CAA নিয়ে কিছু বলতে পারব না, এটা ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়: ডোনাল্ড ট্রাম্প

CAA নিয়ে কিছু বলতে পারব না, এটা ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়: ডোনাল্ড ট্রাম্প

ট্রাম্প বলেন, ‘আপনারা বিতর্ক চাইছেন কিন্তু আমি এই নিয়ে কোনও মন্তব্য করব না ৷

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: CAA নিয়ে সরাসরি উত্তর এড়ালেন ট্রাম্প ৷ প্রত্যাশা মতোই CAA নিয়ে প্রশ্নের মুখে পড়লেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। তবে CAA প্রসঙ্গ এড়িয়েই নরেন্দ্র মোদিকে স্বস্তি দিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। ভারতে ধর্মীয় বহুত্ববাদ নিয়েও উচ্ছ্বসিত মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

সফরের আগে থেকেই কি হয় কি হয় অবস্থা। এমনকি মার্কিন প্রেসিডেন্ট ভারতে রওনা হওয়ার আগেই চাপ বাড়ায় হোয়াইট হাউস। বার্তা আসে, ভারতে গিয়ে CAA নিয়ে নরেন্দ্র মোদির কাছে জানতে চাইবেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। এমনকি এনিয়ে মন্তব্যও করবেন। দু-দিনের ভারত সফরের একেবারে শেষ লগ্নে CAA প্রসঙ্গ এল। সাংবাদিক সম্মেলনে ট্রাম্পকে প্রশ্ন ছুঁড়লেন মার্কিন সাংবাদিক। মার্কিন প্রেসিডেন্ট কিন্তু বাউন্সার সামলালেন দক্ষ ব্যাটসম্যানের মতোই। বলেন, ‘আপনারা বিতর্ক চাইছেন কিন্তু আমি এই নিয়ে কোনও মন্তব্য করব না ৷ মন্তব্য করলেই তাতে বিতর্ক তৈরি হবে ৷ আমি মন্তব্য করলে আপনি এই সফর নিয়ে কোনও কথাই বলবেন না শুধু মন্তব্য নিয়েই কথা হবে ৷’
CAA নিয়ে প্রশ্ন। অথচ উত্তর দিতে গিয়ে CAA-র প্রসঙ্গই তুললেন না মার্কিন প্রেসিডেন্ট। ধর্মীয় বৈচিত্র্যের কথাই তুলে ধরলেন বারবার। বিল ক্লিন্টন থেকে বারাক ওবামা - প্রাক্তন মার্কিন প্রেসিডেন্টদের ভারত সফরেও একই কথা শোনা গিয়েছে।  বলেন, ‘কয়েকটি ব্যক্তিগত হিংসার কথা শুনেছি ৷ সেটা ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয় ৷ হিংসা নিয়ে মোদির সঙ্গে কথা হয়নি ৷ মোদির সঙ্গে ধর্মীয় স্বাধীনতা নিয়ে কথা হয়েছে ৷ মোদি ধর্মীয় স্বাধীনতায় বিশ্বাস করেন ৷ আমেরিকাও ধর্মীয় স্বাধীনতায় বিশ্বাসী ৷ ধর্মীয় স্বাধীনতার পক্ষে মোদি ভাল কাজ করছেন ৷’ CAA নিয়ে সংখ্যালঘুদের ওপর নির্যাতনের নিয়েও প্রশ্ন। তথ্য-পরিসংখ্যান হাতিয়ার করলেন ট্রাম্প। যেন পালটা প্রশ্ন করলেন, অভিযোগ তো উঠছে, কিন্তু সত্যিই কী তাই ঘটছে? মার্কিন প্রেসিডেন্টের দাবি, আগে এখানে ১৪ কোটি মুসলিম ছিল, এখন ২০ কোটি হয়েছে ৷ আগে বেশ কয়েকবার কাশ্মীরে মধ্যস্থতার প্রস্তাব দিয়ে কেন্দ্রকে বিড়ম্বনায় ফেলেছেন। আগেও বলেছিলেন, দু-পক্ষ চাইলে, তবেই মধ্যস্থতা করতে তিনি তৈরি। মঙ্গলবারও সেটাই আরও একবার শোনা গেল।  কাশ্মীর ভারত-পাকিস্তানের আভ্যন্তরীণ বিষয়। তাই যেন  আরও একবার জানিয়ে দিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ৷ ট্রাম্পের বক্তব্য, সন্ত্রাস নিয়ে পাকিস্তানের সঙ্গে কথা হয়েছে, হবে৷ পাকিস্তান সন্ত্রাস রোধে ভাল কাজ করছে ৷ দু’দেশ চাইলে কাশ্মীর নিয়ে মধ্যস্থতা করব ৷ CAA, কাশ্মীর ও সংখ্যালঘু সমস্যা -- তিনটি ইস্যুর যে কোনও একটিতে ট্রাম্প সরব হলেই অস্বস্তি বাড়ত নরেন্দ্র মোদির। সেই পরিস্থিতি তৈরিই হতে দিলেন না ডোনাল্ড ট্রাম্প।
First published: February 25, 2020, 10:07 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर