লাইফস্টাইল

corona virus btn
corona virus btn
Loading

Yearender 2020: বছর মাতিয়েছে Twitter-এর সেরা পাঁচটি ফিচার, খেয়াল আছে তো?

Yearender 2020: বছর মাতিয়েছে Twitter-এর সেরা পাঁচটি ফিচার, খেয়াল আছে তো?
  • Share this:

#নয়াদিল্লি :  সময় ও পরিস্থিতির সঙ্গে তাল মিলিয়ে নতুন রূপে সেজে উঠেছে ট্যুইটার (Twitter)। মানুষজনের কাছে আরও সহজ হয়ে উঠেছে এই মাইক্রোব্লগিং সাইট। করোনা পরিস্থিতি-সহ নানা ঘটনায় আলাপ-আলোচনার অন্যতম মাধ্যম হয়ে উঠেছে এটি। আমেরিকার প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের সময়ও এই সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে চলেছে ভার্চুয়াল লড়াই। আর এই সমস্ত পরিস্থিতিতে আরও বেশি সংখ্যক মানুষের কাছে পৌঁছাতে Voice Tweets, Twitter Fleets থেকে শুরু করে একের পর এক ফিচার এসেছে। এর জেরে বেড়েছে ট্যুইট ব্যবহারকারীর সংখ্যাও। সংশ্লিষ্ট সংস্থার তরফ জানা গিয়েছে, বার্ষিক পরিসংখ্যানের ভিত্তিতে ট্যুইটারের গ্লোবাল ইউজার বেড়েছে ২৯ শতাংশ। অর্থাৎ বর্তমানে ব্যবহারকারীর সংখ্যা গিয়ে দাঁড়িয়েছে ১৮৭ মিলিয়নে। আর এ ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিয়েছে ট্যুইটারের নতুন ফিচারগুলি। আসুন, এ বার বছর-মাতানো Twitter-এর সেরা সেই পাঁচটি ফিচার সম্পর্কে বিশদে জেনে নেওয়া যাক।

ভয়েস ট্যুইটস (Voice tweets)

জুন মাসে আসে এই ফিচারটি। এক্ষেত্রে ট্যুইট ব্যবহারকারীরা একটি ওয়েভলেন্থ (wavelength) আইকনের সাহায্যে তাঁদের ভয়েসের মাধ্যমে ট্যুইট করতে পারেন। তবে বর্তমানে বিশেষ কিছু এলাকায় iOS ব্যবহারকারীরাই এই ফিচারের সুবিধা পাচ্ছেন। সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে, ২০২১ সালে অ্যান্ড্রয়েড ও ওয়েব প্ল্যাটফর্মে কাজ শুরু করবে ফিচারটি। ভয়েস ট্যুইটসের সূত্র ধরেই টেস্টিং voice DM পরিষেবা চালু করতে চলেছে এই সংস্থা।

ট্যুইটার ফ্লিটস (Twitter Fleets)

ট্যুইটারের অন্যতম সেরা ফিচারটি হল ট্যুইটার ফ্লিটস। Snapchat Story থেকে অনুপ্রাণিত এই ফিচার ইতিমধ্যেই ব্যবহারকারীদের মন জয় করে নিয়েছে। এ ক্ষেত্রে ব্যবহারকারীরা ছবি, ভিডিও, টেক্সট সহ সমস্ত কিছুই পোস্ট করতে পারেন। যা একদিন অর্থাৎ ২৪ ঘণ্টা পর নিজে থেকেই উড়ে যাবে। সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে, Twitter Fleets-এর মাধ্যমে ব্যবহারকারীরা আরও বেশি করে নানা কথোপকথনে অংশগ্রহণ করতে পারবেন। মূলত 'মোমেন্টারি থটস' শেয়ারিংয়ের ফিচার এটি। এতে অনেকটা বেশি স্বচ্ছন্দ অনুভব করবেন মানুষজন। বিশেষ করে Twitter-এ যাঁরা নতুন, তাঁরা এই Twitter Fleets-থেকে বাড়তি সুবিধা উপভোগ করতে পারবেন। জুন মাসে থেকেই বিশ্বের নানা দেশে এই ফিচারের টেস্টিং শুরু হয়েছে।

লিমিট রিপ্লাইজ টু ইয়োর ট্যুইটস (Limit Replies to Your Tweets)

শুরু থেকে এই প্ল্যাটফর্মের যে কোনও পোস্টে যে কেউই রিপ্লাই করতে পারতেন। কিন্তু এই বছর একটি নতুন ফিচার নিয়ে এসেছে মাইক্রোব্লগিং সাইটটি। এ ক্ষেত্রে পোস্টের রিপ্লাইয়ের ব্যাপারটা খানিকটা হলেও নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন ব্যবহারকারীরা। তাঁরা নির্বাচন করতে পারবেন, কারা তাঁদের ট্যুইটে রিপ্লাই দেবেন। এ ক্ষেত্রে পোস্টের সময় Everyone, People You Follow ও Only People You Mention নামে তিনটি অপশন থাকবে।

রিড বিফোর ইউ রি-ট্যুইট (Read Before You Retweet)

অক্টোবরে এই ফিচার নিয়ে আসে ট্যুইটার। এ ক্ষেত্রে কোনও রি-ট্যুইট বা কোট-ট্যুইটিংয়ের আগে সংশ্লিষ্ট বিষয়টি ভালো করে দেখে নিতে হবে। আমেরিকার নির্বাচনের পটভূমিতেই জন্ম নেয় এই আপডেট। এই ইন-অ্যাপ-প্রম্পটের মাধ্যমে কোনও বিষয়ে আলোচনার পূর্বে কিছুটা হলেও সচেতন হবেন মানুষজন। সেই সম্পর্কিত তথ্যও খতিয়ে দেখে নিতে পারেন।

কোভিড ১৯ পেইজ (Covid 19 Event Page)

করোনা পরিস্থিতিতে ওয়েব ও অ্যাপ দু'টি ভার্সনেই একটি COVID-19 পেজ তৈরি করে এই সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম। এ ক্ষেত্রে ভারতের কথা মাথায় রেখে হিন্দি ও ইংরেজি ভাষায় করোনা সম্পর্কিত একাধিক তথ্য উপলব্ধ রয়েছে। দেশের স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রকের সঙ্গে গাঁটছড়া বেঁধে এই পেজটি লঞ্চ করা হয়।

Published by: Debalina Datta
First published: December 29, 2020, 5:47 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर