Madan Mitra Facebook Live: এবার হাসপাতাল থেকেও ছুটি, মুক্তির আনন্দে ফেসবুক লাইভে রবীন্দ্র সঙ্গীত গাইলেন মদন

ছুটির খবর পেয়েই ফুরফুরে মেজাজে মদন৷

গত ১৭ মে নারদ কাণ্ডে (Narada Case) গ্রেফতার হওয়ার দিন গভীর রাতেই শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে এসএসকেএম হাসপাতালে ভর্তি হন মদন মিত্র (Madan Mitra)৷

  • Share this:

    #কলকাতা: শুক্রবারই জামিনের নির্দেশ দিয়েছিল কলকাতা হাইকোর্ট৷ আর তার পরের দিনই হাসপাতাল থেকে ছুটির খবরও পেয়ে গেলেন মদন মিত্র৷ আর এই জোড়া সুখবরেই অনেকটা চাঙ্গা এসএসকেএম হাসপাতালে বন্দি কামারহাটির তৃণমূল বিধায়ক৷ মুক্তির আনন্দে এ দিন হাসপাতাল থেকেই ফের আগের মতোই ফেসবুক লাইভে এসেছেন মদন৷ শুধু তাই নয়, মনের আনন্দে গেয়েছেন রবীন্দ্র সঙ্গীতও৷

    গত ১৭ মে নারদ কাণ্ডে গ্রেফতার হওয়ার দিন গভীর রাতেই শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে এসএসকেএম হাসপাতালে ভর্তি হন মদন মিত্র৷ শ্বাসকষ্টের সমস্যা ছাড়াও পেটের যন্ত্রণায় ভুগছিলেন তিনি৷ কয়েকদিন আগে করোনায় আক্রান্ত হওয়ায় শারীরিক দুর্বলতাও ছিল৷

    গ্রেফতার হওয়ার আগে নিয়মিত ফেসবুক লাইভে আসতেন কামারহাটির বিধায়ক৷ এতদিন আইনি জটিলতায় এবং অসুস্থ থাকায় তা করতে পারেননি৷ এ দিন অবশ্য আগের মেজাজেই এসএসকেএম হাসপাতালের উডবার্ন ব্লকের বারান্দা থেকে ফেসবুক লাইভে আসেন মদন৷ দৃশ্যতই খুশি মদন বলেন, 'আমি মুক্ত! আমার এখন একটা লাইনই বলতে ইচ্ছে করছে৷'

    এর পরই ফুরফুরে মেজাজে মদন গেয়ে ওঠেন, 'আমার মুক্তি আলোয় আলোয়'৷ শুধু এই একটিই নয়, এর পর মদনের গলায় একে একে শোনা গিয়েছে 'এ দিন আজি কোন ঝড়ে গো খুলে দিল দ্বার', 'ক্লান্তি আমার ক্ষমা করো'-র মতো রবীন্দ্র সঙ্গীতও৷ তাঁকে যে ছুটি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন চিকিৎসকরা, মদন নিজেই সেকথা জানান৷

    মদন জানিয়েছেন, হাসপাতাল থেকে ছুটি পাওয়ার পর তিনি প্রথমে আলমবাজারের একটি মন্দিরে গিয়ে পুজো দেবেন৷ গ্রেফতার হওয়ার পর থেকে যাঁরা তাঁর পাশে দাঁড়িয়েছেন, তাঁদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন কামারহাটির বিধায়ক৷ শুধু তাই নয়, তাঁকে সুস্থ করে তোলার জন্য হাসপাতালের চিকিৎসক এবং নার্সদেরও ধন্যবাদ জানান তিনি৷ জামিন পাওয়ার জন্য ধন্যবাদ জানিয়েছেন বিচার ব্যবস্থাকেও৷

    ফেসবুক লাইভে বরাবরই বিপুল জনপ্রিয় মদন৷ গ্রেফতার হওয়ার পর থেকে এই প্রথম লাইভে এলেন মদন৷ এ দিনও প্রথম কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই তাঁর ফেসবুক লাইভে ৪৭ হাজার লাইক পড়েছে৷ ভিউয়ের সংখ্যা ৭ লক্ষ ছাড়িয়েছে৷

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published: