মেডিক্যাল কলেজে কাটল জট, অনশন প্রত্যাহার পড়ুয়াদের

মেডিক্যাল কলেজে জট কাটল, অনশন প্রত্যাহার পড়ুয়াদের

News18 Bangla
Updated:Jul 23, 2018 05:54 PM IST
মেডিক্যাল কলেজে কাটল জট, অনশন প্রত্যাহার পড়ুয়াদের
নিজস্ব চিত্র
News18 Bangla
Updated:Jul 23, 2018 05:54 PM IST

#কলকাতা: অবশেষে মিলল রফাসূত্র ৷ ১৪ দিন পর অনশন প্রত্যাহার পড়ুয়াদের ৷ কর্তৃপক্ষ ছাত্রদের দাবি মানায় উঠল অনশন ৷ মেডিক্যালের নয়া বিল্ডিংয়ে হবে হস্টেল ৷ কাউন্সিল বৈঠকে সর্বসম্মত সিদ্ধান্ত ৷ ছাত্রদের দাবি মেনে লিখিত সিদ্ধান্ত পড়ে শোনালেন মেডিক্যাল কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ অশোক ভদ্র ৷

আন্দোলনরত পড়ুয়াদের দাবি মেনে কার্যত নজিরবিহীন সিদ্ধান্ত মেডিক্যাল কলেজ কর্তৃ়পক্ষের। মেডিক্যাল কাউন্সিলের নির্দেশিকা ও পড়ুয়াদের টানা অনশন - দুইয়ের মধ্যে সামঞ্জস্য রেখেই সিদ্ধান্ত। নতুন বিল্ডিং এর হোস্টেলের দুটি তলা বরাদ্দ হল সিনিয়র পড়ুয়াদের জন্য। আন্দোলনকারীদের মূল দাবি মানাতেই শেষ হল ৩৩৬ ঘণ্টার অনশন।

মেডিক্যাল কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ অশোক ভদ্র এদিন ঘোষণা করেন, প্রতি বর্ষের পড়ুয়াদের জন্য ছাড়া হবে দুটি করে তলা ৷ কাউন্সেলিংয়ের মাধ্যমে তা ছাত্রদের দেওয়া হবে ৷ মেডিক্যাল কলেজের নতুন বিল্ডিংয়ের সব বর্ষের পড়ুয়াদের জন্য থাকবে আলাদা আলাদা ব্যবস্থা ৷ দশ তলা বিল্ডিং এর দুটি তলা সাময়িকভাবে বর্তমান পড়ুয়াদের জন্য বরাদ্দ করা হবে। কাউন্সেলিং করে ও লিখিত অঙ্গীকারের ভিত্তিতেই হস্টেলে জায়গা বরাদ্দ হবে। পড়ুয়াদের দাবি মেনে হস্টেল সংস্কারের কাজও শুরু হচ্ছে। নতুন হস্টেলের কাজ শেষ হলে সেই সমস্যাও মিটে যাবে।  এরপরই নতুন হস্টেল নিয়ে তালিকা প্রকাশ করে কর্তৃপক্ষ ৷ তালিকা দেখার পরই অনশন প্রত্যাহার করেন পড়ুয়ারা ৷

আরও পড়ুন

মেডিক্যাল কলেজ ইস্যু নিয়ে উত্তাল বিধানসভা, বাম ও কংগ্রেস বিধায়কদের ওয়াক আউট

Loading...

১৪ দিন ধরে হস্টেলের দাবিতে আমরণ অনশনে বসেছিলেন মেডিক্যালের ২১ জন পড়ুয়া ৷ ৩৩৬ ঘণ্টা অনশনের পরে অসুস্থ হয়ে পড়েন ৫ জন অনশনকারী ছাত্র ৷ অবশেষে পরিস্থিতির আরও অবনতির আগেই ছাত্রদের দাবিকে মান্যতা কলেজ কর্তৃপক্ষের ৷ মিটল মেডিক্যাল কলেজ হস্টেস সমস্যা ৷ ১৪ দিন ধরে সমস্যা না মেটার পিছনে ছিল এমসিআইয়ের নির্দেশিকা। যেখানে বলা হয়, প্রথম বর্ষের পড়ুয়াদের আলাদা রাখতে হবে। কিন্তু আলোচনা করে রাস্তা বের হয় কাউন্সিলের বৈঠকে।

First published: 01:55:43 PM Jul 23, 2018
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर