মোবাইল চোর সন্দেহে বনগাঁয় যুবককে নর্দমায় ফেলে গণপিটুনি, ফেটে গেল চোখ

মোবাইল চোর সন্দেহে বনগাঁয় যুবককে নর্দমায় ফেলে গণপিটুনি, ফেটে গেল চোখ

গণপ্রহারের ছবিটি প্রতীকী

গোঁড়ালির আঘাতে চোখ ফেটে রক্ত বেরোতে থাকে নারায়ণের৷ শরীরের বিভিন্ন জায়গায় জমাট রক্ত৷ সে দিনই রাতে তাঁকে ভর্তি করা হয় বনগাঁ মহকুমা হাসপাতালে৷

  • Share this:

    #বনগাঁ: মোবাইল চোর সন্দেহে উলঙ্গ করে শরীরে চোসরা পাতা লাগিয়ে এক যুবককে বেধড়ক মারধরের অভিযোগ উঠল বনগাঁয়৷ গণপিটুনির জেরে যুবকের ডান চোখ ফেটে রক্ত বেরিয়ে যায়৷ আহত যুবকের নাম নারায়ণ দাস৷

    বৃহস্পতিবার বনগাঁ থানার ২ নম্বর এলাকায় ঘটনাটি ঘটেছে৷ স্থানীয় একটি মোবাইলের দোকানে নারায়ণকে চোর সন্দেহে মারধর করে দোকানের মালিক ও কর্মীরা৷ নারায়ণের স্ত্রী রূপা দাস জানিয়েছেন, তাঁর স্বামীকে নর্দমায় ফেলে মারধর করে কয়েকজন মিলে৷ গোঁড়ালির আঘাতে চোখ ফেটে রক্ত বেরোতে থাকে নারায়ণের৷ শরীরের বিভিন্ন জায়গায় জমাট রক্ত৷ সে দিনই রাতে তাঁকে ভর্তি করা হয় বনগাঁ মহকুমা হাসপাতালে৷ নারায়ণের ভ্যান ও মেবাইল কেড়ে নিয়ে বলা হয়, ১০ হাজার টাকা দিলে তবে ওগুলি ফেরত দেবে৷

    ঘটনার দোষীদের শাস্তির দাবিতে বনগাঁ থানার দ্বারস্থ হয়েছেন নারায়ণের পরিবারের লোকেরা৷ মারধরের চোটে প্রবল জ্বরও এসেছে নারায়ণের৷

    আরও ভিডিও: ছেলেধরা অপবাদে গণপিটুনি! দেখুন ভিডিও...

    First published:

    লেটেস্ট খবর