• হোম
  • »
  • খবর
  • »
  • দেশ
  • »
  • NEWLY WED BRIDE THRASHES GROOM WITH IRON ROD ON FIRST NIGHT OF WEDDING RUNS AWAY WITH CASH AND JEWELLERY WORTH LAKHS RM

কী কাণ্ড! ফুলশয্যার রাতেই বরকে পিটিয়ে টাকা আর গয়না নিয়ে চম্পট দিল নতুন বৌ

কী কাণ্ড! ফুলশয্যার রাতেই বরকে পিটিয়ে টাকা আর গয়না নিয়ে চম্পট দিল নতুন বৌ

বিয়ের পর একসঙ্গে প্রথম রাত... কোথায় সেদিন ভালবাসায় মাখোমাখো হয়ে থাকবেন কপোত-কপোতি, তা না, ফুলশয্যার রাতেই বরকে লোহার রড দিয়ে আগাপাস্তালা পিটিয়ে গয়না আর টাকা নিয়ে চম্পট দিল সদ্যবিবাহিতা!

বিয়ের পর একসঙ্গে প্রথম রাত... কোথায় সেদিন ভালবাসায় মাখোমাখো হয়ে থাকবেন কপোত-কপোতি, তা না, ফুলশয্যার রাতেই বরকে লোহার রড দিয়ে আগাপাস্তালা পিটিয়ে গয়না আর টাকা নিয়ে চম্পট দিল সদ্যবিবাহিতা!

  • Share this:

    #বিজনৌর: কাণ্ড শুনে চোখ কপালে নেটিজেনদের! বিয়ের পর একসঙ্গে প্রথম রাত... কোথায় সেদিন ভালবাসায় মাখোমাখো হয়ে থাকবেন কপোত-কপোতি, তা না, ফুলশয্যার রাতেই বরকে লোহার রড দিয়ে আগাপাস্তালা পিটিয়ে গয়না আর টাকা নিয়ে চম্পট দিল সদ্যবিবাহিতা!

    যোগী আদিত্যনাথের রাজ্য উত্তরপ্রদেশের বিজনৌরের এই ঘটনা এখন মুখে মুখে ফিরছে! জানা গিয়েছে পাত্রী হরিদ্বার আর 'বেচারা' পাত্র বিজনৌরের কুন্দ্রা খুরদ গ্রামের বাসিন্দা। তাঁদের আলাপের নেপথ্যে ছিলেন একজন 'ম্যাচমেকার' যুবক! তাঁর কথাতেই বিয়েতে রাজি হন পাত্র! মন্দিরে গিয়ে বিয়েও সেরে ফেলেন! সদ্য বিবাহিতা স্ত্রীকে নিয়ে গ্রামে ফিরতে সবাই তো বেজায় খুশি! পরিবার তো আনন্দে আটখান, ছেলে এতদিনে সংসারি হল বলে কথা! কিন্তু রাত পেরতে না পেরতেই সব আশায় ঠাণ্ডা জল! বিয়ের পর প্রথম রাতেই বরকে বেধরক পিটিয়ে ২০ হাজার নগদ টাকা আর ২ লাখ টাকার গয়না নিয়ে পালাল নতুন বৌ! আপাতত স্থানীয় একটি হসাপাতালে পাত্রের চিকিৎসা চলছে!

    থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে পাত্রের পরিবার! ম্যাচমেকার যুবকের খোঁজ চলছে! পাত্রের অভিযোগ, মহিলা ডাকাতি করতেই তাঁকে বিয়ে করেছিল। তাঁর ভাষায়, '' আমি তো এখনও বুঝতে পারছি না, কী হল? কী করে হল? আচমকা দেখি আমায় স্ত্রী পিটতে শুরু করল! আমি জ্ঞান হারিয়ে ফেলি। জ্ঞান ফিরতে জানতে পারলাম বৌ গয়না আর টাকা নিয়ে পালিয়েছে।'' অন্যদিকে একইরকম আরেকটা ঘটনা সামনে এসেছে বিজনৌরেরই শাহজানপুর গ্রামে। সেখানে বিয়ের ৫ ঘণ্টার মধ্যেই টাকা-গয়না নিয়ে পালায় সদ্যবিবাহিতা।

    Published by:Rukmini Mazumder
    First published: