পাকিস্তানের হাত থেকে সিয়াচেন ছিনিয়ে নেওয়ার নায়ক নরেন্দ্র কুমার প্রয়াত

পাকিস্তানের হাত থেকে সিয়াচেন ছিনিয়ে নেওয়ার নায়ক নরেন্দ্র কুমার প্রয়াত

প্রয়াত সেনা অফিসার নরেন্দ্র কুমার।

সিয়াচেন ছিনিয়ে নেওয়ার জন্য পাকিস্তানের গোপন প্ল্যান সম্পর্কে অবহিত ছিল না ভারত। নরেন্দ্র কুমার প্রথম সেনা অফিসার হিসেবে পাকিস্তানের গোপন নকশা ধরতে পেরেছিলেন।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: দিল্লির আর্মি হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করলেন নরেন্দ্র কুমার। ভারতীয় সেনাবাহিনীতে তিনি ' বুল ' নামেই বিখ্যাত। নয়াদিল্লিতে ৮৭ বছর বয়সে বার্ধক্যজনিত অসুস্থতায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। তাঁর মৃত্যুর সঙ্গে ভারতীয় সেনার এক গৌরবজনক অধ্যায় কিছুটা শেষ হল। সিয়াচেন হিরো নামেই বিখ্যাত তিনি।আজ থেকে প্রায় ৩৬ বছর আগের কথা। সিয়াচেন হিমবাহ নিয়ে ততটা ভাবনা ছিল না ভারতীয় সেনার। এই সিয়াচেন ছিনিয়ে নেওয়ার জন্য পাকিস্তানের গোপন প্ল্যান সম্পর্কে অবহিত ছিল না ভারত। নরেন্দ্র কুমার প্রথম সেনা অফিসার হিসেবে পাকিস্তানের গোপন নকশা ধরতে পেরেছিলেন।

    পাহাড়ে অভিযান চালানোর জন্য বিখ্যাত ছিলেন তিনি। মাউন্ট এভারেস্ট, কাঞ্চনজঙ্ঘা এমনকি আল্পস পর্বতমালাতেও অভিযান চালিয়েছিলেন তিনি। বিদেশি পর্যটকদের সাহায্য করতেন। এরকমই একটি অভিযানের সময় এক জার্মান পর্বতারোহীর সঙ্গে পরিচয় হয় তাঁর। বছরটা ১৯৮১। ওই জার্মান বন্ধুর কাছে উত্তর কাশ্মীরের ম্যাপ দেখে চমকে গিয়েছিলেন নরেন্দ্র কুমার। ম্যাপে স্পষ্ট ছিল উত্তর কাশ্মীরের যতটা অংশ ভারত নিজেদের বলে মনে করে, তার থেকে বেশি অংশ পাকিস্তানের দখলে। সেনাবাহিনীর কাছে ব্যাপারটা জানানোর পর পরিষ্কার হয় আমেরিকান সাহায্যে পাকিস্তান কারাকোরাম সহ সিয়াচেন এবং আরও কিছু গুরুত্বপূর্ণ পাহাড়চূড়া দখল করতে মরিয়া।

    এরপর থেকে নরেন্দ্র কুমার বহুবার অভিযাত্রীদের নিয়ে ওই পথে পাড়ি দেন। পাকিস্তানি সেনার নজরেও পড়ে যান। কিন্তু টুরিস্ট গাইড বলে প্রতিপক্ষকে ভারতীয় সেনার মতলব ধরতে দেননি। আসলে ওই এলাকায় পাকিস্তান কতটা তৎপর সেই খবর সংগ্রহ করাই ছিল তাঁর কাজ। তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধির সঙ্গে আলোচনার পর সেনাবাহিনী সিয়াচেন ছিনিয়ে নেওয়ার জন্য প্রস্তুত হয়। নরেন্দ্র কুমার, মেজর কুলকার্নির নেতৃত্বে অপারেশন মেঘদুত শুরু করে ভারত। সালতোরো রেঞ্জ দখল করে নেয় ভারত। এই রেঞ্জ থেকে গোটা সিয়াচেন নিজেদের দখলে রাখতে পারে ভারতীয় সেনা। পশ্চিমে পাকিস্তান, পূর্বে চিন।

    পাকিস্তান সিয়াচিন হামলা চালানোর প্রায় মাসখানেক আগেই ভারত দখল নিয়ে নেয় গোটা এলাকার। পুরোটাই সম্ভব হয়েছিল নরেন্দ্র কুমারের তৎপরতা এবং বুদ্ধির জন্য। তাঁর সম্মানে সিয়াচেনে ভারতীয় সেনা কুমার বেস নামক একটি  বেসক্যাম্প স্থাপন করে। কীর্তি চক্র ছাড়াও,পরম বিশিষ্ট সেবা পদক, পদ্মশ্রী, অর্জুন পুরস্কার এবং ম্যাক গ্রেগর পদক জেতার নজির রয়েছে তাঁর। ভারতীয় সেনাবাহিনীতে তিনি কর্নেল হলেও অভিযাত্রী এবং সিয়াচেন হিমবাহের জরিপকারী হিসেবেই বিখ্যাত।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: