বাজেট ২০২১: সীতারমনের ভাষণে বোর হচ্ছেন রাহুল গান্ধী, সোশ্যাল মিডিয়া ছেয়ে গেল মিমে!

বাজেট ২০২১: সীতারমনের ভাষণে বোর হচ্ছেন রাহুল গান্ধী, সোশ্যাল মিডিয়া ছেয়ে গেল মিমে!
প্রকাশ্যে এসেছে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমনের বাজেট ঘোষণা চলার সময়ে তাঁর একটি মাথায় হাত দিয়ে থাকা ছবি। দেখে মনে হচ্ছে, কোনও কারণে দুশ্চিন্তায় আছেন রাহুল। অথবা তিনি বোর হচ্ছেন!

প্রকাশ্যে এসেছে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমনের বাজেট ঘোষণা চলার সময়ে তাঁর একটি মাথায় হাত দিয়ে থাকা ছবি। দেখে মনে হচ্ছে, কোনও কারণে দুশ্চিন্তায় আছেন রাহুল। অথবা তিনি বোর হচ্ছেন!

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: ২০২১ থেকে ২০২২ অর্থবর্ষের বাজেট ঠিক কী রকম হতে চলেছে, তা নিয়ে কৌতূহল ছিল সবারই- তালিকায় বাদ ছিলেন না দেশের অর্থনীতিবিদ থেকে শুরু করে আমজনতাও। একই সঙ্গে নরেন্দ্র মোদি সরকার জন-উন্নয়নের কথা মাথায় রেখে কী কী পরিকল্পনা করছে, তা জানতে কৌতূহলী ছিল সরকারের বিরোধী দলগুলোও। এই প্রসঙ্গে ন্যাশনাল কংগ্রেস এবং তার একদা প্রেসিডেন্ট রাহুল গান্ধী (Rahul Gandhi) বিশেষ করে ছিলেন সংবাদমাধ্যমের নজরে। কেন না, ন্যাশনাল কংগ্রেস এবং শাসকদল ভারতীয় জনতা পার্টির রাজনৈতিক চাপান-উতোরের সম্পর্ক কোনও লুকানো ঘটনা নয়।

বাজেট পেশের প্রাক্কালে একটি ট্যুইট করে রাহুল জানিয়েছিলেন যে এ বারের বাজেটে সরকারের ক্ষুদ্র এবং মাঝারি শিল্প, কৃষিক্ষেত্র এবং দেশের অন্য সব ক্ষেত্রেই কর্মসংস্থান বৃদ্ধির পরিকল্পনা করা উচিৎ। পাশাপাশি, স্বাস্থ্য এবং প্রতিরক্ষা খাতেও যে পাবলিক এক্সপেন্ডিচারের পরিমাণ বাড়ানো দরকার, সে কথাও উঠে এসেছিল তাঁর ট্যুইটে। একে প্রকারান্তরে বিরোধী দলের দাবি বলে ঘোষণা করাই যায়। দেখা গিয়েছে, এই দাবিগুলো অনেকাংশেই ছুঁয়ে গিয়েছে চলতি বছরের বাজেট।

কিন্তু সোশ্যাল মিডিয়ায় হামেশাই বিদ্রুপের মুখে পড়তে হয় রাহুলকে। এক দিকে যখন সরকারের বাজেট ঘোষণা এবং সেই সম্পর্কে মধ্যবিত্তের প্রতিক্রিয়া নিয়েও একাধিক মিমে ছেয়ে গিয়েছে ট্যুইটার (Twitter), দেখা গেল ঠিক তেমনটা হল রাহুলকে নিয়েও। কেন না, প্রকাশ্যে এসেছে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমনের (Nirmala Sitharaman) বাজেট ঘোষণা চলার সময়ে তাঁর একটি মাথায় হাত দিয়ে থাকা ছবি। দেখে মনে হচ্ছে, কোনও কারণে দুশ্চিন্তায় আছেন রাহুল। অথবা তিনি বোর হচ্ছেন!

আর এরই পরিণামে দেখতে দেখতে সোশ্যাল মিডিয়ায় শুরু হয়ে গেল সৌজন্যবিহীন রসিকতা! অনেকে বলতে থাকলেন- এ যেন ঠিক কলেজের ক্লাস চলার সময়ে ছাত্রদের বোর হওয়ার ঘটনা। অনেক ট্যুইটারেতির দাবি- রাহুল এক ফাঁকে একটা ঘুম দিয়ে নিতে চাইছেন। অনেকের বক্তব্য- তাঁর কোথাও যাওয়ার তাড়া রয়েছে আর সেই জন্যই মনে মনে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রীকে অভিসম্পাত করছেন তিনি! অনেকে আবার এটাও উল্লেখ করতে ভোলেননি যে কী ভাবে সরকারের বিরোধিতা করা যায় এবার, সেই কথাটাই ভালো করে গুছিয়ে নিচ্ছেন তিনি!

Published by:Simli Raha
First published: