বেহাল এসটিকেকে রোড, ধান গাছ লাগিয়ে বিক্ষোভ কালনায়

বেহাল এসটিকেকে রোড, ধান গাছ লাগিয়ে বিক্ষোভ কালনায়

জেলা প্রশাসন জানিয়েছে, এসটিকেকে রোড সংস্কারের কাজ কয়েক মাস আগেই শুরু হয়েছে। করোনা পরিস্থিতির কারণে সেই কাজ থমকে ছিল।

জেলা প্রশাসন জানিয়েছে, এসটিকেকে রোড সংস্কারের কাজ কয়েক মাস আগেই শুরু হয়েছে। করোনা পরিস্থিতির কারণে সেই কাজ থমকে ছিল।

  • Share this:

#‌কালনা:‌ কালনায় বেহাল এসটিকেকে রোড। দীর্ঘদিন ধরে এই রাস্তা চলাচলের অনুপযুক্ত হয়ে থাকলেও তা সংস্কারের কাজ সম্পূর্ণ না হওয়ায় ক্ষুব্ধ এলাকার বাসিন্দারা। প্রতিদিনই এই বেহাল রাস্তায় দুর্ঘটনা ঘটছে। দুদিন আগে প্রাণহানির ঘটনাও ঘটেছে। তার পরও রাস্তা চলাচলের উপযোগী না হয়ে ওঠায় বিরক্ত সাধারণ মানুষ। এদিন এলাকার বাসিন্দারা এই বেহাল রাস্তায় ধান গাছ পুঁতে বিক্ষোভ দেখান। কংগ্রেসের নেতৃত্বে এই বিক্ষোভ হয়। তিন দিনের মধ্যে রাস্তা চলাচলের উপযোগী না হয়ে উঠলে বৃহত্তর আন্দোলনের হুমকি দিয়েছে এলাকার কংগ্রেস নেতৃত্ব।

সপ্তগ্রাম ত্রিবেণী কালনা কাটোয়া রোড।সংক্ষেপে এই রাস্তাকে এস টি কে কে রোড বলা হয়। পূর্ব বর্ধমান হুগলির মধ্য দিয়ে যাওয়া দক্ষিণবঙ্গের পাশাপাশি উত্তরবঙ্গের সঙ্গে যোগাযোগের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ সড়ক এটি। অথচ এক বছরেরও বেশি সময় ধরে এই রাস্তা বেহাল হয়ে পড়ে রয়েছে। রাস্তায় পিচ উঠে বিশাল বিশাল গর্ত তৈরি হয়েছে। খানাখন্দে ভরে উঠেছে রাস্তা।তার ফলেই দুর্ঘটনা নিত্য নৈমিত্তিক ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে। দুদিন আগেই এক মোটর সাইকেল আরোহী রাস্তার গর্তে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পড়ে গেলে একটি লরি তলায় চাপা পড়ে তাঁর মৃত্যু হয়। ওই ঘটনার পর এই রাস্তা ব্যবহারকারী বাসিন্দাদের ক্ষোভ আরও বেড়েছে। তাঁরা বলছেন, কালনার পারুলিয়া থেকে পান্ডুয়ার রেল গেট পর্যন্ত রাস্তার হাল খুবই খারাপ। অথচ তা চলাচলের উপযোগী করে তোলা হচ্ছে না। মানুষ প্রাণহানির আশঙ্কা কে সঙ্গী করে যাতায়াত করতে বাধ্য হচ্ছে।

জেলা প্রশাসন জানিয়েছে, এসটিকেকে রোড সংস্কারের কাজ কয়েক মাস আগেই শুরু হয়েছে। করোনা পরিস্থিতির কারণে সেই কাজ থমকে ছিল। পূর্ব বর্ধমানের জেলা শাসক বিজয় ভারতী বলেন, এস টি কে কে রোড খুবই গুরুত্বপূর্ণ রাস্তা তাই এই রাস্তা সংস্কারের কাজ দ্রুত শেষ করার জন্য সংশ্লিষ্ট দপ্তরকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

Saradindu Ghosh

Published by:Uddalak Bhattacharya
First published:

লেটেস্ট খবর