বাতাসে বাজছে পুজোর সুর , কুমারটুলিতে প্রস্তুতি তুঙ্গে

ঢাকে কাঠি পড়তে বাকি আর মাত্র কয়েকদিন। তাই কুমারটুলির ওলিতে গলিতে প্রতিমা বানানোর প্রস্তুতি তুঙ্গে।

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Aug 26, 2019 09:28 AM IST
বাতাসে বাজছে পুজোর সুর , কুমারটুলিতে প্রস্তুতি তুঙ্গে
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Aug 26, 2019 09:28 AM IST

#কলকাতা: ঢাকে কাঠি পড়তে বাকি আর মাত্র কয়েকদিন। তাই কুমারটুলির ওলিতে গলিতে প্রতিমা বানানোর প্রস্তুতি তুঙ্গে। রাতদিন এক করে ঠাকুর গড়ার কাজে ব্যস্ত মৃৎশিল্পীরা। বছরের এই সময়টাতে সবথেকে বেশী রোজকারের সুযোগ থাকে মৃৎ শিল্পীদের। তবে এবছরের ছবিটা খানিকটা আলাদা। কেন?

মাঝে মাঝেই হঠাৎ বৃষ্টি।কখনও মেঘ, কখোনো রোদ্দুর.... তবুও এঁরা সারাবছর ব্যস্ত থাকেন ঠাকুর গড়ার কাজে।পুজোর আগে কুমোরটুলির মৃৎ শিল্পীদেরএই ব্যস্ততা বেড়ে যায় কয়েকগুন। তবে এবছর থিম পুজোর প্রতিমার থেকে সনাতনী প্রতিমার চাহিদা বেশী।

সারাবছর কমবেশী প্রতিমা তৈরি হলেও বছরের এই সময়টায় মৃৎ শিল্পীরা একটু লাভের মুখ দেখেন। তবে এবছর ইনকাম ট্যাস্কের প্রকোপ থেকে বাঁচতে পুজোর বাজেটে কাঁটছাট করছেন পুজো উদ্যোক্তারা। ফলে বায়না কমছে প্রতিমারও।

পুজোর অনেক আগেই লক্ষ্মী-গনেশ-সরস্বতী-কার্ত্তিককে নিয়ে বিদেশে পাড়ি দেন উমা। এই ধরনের প্রতিমা তৈরি করতে ব্যবহার হয় শোলা-ফাইবার। তবে জিএসটির কোপে ঠাকুর বানাতে খরচ হচ্ছে আাগের তুলনায় অনেক বেশি।

একদিকে ঠাকুর বানানোর খরচ, অন্যদিকে ইনকাম ট্যাক্সের প্রকোপ। সবমিলিয়ে সমস্যায় কুমোরটুলির প্রতিমাশিল্পীরা। সমস্যার কথা স্বীকার করে নিয়েছে কুমোরটুলি মৃৎ শিল্পী অ্যাসোসিয়েশনও।

Loading...

এবছর পুজোর আর এক আশঙ্কা বৃষ্টি। সব বাধা কাটিয়ে মায়ের আগমনের আগে কি কিছুটা লাভের মুখ দেখবেন কুমারটুলির শিল্পীরা....

First published: 09:28:34 AM Aug 26, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर