Home /News /national /
Amazon: জাতীয় পতাকা জামায়, মাস্কে! অবমাননার অভিযোগে 'বয়কট অ্যামাজন' ট্রেন্ডিং ট্যুইটারে

Amazon: জাতীয় পতাকা জামায়, মাস্কে! অবমাননার অভিযোগে 'বয়কট অ্যামাজন' ট্রেন্ডিং ট্যুইটারে

ট্যুইটার থেকে পাওয়া ছবি। অ্য়ামাজন বয়কটের ডাক ট্যুইটারে।

ট্যুইটার থেকে পাওয়া ছবি। অ্য়ামাজন বয়কটের ডাক ট্যুইটারে।

Amazon: ভারতের জাতীয় পতাকা আইন (২০০২) অনুসারে পতাকার কোনও অংশ কোনও উর্দি বা পোশাকে ব্যবহার করা যায় না। কোনও বাক্স, কুশন, রুমাল, ন্যাপকিনেও এটি ছাপানো দণ্ডনীয় অপরাধ।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: সাধারণতন্ত্র দিবসের প্রাক্কালে ভারতের জাতীয় পতাকার অবমাননার অভিযোগে অ্যামাজন (Amazon Boycott) বয়কটের ডাক উঠল ট্যুইটারে। ভারতের জাতীয় পতাকার তিনটি রঙ পতাকার ক্রমে ব্যবহার করা বা প্রতীক ব্যবহার করার বিষয়ে নির্দিষ্ট কয়েকটি নিয়ম মানতে হয়। এ ভাবে কখনও জাতীর গর্ব পতাকার রঙ বা প্রতীক ব্যবহার করে জামা, মাস্ক, বা চকোলেটের প্যাকিং তৈরি করা যায় না। এমন কী পতাকার নির্দিষ্ট আকার, রঙের বিন্যাস, ইত্যাদি কিছুই ওভাবে বদলে জামাকাপড়ে ব্যবহার করা সংবিধান বিরুদ্ধে। তা সত্ত্বেও এই বহুজাতিক সংস্থা ভারতের জাতীয় পতাকার এক কথায় অবমাননার প্রচার করছে নিজেদের ই-কমার্স সাইটে (Amazon Boycott)। জাতীয় পতাকা (National Flag Of india) ব্যবহার করা হচ্ছে চকোলেটের প্যাকেজিংয়ে, জামায়, মাস্কে, যা জাতীয় পতাকার অপমান। সেই কথাই উঠে এসেছে নেটিজেনদের কথায়। ট্যুইটারে ট্রেন্ড করছে #Amazon_Insults_National_Flag।

    ভারতের জাতীয় পতাকা আইন (২০০২) অনুসারে পতাকার কোনও অংশ কোনও উর্দি বা পোশাকে ব্যবহার করা যায় না। কোনও বাক্স, কুশন, রুমাল, ন্যাপকিনেও এটি ছাপানো দণ্ডনীয় অপরাধ। যদিও এটা স্পষ্ট নয়, তেরঙার ব্যবহার ঠিক কী ভাবে করলে তা শাস্তির আওতায় পড়ে, বা পড়ে না। এ নিয়ে যথেষ্ট ঝামেলার মধ্যে পড়তে হয়েছে অ্যামাজনকে। অনেকেই লঘু পথে বিক্রি বাড়ানোর কৌশল বলে আক্রমণ করেছেন অ্যামাজনকে।

    আরও পড়ুন: ফ্রডের হাত থেকে বাঁচতে অবশ্যই চেক করে নিন আধার কার্ডের হিস্ট্রি.....

    তবে ছবির মধ্যে সবকটিই অ্যামাজনে (Amazon Boycott) পাওয়া গিয়েছে এমন নয়। তবে পাওয়া গিয়েছ বেশ কয়েকটি মাস্ক, জামার ছবি, যেগুলিতে আইনের বাইরে গিয়ে তেরঙা ব্যবহার করা হয়েছে। বেশিরভাগই ভারতের একটি ক্রীড়া সামগ্রী বিক্রয়কারী সংস্থার তৈরি। ট্যুইটারে অবশ্য অনেকেই অনেক ছবি পোস্ট করছেন, তবে সেগুলি সবকটি অ্যামাজনের নয়। আবার অনেকগুলি দ্রব্যই অ্যামাজনে বিক্রি হচ্ছে।

    আরও পড়ুন: কোন ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের সঙ্গে লিঙ্ক রয়েছে আপনার Aadhaar Card ? এই ভাবে জেনে নিন...

    ২০১৯ সালে অ্যামাজনের বিরুদ্ধে একটি অভিযোগ ওঠে। সেখানে বলা হয়ে হিন্দু দেবদেবীর ছবি ব্যবহার করে পাপোশ-সহ একাধিক জিনিস বিক্রি করছে অ্যামাজন। তাই নিয়ে তুমুল বিতর্ক তৈরি হয়। তখনও এমনই এক বয়কট প্রচার শুরু হয়েছিল। ২০১৭ সালেও এমন বিতর্ক তৈরি হয়েছিল। তখন একটি পাপোশে পাওয়া গিয়েছিল ভারতীয় পতাকার ছবি। এর পর সংস্থার প্রাক্তন সিইও জেফ ব্যাজোস বলেছিলেন, কোনও দেশ বা সংস্থাকে আঘাত করে এমন বিষয়ে জড়িয়ে থাকা সমস্ত প্রোডাক্ট তালিকা থেকে বাদ দেবে সংস্থা।

    Published by:Uddalak B
    First published:

    Tags: Amazon, Twitter

    পরবর্তী খবর