• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • Sarada Scam: সারদাকাণ্ডে কুণাল ঘোষ ও শতাব্দী রায়ের সম্পত্তি 'অ্যাটাচ'?

Sarada Scam: সারদাকাণ্ডে কুণাল ঘোষ ও শতাব্দী রায়ের সম্পত্তি 'অ্যাটাচ'?

কুণাল ঘোষ ও শতাব্দী রায়।

কুণাল ঘোষ ও শতাব্দী রায়।

ইডি-র ট্যুইটে জানানো হয়েছে, কুণাল ঘোষের প্রায় ৩ কোটি টাকার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। যদিও ভোটের মরসুমেই কুণাল সারদা থেকে পাওয়া অর্থ ফিরিয়ে দিয়েছিলেন।

  • Share this:

    #কলকাতা: সামনেই রাজ্যে তৃতীয় দফার বিধানসভা নির্বাচন। তার আগে সারদাকাণ্ডে চাঞ্চল্যকর মোড়। সূত্রের খবর, শনিবার এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ED) তৃণমূেলর প্রাক্তন রাজ্যসভার সাংসদ কুণাল ঘোষ এবং তৃণমূলের লোকসভার সাংসদ শতাব্দী রায়ের সম্পত্তি অ্যাটাচ করেছে। কুণাল ঘোষ সারদা গ্রুপের মিডিয়া বিভাগের সিইও ছিলেন। অন্যদিকে, শতাব্দী রায় সারদা গ্রুপের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর ছিলেন। একইসঙ্গে সারদা গ্রুপের ডিরেক্টর দেবযানী মুখোপাধ্যায়েরও সম্পত্তি অ্যাটাচ করা হয়েছে।

    শনিবার ইডি-র তরফে ট্যুইট করে সম্পত্তি অ্যাটাচ করার কথা জানানো হয়। ইডি-র ট্যুইটে জানানো হয়েছে, কুণাল ঘোষের প্রায় ৩ কোটি টাকার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। যদিও ভোটের মরসুমেই কুণাল সারদা থেকে পাওয়া অর্থ ফিরিয়ে দিয়েছিলেন। তবে শতাব্দীর কত পরিমাণ সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে তা জানানো হয়নি। কুণাল ঘোষ নিজে এই সম্পত্তি অ্যাটাচ করার খবর নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছেন। তাঁর দাবি, 'আগেই সম্পত্তি ফিরিয়ে দিয়েছি। যে সমস্ত টাকাতে ট্যাক্স দেওয়া হয়েছে তাও ফিরিয়ে দেওয়া হয়েছে। নতুন করে কী ভাবে সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করবে?'

    নির্বাচনী পর্ব চলাকালীন বাংলায় চিটফান্ড নিয়ে ফের তৎপর কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা সিবিআই এবং ইডি। সারদা, নারদা-সহ একাধিক মামলায় প্রভাবশালীদের জেরা করেছেন কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার প্রতিনিধিরা। সারদাকাণ্ডে গত কয়েকদিন একাধিক প্রভাবশালীকে জেরা করেছেন গোয়েন্দারা। কিছু নির্দিষ্ট তথ্যের ভিত্তিতে চলছে জিজ্ঞাসাবাদ। কয়েকদিন আগে সারদা মামলায় কুণাল ঘোষকে জেরা করা হয়। বিধানসভা নির্বাচনে কামারহাটি কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী মদন মিত্রকেও জেরা করা হয়।

    সারদাকাণ্ডের তদন্তে নেমে একাধিক প্রভাবশালীকে জেরা করেছে সিবিআইও। এবার অন্যান্য চিটফান্ডেও তদন্তের গতি বাড়তে চায় সিবিআই। আর সেই কারনে আইকোর মামলার তদন্তে মানস ভুঁইয়াকে তলব করে সিবিআই। রাজ্যের একগুচ্ছ চিটফান্ড কাণ্ডের তদন্ত করছে সিবিআই। যার মধ্যে রয়েছে আইকোর। একেবারে বেআইনিভাবে টাকা তোলার অভিযোগ রয়েছে দেই সংস্থার বিরুদ্ধেও। এই সংস্থার বিরুদ্ধে তদন্তে নেমে বিদায়ী বিধায়কের বেশ কয়েকটি ভিডিও পান তদন্তকারী আধিকারিকরা। যেখানে মানস ভুঁইয়াকে এই চিটফান্ড কাণ্ডের সপক্ষে কথা বলতে দেখা যাচ্ছে।

    তথ্যসূত্র: অনুপ চক্রবর্তী।

    Published by:Raima Chakraborty
    First published: