Assam: 'মাস্ক পরলে বিউটি পার্লার চলবে কী করে'! বিতর্কিত মন্তব্য হিমন্ত বিশ্বশর্মার

Assam: 'মাস্ক পরলে বিউটি পার্লার চলবে কী করে'! বিতর্কিত মন্তব্য হিমন্ত বিশ্বশর্মার

স্বাস্থ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মার এমন মন্তব্য অসমকে আরও বিপদে ফেলবে না তো!

স্বাস্থ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মার এমন মন্তব্য অসমকে আরও বিপদে ফেলবে না তো!

  • Share this:

    #গুয়াহাটি:

    তিনি একটি রাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রী। তিনিই যদি এমন কথা বলেন তা হলে তো বিতর্ক হবেই। এমনিতেই সারা দেশে আবার করোনার উত্পাত্ বেড়েছে। মারণ ভাইরাসর দ্বিতীয় ঢেউ সামলাতে হিমশিম খাচ্ছে মহারাষ্ট্র, মধ্যপ্রদেশ, পাঞ্জাবের মতো রাজ্যগুলির প্রশাসন। তার মধ্যে অসমের স্বাস্থ্যমন্ত্রী হিমন্তি বিশ্বশর্মা রাজ্যের মানুষকে বকলমে মাস্ক না পরার পরামর্শ দিয়ে বসলেন। গত ২৪ ঘণ্টায় সারা দেশে এক লাখের বেশি নতুন করোনা সংক্রণমের খোঁজ পাওয়া গিয়েছে। এমন সময় মাস্ক পরা, করোনা বিধি মেনে চলা ছাড়া আর কোনও উপায় নেই বলে জানাচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। কিন্তু হিমন্ত বিশ্ব শর্মা বললেন উল্টো কথা। তিনি দাবি করেছেন, অসম থেকে করোনা বিদায় নিয়েছে। তাই মাস্ক পরার আর কোনও দরকার নেই।

    কেন এমন দাবি করলেন হিমন্ত! তিনি এদিন বলেছেন, অসম থেকে করোনা চলে গিয়েছে। এখন আর মাস্ক পরার দরকার নেই। আবার মাস্ক পরার প্রয়োজন হলে আমি আপনাদের জানাব। মাস্ক পরলে বিউটি পার্লার চলবে কী করে! বিউটি পার্লার ব্যবসাও তো বাঁচাতে হবে নাকি! স্বাভাবিকভাবেই রাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রীর এমন দাবির পর বিরোধীরা সরব হয়েছে। হিমন্ত বিশ্ব শর্মার সেই মন্তব্য সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। অসমের স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে এমন মন্তব্য করার জন্য অনেকেই দায়িত্বজ্ঞানহীন বলছেন। কেউ কেউ তো আবার তাঁকে নিয়ে ঠাট্টাও করছেন।

    পাঁচ রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচন। নির্বাচনী প্রচারে নেতা-মন্ত্রীদের সঙ্গে হাজার হাজার কর্মী-সমর্থকদের দেখা যাচ্ছে। তাঁদের মধ্যে অনেকেই মাস্ক পরছেন না। জনসভাগুলিতে কোভিড বিধির দফারফা হচ্ছে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, নির্বাচন মিটলেই দেশে করোনা পরিস্থিতির আরও অবনতি হবে। অসমেও নির্বাচনী প্রচারে বহু মানুষ গায়ে গা লাগিয়ে ভিড় করছেন। সেখানেও মাস্ক পরা বা করোনা বিধি মানার বালাই নেই। তার উপর এবার রাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রী মাস্ক না পরার নিদান দিয়েছেন। ফলে এবার তো আর অসমে মাস্ক না পরলে জরিমানাও হবে না। স্বাস্থ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মার এমন মন্তব্য অসমকে আরও বিপদে ফেলবে না তো!

    Published by:Suman Majumder
    First published: