Home /News /national /
নির্ভয়া গণধর্ষণ দোষীর মৃত্যুদণ্ড পুনর্বিবেচনার আবেদন, সুপ্রিম কোর্টে শুনানি ১৭ ডিসেম্বর

নির্ভয়া গণধর্ষণ দোষীর মৃত্যুদণ্ড পুনর্বিবেচনার আবেদন, সুপ্রিম কোর্টে শুনানি ১৭ ডিসেম্বর

সূত্রের খবর অনুযায়ী, ১৬ ডিসেম্বর দোষীদের ফাঁসি হতে পারে তিহার জেলে ৷ উত্তরপ্রদেশ থেকে আসছে ফাঁসুড়ে ৷

  • Last Updated :
  • Share this:

#নয়াদিল্লি: মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করার জল্পনার মধ্যেই মৃত্যুদণ্ড পুনর্বিবেচনার আবেদন নিয়ে ফের সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ নির্ভয়া গণধর্ষণ কাণ্ডে দোষী সাব্যস্ত অক্ষয় সিং ঠাকুর ৷ ১৭ ডিসেম্বর তাঁর আর্জি শুনবে শীর্ষ আদালত ৷ সম্প্রতি বিনয় শর্মা রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের কাছে প্রাণ ভিক্ষার আবেদন জানিয়েছিল ৷ কিন্তু তা খারিজের সুপারিশ জানায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক ৷ হায়দরাবাদের ঘটনার পর নির্ভয়ার দোষীদের শীঘ্রই সাজা দেওয়ার বিষয়ে চাপ বাড়ছে ৷জানা গিয়েছে, নির্ভয়া গণধর্ষণ কাণ্ডে দোষী সাব্যস্ত বাকি তিন অভিযুক্তরা মৃত্যুদণ্ড রদ ও পুর্নবিবেচনার আর্জি জানালেও অক্ষয় সিং ঠাকুর এর আগে কোনও পুনর্বিবেচনার আর্জি জানায়নি ৷ বুধবার অ্যাপেক্স কোর্টে পৌঁছয় অক্ষয় সিং ঠাকুরের পিটিশন ৷ অক্ষয়ের আর্জি, ‘মৃত্যুদণ্ড শুধুমাত্র অপরাধীদেরই শেষ করবে, অপরাধকে নয় ৷’অন্যদিকে, নির্ভয়া মামলার ৪ দোষীকে ফাঁসির প্রস্তুতি শুরু হয়ে গিয়েছে ৷ নির্ভয়া মামলায় চার দোষী বর্তমানে তিহার জেলে রেয়েছে ৷ সূত্রের খবর অনুযায়ী, ১৬ ডিসেম্বর দোষীদের ফাঁসি হতে পারে তিহার জেলে ৷ তিহার জেলে ফাঁসুড়ে নেই৷ তাই তিহার জেল কর্তৃপক্ষ ফাঁসুড়ে চেয়ে উত্তরপ্রদেশ ডিজি (কারা)-কে চিঠি পাঠিয়েছে ৷ খবর, মিরাট থেকেই ফাঁসুড়ে যাচ্ছে তিহার জেলে ৷ ইতিমধ্যেই, তিহার জেলের কর্তৃপক্ষ ১০০ কেজি বালি ভরে একটি ডামি তৈরি করে ট্রায়াল দেয় ৷ তিহার জেলের তিন নম্বর সেলে ফাঁসি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে ৷ উত্তরপ্রদেশ, মহারাষ্ট্র ও পশ্চিমবঙ্গ থেকে ফাঁসুড়ে ডাকা হতে পারে ৷তিহার জেলে ফাঁসুড়ে নেই৷ এ দিকে নির্ভয়া গণধর্ষণ ও খুনে দোষীদের ফাঁসির তোড়জোড় শুরু হয়ে গিয়েছে৷ সূত্রের খবর, মিরাট থেকে ফাঁসুড়ে যাবে তিহারে৷ তিহার জেল কর্তৃপক্ষ এ বিষয়ে উত্তরপ্রদেশ ডিজি (কারা)-কে চিঠি পাঠিয়েছে ফাঁসুড়ে চেয়ে৷ মঞ্জুরি এসে গিয়েছে৷ মিরাট থেকেই ফাঁসুড়ে যাচ্ছে তিহার জেলে৷ ফাঁসি হবে নির্ভয়া গণধর্ষণ কাণ্ডে দোষীদের৷ ফাঁসুড়ের নাম পবন৷ অর্থাত্‍ ফাঁসুড়ে পবন ফাঁসি দেবেন নির্ভয়া কাণ্ডের দোষীদের৷নির্ভয়া মামলার ৪ দোষীকে ফাঁসির প্রস্তুতি শুরু হয়ে গিয়েছে ৷ সূত্রের খবর অনুযায়ী, ১৬ ডিসেম্বর দোষীদর ফাঁসি হতে পারে তিহার জেলে ৷ তিহার জেলের প্রশাসন ইতিমধ্যেই ডামি তৈরি করে তার ট্রায়াল দিয়েছে ৷ তবে এখনও পর্যন্ত ফাঁসি দেওয়ার জন্য জেল কর্তৃপক্ষের কাছে কোনও চিঠি আসেনি ৷ নির্ভয়া মামলায় চার দোষী বর্তমানে তিহার জেলে রেয়েছে ৷

সাত বছর আগে, ২০১২ সালের ১৬ ডিসেম্বর রাতে দিল্লিতে মুনিরকা এলাকায় চলন্ত বাসের ভিতরে ২৩ বছর বয়সি প্যারামেডিক্যাল ছাত্রীকে গণধর্ষণ করে ছয় দুষ্কৃতী ৷ গণধর্ষণের পাশাপাশি তার উপর চলে পাশবিক অত্যাচার ৷ লোহার বাঁকানো রড যোনিতে প্রবেশ করিয়ে টেনে বার করে নেওয়া হয় নাড়িভুঁড়ি ৷ মারা যান ওই ছাত্রী। বিচারে দোষী সাব্যস্ত হওয়ার পরে অভিযুক্তদের মধ্যে পাঁচ জনের ফাঁসির আদেশ দেয় আদালত। ছ’জনের মধ্যে একজন নাবালক হওয়ায় সাজা কাটার পর তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে ৷ আরেক দোষী রাম সিং তিহার জেলেই আত্মহত্যা করেন ৷ বাকি ৪ জন বিনয়, মুকেশ, পবন ও অক্ষয় তিহার জেলে বন্দি ৷

Published by:Elina Datta
First published:

Tags: Nirbhaya Case, Nirbhaya Case Convict's Review Plea, Nirbhaya Gang Rape Case, Supreme Court, Tihar jail