, টোটো থেকে ঝাঁপ ছাত্রীর

চলন্ত টোটোয় ছাত্রীর শ্লীলতাহানি, টোটো থেকে ঝাঁপ ছাত্রীর

হাওড়ার বালিতে ছাত্রীর শ্লীলতাহানির চেষ্টা। বাঁচতে চলন্ত টোটো থেকে ঝাঁপ স্কুলছাত্রীর।

হাওড়ার বালিতে ছাত্রীর শ্লীলতাহানির চেষ্টা। বাঁচতে চলন্ত টোটো থেকে ঝাঁপ স্কুলছাত্রীর।

হাওড়ার বালিতে ছাত্রীর শ্লীলতাহানির চেষ্টা। বাঁচতে চলন্ত টোটো থেকে ঝাঁপ স্কুলছাত্রীর।

  • Share this:

    #হাওড়া: হাওড়ার বালিতে ছাত্রীর শ্লীলতাহানির চেষ্টা। বাঁচতে চলন্ত টোটো থেকে ঝাঁপ স্কুলছাত্রীর। চালকের তৎপরতায় অভিযুক্ত যুবককে ধরে ফেলেন কর্তব্যরত ট্রাফিক সার্জেন্ট। পরে অভিযুক্ত কৌশিক কর্মকারকে গ্রেফতার করে বেলুড় থানার পুলিশ।

    রোজকার মতো শুক্রবার সকাল আটটা নাগাদ বালির বাদামতলা থেকে টোটোয় উঠেছিল দশম শ্রেণির স্কুলছাত্রীটি। প্রাইভেট টিউশনের জন্য বেলুড়ে যাচ্ছিল সে। মাঝপথে ওই টোটোয় ওঠে কৌশিক কর্মকার নামে এক যুবক। অভিযোগ, ওঠার পর থেকেই ওই ছাত্রীর সঙ্গে অভব্য আচরণ করছিল সে। চলন্ত টোটোয় ছাত্রীর শ্লীলতাহানির চেষ্টা করে বলেও অভিযোগ।

    সকালের দিকে জিটি রোড সুনসান থাকায় সাহায্যের জন্য কাউকে ডাকতে পারেননি ওই ছাত্রী। প্রতিবাদ করলেও, চেঁচামেচি না করে উপস্থিত বুদ্ধির পরিচয় দেয় সে। বেলুড়ের লালবাবা কলেজের সামনে, এক ট্রাফিক সার্জেন্টকে দেখেই চেঁচিয়ে ওঠে। শ্লীলতাহানির হাত থেকে বাঁচতে, চলন্ত টোটো থেকেই ঝাঁপ মারে দশম শ্রেণির ওই ছাত্রী। টোটো চালকের সাহায্যে অভিযুক্ত যুবককে ধরে ফেলেন ট্রাফিক সার্জেন্ট।

     ছাত্রীর লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে লিলুয়ার আনন্দনগরের বাসিন্দা কৌশিক কর্মকারকে গ্রেফতার করে বেলুড় থানার পুলিশ। তার বিরুদ্ধে ৩৫৪D ধারায় শ্লীলতাহানির মামলা দায়ের হয়েছে। ধৃতকে শনিবার হাওড়া আদালতে তোলা হবে।

    First published: