Football World Cup 2018

নোট ইস্যু ও তাপস-সুদীপের গ্রেফতারিতে তিন রাজ্যে তৃণমূলের প্রতিবাদ কর্মসূচি

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Jan 10, 2017 01:32 PM IST
নোট ইস্যু ও তাপস-সুদীপের গ্রেফতারিতে তিন রাজ্যে তৃণমূলের প্রতিবাদ কর্মসূচি
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Jan 10, 2017 01:32 PM IST

#ভুবনেশ্বর: রোজভ্যালি কাণ্ডে তৃণমূল কংগ্রেসের সংসদীয় দলনেতা সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায় ও তারকা সাংসদ তাপস পালের গ্রেফতারির প্রতিবাদে তিন রাজ্যে তৃণমূলের বিক্ষোভ কর্মসূচী অব্যাহত ৷ একই সঙ্গে কেন্দ্রের নোট বাতিল ইস্যুতেও প্রতিবাদ বিক্ষোভ দেখাচ্ছে তৃণমূল কংগ্রেস ৷

সল্টলেকের সিজিও কমপ্লেক্সে সিবিআই অফিসের সামনে মঙ্গলবারও চলবে বিক্ষোভ ৷ এরাজ্যের সঙ্গে পড়শি রাজ্যের ভুবনেশ্বরেও সোমবার থেকেই শুরু হয়েছে প্রতিবাদ কর্মসূচি ৷ তাপস-সুদীপের গ্রেফতারির প্রতিবাদে ভুবনেশ্বরের সিবিআই দফতরের অনতিদূরে লোয়ার পিএমজি গ্রাউন্ডে ধর্নার বসেছেন তৃণমূলের সাংসদ, নেতা ও কর্মীরা ৷ সাংসদ সুব্রত বক্সীর নেতৃত্বে সকাল ১১টা থেকে সন্ধে ৬টা পর্যন্ত চলবে বিক্ষোভ কর্মসূচি। এই বিষয় মাথায় রেখে CBI অফিসের বাইরে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে ৷ তৈরি করা হয়েছে ব্যারিকেড ৷

এর পাশাপাশি দিল্লির সাউথ অ্যাভিনিউতেও প্রতিবাদ, ধর্নার কর্মসূচি রয়েছে তৃণমূলের ৷

সোমবারই ভুবনেশ্বরের সিবিআই অফিসে গিয়ে সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে দেখা করেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়-সুব্রত বক্সিরা। দল যে তাপস-সুদীপের পাশেই রয়েছে, সেই বার্তাই দেন তাঁরা।

গেরুয়া শিবিরের রাজনৈতিক মোকাবিলায় দ্বিমুখী কৌশল তৃণমূলের। নোট বাতিলের পাশাপাশি বিজেপির বিরুদ্ধে রাজনৈতিক ষড়যন্ত্রের অভিযোগেও সরব মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দল। রোজভ্যালিকাণ্ডে তৃণমূল সাংসদ তাপস পাল এবং সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়কে দিন কয়েকের ব্যবধানে গ্রেফতার করেছে সিবিআই। যাকে বিজেপির রাজনৈতিক ষড়যন্ত্র হিসেবেই দেখছেন তৃণমূল নেত্রী। যার মোকাবিলায় দ্বিমুখী কৌশল নিয়ে এগোচ্ছে তৃণমূল কংগ্রেস।

তৃণমূলের দ্বিমুখী কৌশল

- নোট বাতিলের প্রতিবাদে সোমবার কলকাতায় আরবিআই অফিসের বাইরে বিক্ষোভ

- তাপস-সুদীপের গ্রেফতারির প্রতিবাদে ধর্না সিজিও কমপ্লেক্সের বাইরে

- সুব্রত বক্সির নেতৃত্বে ধর্না তৃণমূল নেতা-কর্মীদের

- দলীয় সাংসদদের গ্রেফতারির প্রতিবাদ ভুবনেশ্বরেও

- মঙ্গলবার ভুবনেশ্বরের লোয়ার পিএনজি গ্রাউন্ডে ধর্না

রবিবারই ভুবনেশ্বরে যান তৃণমূলের চার সদস্যের প্রতিনিধি দল। সেই দলে ছিলেন সুব্রত বক্সি, পার্থ চট্টোপাধ্যায়, চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য এবং মণীশ গুপ্ত। সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে দেখা করতে সিবিআই দফতরেও যান তাঁরা। কিন্তু প্রত্যেককে দেখা করার অনুমতি দেয়নি সিবিআই। শেষে সিবিআই আধিকারিকের উপস্থিতিতে ধৃত সাংসদের সঙ্গে দেখা করেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়। দল যে তাপস-সুদীপের পাশে রয়েছে, সেই বার্তাই দেন তিনি।

সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়কে সোমবার ফের সিবিআই হেফাজতের নির্দেশ দেয় আদালত ৷ সোমবার ম্যারাথন সওয়াল-জবাবে সুদীপের জামিনের আর্জি জানান তাঁর আইনজীবী। সিবিআইয়ের আইনজীবী দাবি করেন, বৃহত্তর ষড়যন্ত্রের রহস্যভেদে তাঁকে আরও জেরার প্রয়োজন। বেশকিছুক্ষণ অর্ডার রিজার্ভ রাখার পর, তৃণমূল সাংসদকে ১২ জানুয়ারি পর্যন্ত হেফাজতের নির্দেশ দেয় ভুবনেশ্বরের সিবিআই আদালত।

First published: 01:32:47 PM Jan 10, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर