কাটল কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তন জট, উপস্থিত থাকবেন রাজ্যপাল

কাটল কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তন জট, উপস্থিত থাকবেন রাজ্যপাল
রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়

সমাবর্তনে সভাপতিত্ব করবেন রাজ্যপাল। বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফে মঙ্গলবার দেওয়া চিঠির উত্তরে জানিয়ে দিলেন রাজ্যপাল।

  • Share this:

#কলকাতা: অবশেষে কাটল কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় সমাবর্তন জট। ২৮শে জানুয়ারি সমাবর্তনে যোগ দেবেন রাজ্যপাল। বুধবার বিশ্ববিদ্যালয়কে রাজভবনের তরফে চিঠি পাঠিয়ে জানিয়ে দেওয়া হল। মঙ্গলবারই বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তনে সভাপতিত্ব করার জন্য আমন্ত্রণ জানিয়ে চিঠি দেওয়া হয় রাজ্যপালকে। সেই চিঠির প্রেক্ষিতেই রাজভবনের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়কে, সূত্রে খবর। গত সোমবারই বিশ্ববিদ্যালয় সমাবর্তন সংক্রান্ত ফাইল ফেরত পাঠান রাজ্যপাল। বেশ কিছু ব্যাখ্যা চেয়ে ফাইল ফেরত পাঠানোর সঙ্গে সঙ্গেই বিশ্ববিদ্যালয় তরফেও তৎপরতার সঙ্গে আচার্যের ব্যাখ্যার উত্তর দেওয়া হয়। মঙ্গলবারই সেই ফাইল ও ছেড়ে দেন রাজ্যপাল।

গত সোমবার কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তন সংক্রান্ত বেশ কিছু সিদ্ধান্ত নিয়ে প্রশ্ন তুলে রাজ্যপাল জাগদীপ ধনখড় ফাইল ফেরত পাঠিয়ে দিয়েছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়কে। মূলত তিনি সেনেটের চেয়ারম্যান হওয়া সত্ত্বেও তাকে না জানিয়ে কিভাবে বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফে ডিলিট প্রাপকের নাম ঠিক করা হল, সমাবর্তনের দিন হিসাবে ২৮শে জানুয়ারি কে কীভাবে সিদ্ধান্ত নেওয়া হল একগুচ্ছ প্রশ্ন তোলেন রাজ্যপাল। এই প্রশ্ন তুলেই বিশ্ববিদ্যালয়ের কাছে সমাবর্তন সংক্রান্ত ফাইল ফেরত পাঠিয়ে দেন। অবশ্য আচার্যের তোলা ব্যাখ্যার উত্তর দিতে দেরি করেনি বিশ্ববিদ্যালয়। মঙ্গলবারই বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফে উচ্চ শিক্ষা দপ্তর মারফত চিঠি পাঠিয়ে জানানো হয় অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায়কে ডিলিট সম্মান দেওয়া কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের কাছে গর্বের। শুধুু তাই নয় চিঠিতে এও বলা হয় ২৮শে জানুয়ারি সময়টা অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায়ের থেকে পাওয়া গেছে। উনার সময়টাই গুরুত্বপূর্ণ। তাই ২৮শে জানুয়ারি তে সমাবর্তনের দিন হিসাবে চূড়ান্ত করা হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফে উত্তর পাওয়ার পরপরই রাজ্যপাল কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তন এর ফাইল ছেড়ে দেন। এরপরই মঙ্গলবার বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফে সমাবর্তনের সভাপতিত্ব করার জন্য রাজ্যপাল কে উচ্চ শিক্ষা দপ্তর মারফত চিঠি পাঠানো হয়। বুধবারই সেই চিঠির উত্তরে বিশ্ববিদ্যালয় সমাবর্তন সভাপতিত্ব করবেন বলেও জানিয়ে দিয়েছেন। এদিকে ২৮ শে জানুয়ারি র সমাবর্তনে উপস্থিত থাকতে পারেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও। প্রাথমিকভাবে সমাবর্তন নজরুল মঞ্চে করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

SOMRAJ BANDOPADHYAY

First published: 06:52:48 PM Jan 15, 2020
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर