• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • FARMERS SHOWN PROTEST OVER LAND PROBLEMS IN ASHOK NAGAR ONGC OIL MINE PROJECT SR

অশোকনগরে বিপুল তৈল ভণ্ডার, ক্ষতিপূরণ না মেলায় শুরু কৃষক বিক্ষোভ

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় গরীব কৃষকদের পাশে সবসময় থাকেন। তাঁদের প্রতি বঞ্চনা তিনি মেনে নেন না। জমিহারা কৃষকদের প্রত্যেক পরিবারের একজনকে ওএনজিসি প্রকল্পে চাকরি দেওয়ার দাবিও জানান তিনি।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় গরীব কৃষকদের পাশে সবসময় থাকেন। তাঁদের প্রতি বঞ্চনা তিনি মেনে নেন না। জমিহারা কৃষকদের প্রত্যেক পরিবারের একজনকে ওএনজিসি প্রকল্পে চাকরি দেওয়ার দাবিও জানান তিনি।

  • Share this:

RAJARSHI ROY

#অশোকনগর: উত্তর ২৪ পরগনার অশোকনগরে ওএনজিসি’র প্রকল্প ঘিরে আশার পাশাপাশি বাড়ছে আশঙ্কাও। প্রকল্পের জন্য অধিগৃহীত জমিতে চাষবাস করে জীবিকা নির্বাহ করতেন যে কৃষকরা, তাঁরা এখন ক্ষোভে ফুঁসছেন। কারণ, ক্ষতিপূরণ মেলেনি তাঁদের। পুরসভার মুখ্য প্রশাসক প্রবোধ সরকার একসময় কৃষকদের ক্ষতিপূরণের আশ্বাস দিলেও তিনি জানান, প্রকল্প এলকার জমির সবটাই উদ্বাস্তু ও উদ্বাস্তু পুনর্বাসন দফতরের। ব্যক্তি মালিকানায় কোনও জমি ওখানে নেই। অন্যদিকে, জমিহারা কৃষকদের দাবি, গত প্রায় ৭০ বছর ধরে অধিগৃহীত জমিতে চাষবাস করে এসেছেন তাঁরা। তাঁদের অনেকের জমির দলিলও আছে। বিক্ষুব্ধ কৃষকরা ক্ষতিপূরণের দাবিতে আন্দোলন শুরু করেছেন। পাশাপাশি আইনি লড়াইও শুরু করবেন বলে জানিয়েছেন।

বছর কয়েক আগে অনুসন্ধান শুরু সময় জমি অধিগ্রহণে কৃষকরা বাধা দিয়েছিল। তৎকালীন পুরপ্রধান প্রবোধ সরকার তাঁদের ক্ষতিপূরণের আশ্বাসও দেন। পরে পুরপ্রধান কথা রাখেনি বলে অভিযোগ কৃষকদের। এই পরিস্থিতিতে বিক্ষোভ দানা বাঁধতে শুরু করেছে প্রকল্প এলাকায়। জমিহারা কৃষকরা ক্ষোভে ফুঁসছেন। পুরসভার মুখ্য প্রশাসক প্রবোধ সরকার অধিগৃহীত জমি উদ্বাস্তু ও উদ্বাস্তু পুনর্বাসন দফতরের উল্লেখ করে কৃষকদের দাবি খারিজ করেছেন। ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে থাকার পক্ষে মত প্রকাশ করেছেন অশোকনগর কল্যানগড় পুরসভার অন্যতম প্রশাসক সমীর দত্ত। সমীর দত্ত বলেছেন, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় গরীব কৃষকদের পাশে সবসময় থাকেন। তাঁদের প্রতি বঞ্চনা তিনি মেনে নেন না। জমিহারা কৃষকদের প্রত্যেক পরিবারের একজনকে ওএনজিসি প্রকল্পে চাকরি দেওয়ার দাবিও জানান তিনি।

এ দিন ওএনজিসি প্রকল্প এলাকায় বিক্ষোভ মিছিল করে জমিহারা কৃষকরা। সেই মিছিলের নেতৃত্ব দেন অশোকনগর কল্যানগড় পুরসভার প্রাক্তন চেয়ারম্যান ও বর্তমান প্রশাসক মন্ডলীর সদস্য সমীরবাবু । উপযুক্ত ক্ষতিপূরণের দাবিতে সোচ্চার হয় তাঁরা। এ দিন গ্রাম থেকে মিছিল করে কৃষক পরিবারের মহিলা ও পুরুষ এসে জড়ো হয় ওএনজিসি প্রকল্পের গেটের সামনে নৈহাট- হাবরা রোডে। সেখানেই তাঁরা বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন। বসে পড়েন রাস্তায়। শুরু হয় ক্ষতিপূরণেরএর দাবিতে পথ অবরোধ। জমিহারা পরিবারের সদস্য সাথী দাস এ দিন বলেন, তাঁদের জমির উপর ওএনজিসি প্রকল্প করেছে কোন ক্ষতিপূরন দেয়নি। আজ তেল ও গ্যাস পাওয়া গিয়েছে। দেশ ও রাজ্যে এটা গর্বের বিষয়। তাঁরাও চান ওএনজিসি’র প্রকল্প দিয়ে অশোকনগরের উন্নয়ন হোক। তবে তাঁদের ন্যায্য ক্ষতিপূরন ও একটি কাজ দেওয়া হোক।

একই দাবি তোলেন, আর এক ক্ষতিগ্রস্ত কৃষক নারায়ন চন্দ্র দাস। তাঁর অভিযোগ কাজ শুরুর সময় ওএনজিসি কর্তারা প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল। আজ আর তাঁদের কথা কেউ শুনছে না। তাই পথ অবরোধ করে প্রতিবাদ তাঁদের।অন্য দিকে পুরপ্রশাসক প্রবোধ সরকার এ দিন বলেন দল অনুমোদন করে না কোন ধরণের পথ অবরোধ। আর পুরপ্রশাসক হিসাবে পথ অবরোধ করাকে তিনি সঠিক বলে মনে করেন না। একই সঙ্গে তাঁর দাবি ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকরা কাগজ নিয়ে সরকারের কাছে দাবি জানাক। তিনি বলেন ওএনজিসি’র প্রকল্প সফল হোক চান অশোকনগরের ৯৯ শতাংশ মানুষ। সামান্য অংশকে ভুল বুঝিয়ে পথে নামিয়ে কোনও লাভ হবে না বলে দাবি অশোকনগর কল্যানগড় পুরসভার প্রশাসক প্রবোধ সরকারের।

Published by:Simli Raha
First published: