কাটমানি নেওয়ার অভিযোগে অপসারিত উপ-পুরপ্রধান শান্তা সরকার

কাটমানি নেওয়ার অভিযোগে অপসারিত উপ-পুরপ্রধান শান্তা সরকার
  • Share this:

#সোনারপুর: মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ঘোষণার পর থেকে কড়া প্রশাসন ৷ কাটমানি নেওয়ার অপরাধে এবার অপসারিত রাজপুর-সোনারপুর উপ-পুরপ্রধান ৷ শনিবার অপসারণ করা হয় উপ-পুরপ্রধান শান্তা সরকারকে ৷

দীর্ঘদিন ধরে রাজপুর সোনারপুর পুরসভার চেয়ারম্যান শান্তা সরকারের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ উঠছিল। অভিযোগ, এলাকায় কোনও কাজ করাতে গেলে টাকা চাইত শান্তার লোকজন। এছাড়াও এলাকায় পুকুর ভরাট, সিন্ডিকেট চালানোরও অভিযোগ রয়েছে তাঁর বিরুদ্ধে। এই নিয়ে বেশ কয়েকদিন ধরে দলের মধ্যেই ক্ষোভ বাড়ছিল। শান্তার বিরুদ্ধে অভিযোগ জানান দলের একাধিক নেতাকর্মী।

অভিযোগ, লোকসভা ভোটের আগে রাজপুর - সোনারপুর পুরপ্রধান, পল্লব দাসের সঙ্গে বচসায় জড়িয়ে পড়েন তিনি। তাঁর সঙ্গে দুর্ব্যবহার ও মারধরের অভিযোগ ওঠে। ঘটনার পর পুরসভায় যাওয়া বন্ধ করে দেন পুরপ্রধান। অভিযোগ যায় ফিরহাদ হাকিমের কাছে। অভিযোগ জানান হয় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছেও। এরপরই শান্তা সরকারের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। উপপ্রধানের পদ থেকেই সরিয়ে দেওয়া হয় তাঁকে। যদিও এব্যাপারে তিনি কিছুই জনেন না বলে দাবি শান্তার। পুরসভার পরিচালন সমিতির বৈঠকে সিদ্ধান্ত, আপাতত চেয়ারম্যানের পদ সামলাবেন পল্লব দাস।

অন্যদিকে বীরভূমের পাড়ুইয়ে একাধিক কাজে দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে পঞ্চায়েত প্রধান, বুথ সভাপতি সহ একািক তৃণমূল নেতার বিরুদ্ধে। পঞ্চায়েত প্রধান সিরাজুল শাদের বিরুদ্ধে অভিযোগে এজদিন সকাল থেকে সোচ্চার হল এলাকাবাসী। অভিযোগ, বিভিন্ন প্রকল্পের টাকা আত্মসাৎ করেছেন তিনি। সেই টাকা ফেরানোর দাবিতে বিক্ষোভ দেখান গ্রামবাসীরা। অভিযোগ, একশো দিনের কাজ-সহ একাধিক প্রকল্পের টাকা আত্মসাৎ করেছেন তিনি। এতে যুক্ত স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্বও। যদিও এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন পঞ্চায়েত প্রধান।

কাটমানি নিয়ে অভিযোগে বিক্ষোভ সাঁইথিয়াতেও। অভিযোগ, ফুলুরের নবগ্রামে বাড়ি তৈরিতে কাটমানি দাবি করেন তৃণমূল পঞ্চায়েত সদস্য ডালিম বাগদি। এই নিয়ে সকালে তাঁর বাড়িতে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন গ্রামবাসীরা। পরে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে পুলিশ।

Loading...

চুঁচুড়ায় বিক্ষোভের মুখে তৃণমূল বিধায়ক অসিত মজুমদার। অভিযোগ, তৃণমূলের সময় এলাকায় ১৬টি পুকুর ডোবান হয়েছিল। বিধায়ক সিদ্ধান্ত নেন, পুকুরগুলিকে আগের অবস্থায় ফিরিয়ে আনা হবে। এই নিয়ে শনিবার আট নম্বর ওয়ার্ডের কাপাসডাঙায় পরিদর্শনে যান অসিত মজুমদার। সঙ্গে ছিলেন পুরপ্রধান, উপ-পুরপ্রধান, বিএলআরও। সেখানেই তাঁকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখায় বিজেপি।

সরকারি প্রকল্পের সুবিধা দেওয়া বা অন্য কোনও আছিলায় কাটমানি খাওয়া বন্ধ করতে হবে। বিভিন্ন পুরসভার দলীয় কাউন্সিলরদের সঙ্গে বৈঠকের আগে, গত ১০ জুন নবান্নে প্রশাসনিক বৈঠকেও এই কড়া বার্তা দেন মুখ্যমন্ত্রী। মুখ্যমন্ত্রীর দফতরে চালু হয়েছে অভিযোগ সেলও। সেখানে এই ক’দিনেই জমা পড়েছে ভূরি ভূরি অভিযোগ। কাটমানি খাওয়ার অভিযোগে গ্রেফতারও করা হয়েছে মালদার এক তৃণমূল নেতাকে। ১ কোটি টাকা কাটমানি খাওয়ার অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছে মালদার ওই তৃণমূল নেতাকে।

কাটমানি খাওয়া রুখতে মুখ্যমন্ত্রীর দাওয়াইয়ের জের। দলের রং না দেখে কড়া প্রশাসন। নির্মল বাংলা প্রকল্পে ১ কোটি টাকা কাটমানি খাওয়ার অভিযোগে গ্রেফতার মালদার তৃণমূল নেতা। মুখ্যমন্ত্রীর দফতরে যে অভিযোগ সেল চালু হয়েছে, সেখানে জমা পড়েছে ভূরি ভূরি অভিযোগ। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই কাঠগড়ায় তৃণমূলের নেতা-কর্মীরা।

First published: 03:35:35 PM Jun 22, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर
Listen to the latest songs, only on JioSaavn.com