রেল দুর্ঘটনা রুখতে IIT-র পড়ুয়ারা তৈরি করলেন রোবট

এছাড়াও, অনলাইনে টিকিট বুক করলে প্রবীণ যাত্রীদের ১০০ ও ৫০% ছাড়ের অপশন দেওয়া হয়ে থাকে । (ছবি: সংগৃহীত)

রেল ট্র্যাকে সামান্য ফাটল ! তা থেকেই হতে পারে ভয়াবহ দুর্ঘটনা ৷ লাইন বিচ্যুতির ফলেই ঘটে থাকে বেশিরভাগ রেল দুর্ঘটনা ৷

  • Share this:

    #চেন্নাই: রেল ট্র্যাকে সামান্য ফাটল ! তা থেকেই হতে পারে ভয়াবহ দুর্ঘটনা ৷ লাইন বিচ্যুতির ফলেই ঘটে থাকে বেশিরভাগ রেল দুর্ঘটনা ৷ সেই কারণে এবার রেল দুর্ঘটনা রুখতে অভিনব উদ্যোগ নিল আইআইটি মাদ্রাসের পড়ুয়ারা ৷

    আরও পড়ুন: পুলওয়ামা থেকে অপহৃত সেনার গুলিবিদ্ধ দেহ উদ্ধার

    বিল্ডিং, সেতু এবং রেল ট্র্যাক তৈরি করেই শুধু দায় এড়িয়ে যেতে পারেন না সিভিল ইঞ্জিনিয়াররা ৷ এই সমস্ত বিল্ডিংগুলির নির্মাণের পর রক্ষণাবেক্ষণেরও প্রয়োজন হয় ৷ সেই কারণে ভারতীয় রেলের তরফ থেকে রাখা হয়েছে বিশেষ গ্যাং ম্যান ৷ যারা রেলের সামান্য ত্রুটি বিচ্যুতি পরীক্ষা নিরীক্ষা করে দেখেন ৷ পরিসংখ্যান বলছে, রেলের ত্রুটি বিচ্যুতি পরীক্ষা করতে গিয়ে প্রতি বছর প্রায় কমবেশী ৪০০ জন গ্যাং ম্যান রেলট্র্যাক পরীক্ষা করতে গিয়ে দুর্ঘটনায় নিহত হন ৷ তাই গ্যাং ম্যানদের মৃত্যু রুখতে ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউটের অফ টেকনলজির পড়ুয়ারা এই নয়া রোবট তৈরি করেছেন ৷ যা রেলওয়ে ট্র্যাকে পরীক্ষা করবে ৷ যদি ২সেমি-ও কোনও ফাটল থাকে রেল ট্র্যাকে ৷ তাহলে সেই ফাটলও শনাক্ত করতে পারবে পড়ুয়াদের তৈরি এই রোবট ৷

    Source: COI IIT-M Source: COI IIT-M

    এই বিশেষ রোবটটি ১.৫ফুট লম্বা ৷ এছাড়াও রোবটটির রয়েছে ছ’টি চাকা ৷ রোবটটি প্রতি সেকেন্ডে ১ মিটার ছুটবে এবং রেল ট্র্যাকের উপর দিয়ে প্রয়োজনে কখনও এগোবে আবার কখনও পিছবে ৷ এই রোবটটির মধ্যে রয়েছে বিশেষ সেন্সর ৷ যা রেল ট্র্যাকের ভিতর থেকে সমস্ত ডেটা নিয়ে মাইক্রোকন্ট্রোলার(মাইক্রোচিপ)-এ পাঠাবে ৷ কারণ এই ডিভাইসটির ভিতরেই রয়েছে একটি জিপিএস মডিউল এবং জিএসএম ৷ সেখান থেকেই সরাসরি রেলট্র্যাক ফাটল সংক্রান্ত সমস্ত তথ্য চলে যাবে মাইক্রোকন্ট্রোলাপরে ৷ এরপর রেল কর্মীরা মাইক্রোকন্ট্রলারে থাকা চিপ থেকেই জানতে পারবেন রেল লাইনের ভিতরে কোথায় ফাটল রয়েছে ৷ আর এই সম্পূর্ণ প্রক্রিয়াটিই হবে স্বয়ংক্রিয়ভাবে ৷

    উল্লেখ্য, এই রোবটটিকে আলাদা করে চার্জ দেওয়ার প্রয়োজন নেই ৷ কারণ এই রোবটটির সঙ্গেই যুক্ত রয়েছে সোলার প্যানেল ৷ তাই আলাদা করে ব্যাটারি কিংবা বিদ্যুৎ সংযোগের কোনও প্রয়োজন নেই ৷

    First published: