Home /News /kolkata /
ইস্টবেঙ্গলের শতবার্ষিকীর গেট ভাঙল মোহনবাগান সমর্থকরা, অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে লালবাজারে ক্লাবকর্তারা

ইস্টবেঙ্গলের শতবার্ষিকীর গেট ভাঙল মোহনবাগান সমর্থকরা, অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে লালবাজারে ক্লাবকর্তারা

ক্লাব প্রীতির নামে কলঙ্ক। বটতলা সাক্ষি থাকল একরাশ লজ্জার। ইডেনের বিপরীতে ইস্টবেঙ্গলের শতবর্ষের তোরণ ভেঙে দিলেন মোহনবাগানের জার্সি পড়া গোটা কয়েক উশৃঙ্খল সমর্থক।

  • Share this:

    #কলকাতা: ক্লাব প্রীতির নামে কলঙ্ক। বটতলা সাক্ষি থাকল একরাশ লজ্জার। ইডেনের বিপরীতে ইস্টবেঙ্গলের শতবর্ষের তোরণ ভেঙে দিলেন মোহনবাগানের জার্সি পড়া গোটা কয়েক উশৃঙ্খল সমর্থক। অভিযুক্ত সমর্থকদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ মোহনবাগানের ৷ অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে লালবাজারে ক্লাবকর্তারা৷

    লজ্জা। ফুটবলের লজ্জা। বুধ বিকেলে এক কলঙ্কজনক ঘটনার সাক্ষি থাকল বটতলা। ক্লাব প্রীতির নামে ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের শতবর্ষের গেট ভেঙে দিল একদল উশৃঙ্খল বাগান সমর্থক। বুধবার মোহনবাগান মাঠে ডুরান্ড কাপের ম্যাচ ছিল মোহনবাগান ও এটিকে-র। ম্যাচে ২-১ গোলে জেতে মোহনবাগান। মাঠ থেকে ফেরার পথে ইডেন গার্ডেন্সের বিপরীতে লেসলি ক্লডিয়াস সরণীর মুখে শতবর্ষের সেলিব্রেশনে ইস্টবেঙ্গলের তোরণে হামলা চালায় বাগান জার্সি পরিহিত জনা কয়েক উশৃঙ্খল সমর্থক। ছিঁড়ে ফেলা হয় ফ্লেক্স। ভেঙে ফেলা হয় বাঁশের কাঠামো। সঙ্গে চলতে থাকে অশ্রাব্য গালিগালাজ।

    ঘটনার ভিডিও ফুটেজ লালবাজারে পাঠিয়ে দোষীদের চিহ্নিত করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির আবেদন জানিয়েছে মোহনবাগান। ইস্টবেঙ্গলের কাছে দুঃখপ্রকাশ করে নিজেদের খরচে নতুন করে তোরণ তৈরি করে দেওয়া হবে বলেও জানিয়েছেন বাগানের শীর্ষকর্তা সৃঞ্জয় বোস ও দেবাশিস দত্ত।

    সৃঞ্জয়-দেবাশিসদের সদর্থক মনোভাবকে স্বাগত জানাই আমরা। বন্ধ হোক এই নোংরামি। বন্ধ হোক এই গুন্ডা সংস্কৃতি। যে সমর্থকরা আজ ইস্টবেঙ্গলের তোরণ ভেঙেছেন, তারা আর যাই হোক ফুটবলের সমর্থক হতে পারেন না। বাগান সদস্যদের কাছে আমাদের আবেদন, বাগান জার্সি পড়ে এই অসভ্যতা যারা করছেন, তাদের চিহ্নিত করুন। তবেই নব্বই মিনিটের বাইরে জয় হবে ফুটবলের।

    First published:

    Tags: East Bengal, East Bengal Club, Football Match, Mohanbagan

    পরবর্তী খবর