Home /News /kolkata /
Saradha Chit Fund Case : ফেরত পাওয়া যাবে সারদা চিটফান্ডের টাকা? ৮ বছর পর কীসের ভিত্তিতে এই আশা! রইল বিস্তারিত...

Saradha Chit Fund Case : ফেরত পাওয়া যাবে সারদা চিটফান্ডের টাকা? ৮ বছর পর কীসের ভিত্তিতে এই আশা! রইল বিস্তারিত...

ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি রাজেশ বিন্দাল

ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি রাজেশ বিন্দাল

২০১৩ সালে শ্যামল সেন কমিশন (Shyamal Sen Commission) গঠনে সারদা চিটফান্ড মামলার (Saradha Chit Fund Scam) আমানতকারীদের টাকা ফেরতের ব্যবস্থা করে রাজ্য সরকার। ৮ বছর পর কমিশনের পড়ে থাকা ১৩৮ কোটি টাকা আমানতকারীদের দেওয়ার ব্যাপারে আবারও উদ্যোগ দেখা গিয়েছে।

আরও পড়ুন...
  • Share this:

#কলকাতা : সারদা চিটফান্ড (Saradha Chit Fund Scam) কেলেঙ্কারি সামনে আসে ২০১৩ সালের এপ্রিল মাসে। গ্রেফতার হয় সারদা কর্ণধার সুদীপ্ত সেন (Sudipta Sen) এবং দেবযানী মুখোপাধ্যায় (Debjani Mukherjee)। সেই বছরই শ্যামল সেন কমিশন (Shyamal Sen Commission) গঠনে আমানতকারীদের টাকা ফেরতের ব্যবস্থা করে রাজ্য সরকার। ৮ বছর পর কমিশনের পড়ে থাকা ১৩৮ কোটি টাকা আমানতকারীদের দেওয়ার ব্যাপারে আবারও উদ্যোগ দেখা গিয়েছে। মঙ্গলবার সারদা চিটফান্ড মামলার শুনানিতে,সারদার আমানতকারীদের টাকা ফেরাতে এক সদস্যের কমিটি গঠনের কথা শুনিয়েছে কলকাতা হাইকোর্ট। আর তাতেই আশার আলো দেখছেন আমানতকারীরা।

কবে কীভাবে এবং কার নেতৃত্বে কমিটি গঠন হবে সে বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত অবশ্য এখনও শোনেনি ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি রাজেশ বিন্দাল ও বিচারপতি অরিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডিভিশন বেঞ্চ। পরবর্তী শুনানির দিন ২৯ জুন কমিটি গঠনের বিষয়টি আরও স্পষ্ট হবে বলে জানা গিয়েছে। শ্যামল সেন কমিশনের দাখিল করা চূড়ান্ত রিপোর্ট এখনও কেন কলকাতা হাইকোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেলের কাছে পড়ে রয়েছে সেই প্রশ্নও তুলেছেন ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি রাজেশ বিন্দাল।

পাশাপাশি শ্যামল সেন কমিশনের মেয়াদ শেষ হওয়ার পর যে ১৩৮ কোটি টাকা ছিল এবং যা রাজ্য তার প্রয়োজনে ব্যবহার করেছে সেটা কেন সাধারণ আমানতকারীদের দেওয়া যাবে না তাও জানতে চায় আদালত। এছাড়াও বিভিন্ন সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করে সিবিআইয়ের হাতে যে পরিমাণ টাকা আছে তাও এক সদস্যের কমিটির কাছে পাঠানো যায় কিনা সে প্রশ্নও তুলেছেন বিচারপতিরা।

শ্যামল সেন কমিশনের মাধ্যমে ৫০০ কোটি টাকা আমানতকারীদের দেওয়ার কথা জানায় রাজ্য। ২৮৭ কোটি টাকা ফেরানোর জন্য দেয় রাজ্য। ২৫১ কোটি টাকা ফেরায় কমিশন। ঠিকানা ভুলের কারণে চেক বাউন্স করে ১০২ কোটি টাকার। আমানতকারীদের আইনজীবী অরিন্দম দাস ও শুভাশিস চক্রবর্তী জানান, "এর আগে এমপিএস চিটফান্ডে টাকা ফেরাতে অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি এস পি তালুকদার কমিটি গড়ে হাইকোর্ট। তালুকদার কমিটি এখন ৫০ বেশি চিটফান্ডের টাকা ফেরতের প্রক্রিয়া তদারকিতে। ইতিমধ্যে আলকেমিস্ট ও ভিবজিওর আমানতকারীদের কিছু টাকা ফিরিয়েছে কমিটি।" শনিবার সারদা মামলায় হাইকোর্ট থেকে জামিন পেয়েছেন  সংস্থার  এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর দেবযানী মুখোপাধ্যায়।

Published by:Sanjukta Sarkar
First published:

Tags: Kolkata High court, Sarada case