'বিয়ের দিন ঠিক হয়নি, বরপক্ষ তৈরি', পাহাড় নিয়ে ত্রিপাক্ষিক বৈঠক প্রসঙ্গে গুরুংদের খোঁচা রাজু বিস্তার

বিজেপিকে ধাপ্পাবাজ বলে আক্রমণ মোর্চার দুই শিবিরের।

বিজেপিকে ধাপ্পাবাজ বলে আক্রমণ মোর্চার দুই শিবিরের।

  • Share this:

#দার্জিলিং:

"বিয়ের তারিখই ঠিক হয়নি। আর বর বিয়ের জন্যে তৈরি!" পাহাড় নিয়ে ত্রিপাক্ষিক বৈঠকে বিমল গুরুং, অনীত থাপা, বিনয় তামাংদের যোগ না দেওয়া প্রসঙ্গে আজ এভাবেই কটাক্ষ করলেন দার্জিলিংয়ের সাংসদ তথা বিজেপি যুব মোর্চার নয়া সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক রাজু বিস্তা। দিল্লি থেকে ফিরে বাগডোগরা বিমানবন্দরে তিনি বলেন, এই এলাকা অত্যন্ত স্পর্শকাতর। এখানে সার্বিক উন্নয়নের জন্য স্থায়ী রাজনৈতিক সমাধানের প্রয়োজন। এই নিয়ে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শা'র সঙ্গেও আলোচনা হয়েছে। দ্রুত ত্রিপাক্ষিক বৈঠক হবে। এবং তা হবে সাংবিধানিক এবং পাহাড়ের স্থায়ী সমাধান। এখানকার নির্বাচিত প্রতিনিধিদের ডাকবে কেন্দ্র। রাজ্য ছাড়াও আর কাদের ডাকবে তা ঠিক করবে কেন্দ্রীয় সরকার।

"পাহাড়ে ওদের কোনো জনসমর্থন নেই। বিজেপি এবং তার জোটের সঙ্গে সমর্থন রয়েছে পাহাড়বাসীর। ওরা বাংলাপন্থী। আর ওদের দাবী পৃথক রাজ্য বা স্থায়ী রাজনৈতিক সমাধান নয়। ওদের দাবী জিটিএ। রাজ্য সরকার অংশ নেওয়ার অর্থই ওদের অংশগ্রহণ।" ত্রিপাক্ষিক বৈঠক নিয়ে বিমল, অনীতদের এই ভাষাতেই তোপ দাগলেন দার্জিলিংয়ের বিধায়ক নীরজ জিম্বা। তাঁর সাফ কথা, ওদের বৈঠকে ডাকার বিষয়ে কোনো কিছুই জানায়নি কেন্দ্র।

অন্যদিকে একসুরে সাংসদ রাজু বিস্তা এবং দার্জিলিংয়ের জিএনএলএফ সমর্থিত বিধায়ক নীরজ জিম্বাকে আক্রমণ করলেন বিমল এবং অনীতপন্থীরা। ত্রিপাক্ষিক বৈঠক নিয়ে ফের বিজেপি ধোঁকা দিচ্ছে পাহাড়বাসীকে। এর কোনো সরকারী ঘোষণা নেই। সরকারী লিপিবদ্ধ নেই। স্রেফ ধোঁকা। যা ২০১৭ থেকে দিয়ে আসছে বিজেপি। পাহাড়ের কোথায় পানীয় জলের সমস্যা রয়েছে, তা জানেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, অথচ ত্রিপাক্ষিক বৈঠক নিয়ে নীরব। পালটা তোপ গুরুংপন্থী মোর্চার মুখপাত্র বিনিতা রোকার। তিনি বলেন, ১২ আগস্ট ত্রিপাক্ষিকের দিন ঘোষণার কথা ছিল কেন্দ্রের। আজ ১৬ আগস্ট। এখনও হয়নি। অনীতপন্থী মোর্চার মুখপাত্র কেশবরাজ পোখরেল বলেন, সাংসদ স্রেফ মিথ্যে প্রতিশ্রুতিই দেন। বাস্তবের কোনো মিল নেই। ওরা পাহাড়ের জন্যে কিছুই করেনি, করবেও না। পাশাপাশি দার্জিলিংয়ের বিধায়কের মন্তব্যকে গুরুত্ব দিতে নারাজ দুই মোর্চার নেতারাই।

Published by:Suman Majumder
First published: