নালার উপর দিয়েই চলছে ঝুঁকির পারাপার, সেতু তৈরির দাবিতে অনড় হলদিবাড়ির রাঙ্গাপানি কলোনির বাসিন্দারা

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Apr 16, 2019 12:33 AM IST
নালার উপর দিয়েই চলছে ঝুঁকির পারাপার, সেতু তৈরির দাবিতে অনড় হলদিবাড়ির রাঙ্গাপানি কলোনির বাসিন্দারা
Photo: Siddhartha Sarkar
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Apr 16, 2019 12:33 AM IST

#হলদিবাড়ি: এক একটা ভোট আসে ৷ নিজেদের সমস্যাগুলি নিয়ে সরব হন সাধারণ মানুষ ৷ এই আশায়, যে যদি তাঁদের সমস্যার সমাধান হয় ৷ বেশ কিছু ক্ষেত্রে তা কাজে দিলেও অনেক সময়ই তা হয়ে ওঠে না ৷ যেমন লোকসভা ভোটের আগে বুড়িতিস্তা নদীর বড়ো নালার উপর পাকা সেতু তৈরি হোক, এই দাবিতেই সরব হয়েছেন সেখানকার স্থানীয় বাসিন্দারা  ৷

হলদিবাড়ি ব্লকের রাঙ্গাপানি কলোনির বাসিন্দারা অনেক ঝুঁকি নিয়েই নালা পারাপার করে থাকেন ৷ ছাত্র-ছাত্রীরাও এভাবেই নালা পেরিয়ে প্রতিদিন স্কুলে যায় ৷ কারণ বিকল্প পথ যেটা রয়েছে, সেটা অনেকটাই বেশি পথ অতিক্রম করতে হয় ৷

অন্য পথে যেতে হলে বাসিন্দাদের ভাওলাগঞ্জ হয়ে প্রায় আড়াই কিলোমিটার পথ পায়ে হেঁটে অতিক্রম করতে হয় ৷ সমস্যাটা সবচেয়ে বেশি হয় বর্ষাকালে ৷ কারণ ওইসময় এই ঝুঁকির পারাপার অত্যন্ত সমস্যার এবং ভয়ের কারণ ৷ কাজেই বুড়ি তিস্তার বড়ো নালার উপর সেতু না থাকায় ভালমতোই সমস্যায় পড়েছেন দক্ষিণ বড় হলদিবাড়ি গ্রাম পঞ্চায়েতের অন্তর্গত রাঙ্গাপানি কলোনির বাসিন্দারা ৷ অনেকদিন ধরেই তাঁরা সেতু তৈরির দাবিতে সরব হয়েছেন ৷ সেতু তৈরির জন্য প্রয়োজনীয় অর্থ গ্রাম পঞ্চায়েতের পক্ষে যে দেওয়া সম্ভব নয়, সেটা স্পষ্ট করে দেওয়া হয়েছে ৷ এর জন্য চ্যাংরাবান্ধা উন্নয়ন পর্ষদের কাছে আবেদন করাও হয়েছে ৷

 এদিকে বুড়ি তিস্তার উপরেই মেখলিগঞ্জ পর্যন্ত সাড়ে ৩ কিমি-এর সেতু তৈরির কাজও এখন অনেকটাই সম্পূর্ণ ৷ আর এক বছরের মধ্যেই এই সেতু তৈরি হয়ে যাবে বলে দাবি করা হচ্ছে ৷ তখন মেখলিগঞ্জ পর্যন্ত যাতায়াত আরও সহজ হবে ৷ Photo: Siddhartha Sarkar এদিকে বুড়ি তিস্তার উপরেই মেখলিগঞ্জ পর্যন্ত সাড়ে ৩ কিমি-এর সেতু তৈরির কাজও এখন অনেকটাই সম্পূর্ণ ৷ আর এক বছরের মধ্যেই এই সেতু তৈরি হয়ে যাবে বলে দাবি করা হচ্ছে ৷ তখন মেখলিগঞ্জ পর্যন্ত যাতায়াত আরও সহজ হবে ৷ Photo: Siddhartha Sarkar

রাঙ্গাপানি কলোনিতে প্রায় ৯৬ পরিবারের বাস ৷ তাঁদের প্রত্যেকদিনই এভাবে কষ্ট করে নালা পেরিয়ে যাতায়াত করতে হয় ৷ তাঁদের দ্রুত সমস্যার সমাধান হয় কী না, সেটাই দেখার ৷

First published: 12:20:44 AM Apr 16, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर