রবিবার ফাইনাল, তৈরি ইডেন

মঞ্চ প্রস্তুত। রবিবার উনতিরিশ বছর পর ইডেনে বিশ্বকাপের ফাইনাল। প্রয়াত জগমোহন ডালমিয়ার স্বপ্নপূরণ হতে চলেছে সৌরভের কাঁধে। শহরে উড়ালপুল দুর্ঘটনার জেরে কাঁটছাট করা হয়েছে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। ঘটনায় নিহতের স্মৃতিতে নীরবতা পালত করতে চলেছে ইংল্যান্ড ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

আরও পড়ুন...
  • Last Updated :
  • Share this:

    #কলকাতা: মঞ্চ প্রস্তুত। রবিবার উনতিরিশ বছর পর ইডেনে বিশ্বকাপের ফাইনাল। প্রয়াত জগমোহন ডালমিয়ার স্বপ্নপূরণ হতে চলেছে সৌরভের কাঁধে। শহরে উড়ালপুল দুর্ঘটনার জেরে কাঁটছাট করা হয়েছে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। ঘটনায় নিহতের স্মৃতিতে নীরবতা পালত করতে চলেছে ইংল্যান্ড ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

    মারা যাওয়ার আগে বিশ্বকাপ কলকাতায় আনতে চেয়েছিলেন জগমোহন ডালমিয়া। সেই স্বপ্ন সফল করেই তিনি গত হন। এবার সেই মাহেন্দ্রক্ষণ। রবিবার কলকাতায় উনতিরিশ বছর পর বিশ্বকাপের ফাইনাল।

    স্বাধীনতার আগের জুন। সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টে মুখোমুখি সিকে নাইডুর ভারত ও ডগলাস জার্ডিনের ইংল্যান্ড। সেটাই ছিল কলকাতার মাটিতে প্রথম টেস্ট ম্যাচ। ড্র হলেও সেই টেস্টকে স্মরণ করেই হয়েছিল সিএবির পঁচাত্তর বছর। উনিশশো সাতাত্তর সালের সেপ্টেম্বর। কলকাতা কাঁপিয়ে গেলেন ফুটবলের মহানায়ক পেলে। মোহনবাগান-কসমসের সেই ম্যাচ দেখতে ভেঙে পড়েছিল ইডেন। পিকের কোচিংয়ে সেই ম্যাচের নায়ক শিবাজী বন্দ্যোপাধ্যায়। তিন বছর পর কলকাতা ফুটবলে নেমে এল লজ্জা। সাক্ষী থাকল এই ইডেন। উনিশশো আশি সালের অগস্ট। ষোলো জনের প্রাণের মাশুল দিয়ে হল মোহনবাগান-ইস্টবেঙ্গল ম্যাচ। সাত বছর পর হাসি ফুটল কলকাতার মুখে। নভেম্বর, উনিশশো সাতাশি। উপমহাদেশে প্রথম বিশ্বকাপের ফাইনাল। চিরশক্রু ইংল্যান্ডকে সাত রানে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া। নভেম্বর উনিশশো উননব্বই। নেহরুকাপের ফাইনালে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন পাকিস্তান। ম্যাচের সেরা ওয়াসিম আক্রম। অক্টোবর উনিশশো নব্বই। ক্রিকেট নয়, ফুটবল নয়, এক অন্য কারণে ঐতিহাসিক হয়ে গেল ইডেন। মুক্তির পর ভারতে এসে প্রথম জনসভা করলেন নেলসন ম্যান্ডেলা। ঠিক এক বছর পরেই জগমোহন ডালমিয়ার হাত ধরে বিশ্ব ক্রিকেটে ফিরল দক্ষিণ আফ্রিকা।

    নভেম্বর উনিশশো একানব্বই। ইডেনে ফিরল ক্লাইভ রাইসের দল। সেই ম্যাচে জিতল ভারত। উনিশশো তিরানব্বই সালের নভেম্বর। কৃত্রিম আলো জ্বলল ক্রিকেটের নন্দনকাননে। হিরো কাপের সেমিফাইনালে মুখোমুখি ভারত-দক্ষিণ আফ্রিকা। সচিনের বলে ফাইনালে ভারত। মার্চ উনিশশো ছিয়ানব্বই। লজ্জা ফিরল ইডেনে। বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে ভারত-শ্রীলঙ্কা। পিচ বিতর্ক, দর্শক হাঙ্গামা লজ্জায় মুখ ঢাকল শহর। তিন বছর পর ফেব্রুয়ারি। ফের বিতর্কে ইডেন। এবার এশিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের ম্যাচে মুখোমুখি ভারত-পাকিস্তান। সচিনের রান আউট নিয়ে উত্তাল গোটা মাঠ। শেষ দিন স্টেডিয়াম ফাঁকা করে ম্যাচ করার নির্দেশ দিল পুলিশ। ঠিক দু’বছর পর। এক রূপকথা তৈরি হল কলকাতার ক্যানভাসে। ভেরি ভেরি ভেরি স্পেশাল লক্ষণের অপরাজিত দু’শো একাশি আজও ভারতীয়দের মধ্যে একটা সেরা ইনিংস। সঙ্গে হরভজন সিংয়ের হ্যাটট্রিক-সহ ছ’উইকেট। স্টিভ ওয়ার অস্ট্রেলিয়াকে থামিয়ে সিরিজে সমতায় ফিরল সৌরভের ভারত।

    First published:

    Tags: Eden Gardens, ICC T20 World Cup, Jagmohan Dalmiya, Sourav Ganguly, T20 world cup final