Home /News /kolkata /
শপথ-বাক্য বিধিভঙ্গ, মোদি আগে দিল্লি সামলান, হুগলি থেকে পাল্টা মমতার

শপথ-বাক্য বিধিভঙ্গ, মোদি আগে দিল্লি সামলান, হুগলি থেকে পাল্টা মমতার

হুগলির সভায় মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়।

হুগলির সভায় মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়।

চৈতন্যে থেকে রামমোহন রায়-বহু মনীষির স্মৃতিবিজরিত স্থান থেকে প্রার্থী নজিবুল করিমের হয়ে বক্তব্য যেমন রাখলেন, তেমনই নরেন্দ্র মোদির বক্তব্যের বিরুদ্ধে তীব্র তোপ দাগলেন।

  • Share this:

#খানাকুল: বেলা দুটো পর থেকে থেকে ঝড়ের পূর্বাভাস, আবহাওয়া বুঝে সাতসকালে হুগলির খানাকুলে সভা করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়।  চৈতন্যে থেকে রামমোহন রায়-বহু মনীষির স্মৃতিবিজরিত স্থান থেকে প্রার্থী নজিবুল করিমের হয়ে বক্তব্য যেমন রাখলেন, তেমনই নরেন্দ্র মোদির বক্তব্যের বিরুদ্ধে তীব্র তোপ দাগলেন। প্রধানমন্ত্রী শনিবার বলতে চেয়েছিলেন, জয় নিশ্চিত, তাই সরকারি অফিসারদের উচিত এখন থেকেই কাজ শুরু করে দেওয়া। দু পা এগিয়ে, মুখ্যমন্ত্রীর শপথ অনুষ্ঠানে আসার কথাও  ঘোষণা করে দেন তিনি। প্রত্যয়টা ছিল এমন যে, তিনি ১০০ শতাংশ নিশ্চিত ক্ষমতায় আসছে তাঁর দল। এই ধারণা তৈরির কৌশলকে বিঁধে মমতার উক্তি,  "কাল  বলেছে আমি শপথে আসব। আইন ভেঙে এসব বলেছেন। আগে দিল্লিকে সামলান। আপনার আমার রাজ্যের অফিসারদের এসব বলার অধিকার নেই। আপনি কি ভগবান না সুপার ম্যান!"

দেখে নেওয়া যাক মমতা আর যা যা বললেন-

শুরুতেই প্রয়াত সুলতান আহমেদের জন্য রইল বিনম্র শ্রদ্ধা। বললেন,  সুলতান আহমেদ মারা গিয়েছে অনেক দুঃখে। তাই দেখে ইকবালের শরীর খারাপ হয়ে গেছে। এবার আমি তাই ঘরের ছেলেকে  (নজিবুল করিম) দাঁড় করিয়েছি। মানুষের জন্যে কাজ করতে পারবে।

বিজেপির মঞ্চ নিয়ে কটাক্ষ

এত গরম, ধুলোর মধ্যে আমার মিটিংয়ে আসছে লোক। বিজেপির একটা সভায় ৫ কোটির মঞ্চ। আমাদের মতো ছোট দলের পক্ষে তা সম্ভব নয়। তাও মানুষ আমার সভায় আসছে।

স্থানীয় সমস্যা নিয়ে

 সব বাড়িতে এখানে পানীয় জল পৌছে যাবে। বন্যা এখানের প্রধান সমস্যা। খানাকুল, আরামবাগ, পুরশুড়ায় এই সমস্যা।  এই মহকুমায় বন্যা নিয়ন্ত্রণের জন্যে ৪০ কোটি টাকার কাজ চলছে।

মোদি-শাহ জুটিকে আক্রমণ

মমতার কথায়- নরেন্দ্র মোদি, অমিত শাহ রোজ এখানে এসে মিথ্যা কথা বলে চলেছে। দিল্লিতে ৬ বছর থেকেও বাংলার জন্যে একটা কাজও করেনি। কৃষকদের লিস্ট পাঠানো আছে। ভালো নাটক করতে পারে। আগে খুন করবে তারপর চোখের জল ফেলবে। বাংলাদেশ গেল, দাঙ্গা বাধালো।  রোজ অমিত শাহ পুলিশ অফিসার চেঞ্জ করেছে। আলিপুরদুয়ার, চন্দননগর বদল করল। এরা বদল হল কেন? এরা দেখতে খারাপ? এরা চলতে পারেনা? এরা বাংলার গর্ব। ৫০ আসন পাবেনা তোমরা।

ভোট উবাচ

মমতা বলছেন- পুরো হেরে গিছে। কত আসনে জামানত জব্দ হবে। অনেক জায়গায় এজেন্ট নেই। বিজেপির কথা শুনে এজেন্ট নিয়ে সিদ্ধান্ত বদলাল ইসি। বিজেপি নেতাদের ফোন বেরলো তো (মুকুল রায়-শিশির বাজোরিয়া টেপ)।

ভোটের দিনের টিপস 

কড়াভাবে দলীয় কর্মীদের বললেন- কোনও ন্যাকা কান্না শুনব না। না পারলে বসবেন না। ভয় দেখাচ্ছে বললে শুনব না। ইনসাইড বুথ পুলিশ কারও আই ডি চেক করতে পারবে না। পাড়ায় যাদের ঝগড়ুটে মেয়ে বলো তাদের এজেন্ট করে দাও। মহিলারা রাত পাহাড়া দাও। ছেলেরা পিছনে থাকবে। আসামে দিল্লির পুলিশ গিয়ে বরাকে ছাপ্পা ভোট দিয়েছে। এখানে ভয় পাবেন না। আমি বসে আছি, বাঘের বাচ্চা।

সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি

মমতার কথায়- আমি সাম্প্রদায়িকতার দল করিনা। আমি হিন্দু, মুসলিম নিয়ে চলি। ওই সব পচা দিয়ে হবে না। ওরা বিজেপির কাছে বিক্রি হয়ে গেছে। হিন্দু মুসলমান কোনও ভাগাভাগি করবেন না ।

Published by:Arka Deb
First published:

Tags: Mamata Banerjee, Narendra Modi, West Bengal Assembly Election 2021

পরবর্তী খবর