Cyclone Yaas intensified: শক্তি বাড়িয়ে ক্ষিপ্র গতি ইয়াসের || দিঘা, বালাসোর, পারাদ্বীপ কোথা থেকে কত দূরত্ব সাইক্লোনের

এই মুহূর্তে বালাসোরের ছবি।

Cyclone Yaas intensified:ইয়াস স্থলভাগে প্রবেশ করবে পারাদ্বীপ ও সাগরের মধ্যবর্তী অঞ্চল দিয়ে।

  • Share this:

    কলকাতা: অতি শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হয়েছে ইয়াস। এই প্রতিবেদন লেখার সময়ে (সকাল ৬টা) ইয়াসের অবস্থান পারাদ্বীপ থেকে ৯০ কিলোমিটার দূরে। দিঘা থেকে ১০০ কিলোমিটার দূরে এবং বালাসোর থেকে ১০৫ কিলোমিটার দূরে। ভোর সারে চারটেয় দেওয়া মৌসম ভবনের বুলেটিন অনুযায়ী, ইয়াস ক্রমেই উত্তর-উত্তর পশ্চিম অভিমুখী হবে। ওড়িশার ধামরা উপকূলের দিকে এগোবে সাইক্লোন। ইয়াস স্থলভাগে প্রবেশ করবে পারাদ্বীপ ও সাগরের মধ্যবর্তী অঞ্চল দিয়ে। সেই সময়ে ঝড়ের গতিত থাকবে অন্তত ১৫৫ কিলোমিটার। আর এই দাপটেই লন্ডভন্ড হতে পারে এই অঞ্চলের জনবসতি।

    সর্বশেষ আপডেট অনুযায়ী, সাইক্লোনের অবস্থান উত্তর পশ্চিম বঙ্গোপসাগরে ২০ ডিগ্রি ৭ মিনিট অক্ষাংশ ও ৮৭ ডিগ্রি ৪৫ মিনিট দ্রাঘিমায়। আবহিদরা আগে জানিয়েছিলেন ল্যান্ডফল শুরু হওয়ার সম্ভাবনা ছিল সকাল ৮ টায়। কিন্তু সাইক্লোনের গতি দেখে তাদের অভিমত, এটি ১১ টায় ল্যান্ডফল শুরু করবে। এই মুহূর্তে সাইক্লোনটটি ঘণ্টায় ১২ কিলোমিটার বেগে এগোচ্ছে। প্রথমদিকে ঘন্টায় মাত্র ২কিমি বেগে এগোচ্ছিল যশ। পরে তা বেড়ে দাঁড়িয়েছিল ঘন্টায় ৯কিমি। যশ যত স্থলভূমির দিকে এগোবে ততই তার গতিবেগ বৃদ্ধি পাবে, সেই সঙ্গে বাড়বে তার শক্তিও। হাওয়া অফিস বলছে সাইক্লোনটি বাংলায় সবচেয়ে বেশি প্রভাব ফেলবে পূর্ব মেদিনীপুরে। ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে দুই মেদিনীপুর ও দক্ষিণ চব্বিশ পরগণায়। ভারী বৃষ্টি হবে কলকাতা, হাওড়া, হুগলি, উত্তর চব্বিশ পরগণার বিভিন্ন স্থানে।

    ঘূর্ণিঝড়ের কথা মাথায় রেখে একদিকে যেমন জেলায় জেলায় বাঁধ মেরামতি, বিদ্যুতের খুঁটি ঠিক করা, গাছ ছাটার কাজ হয়েছে তেমনই বুধবার সকাল ৮ থেকে সন্ধ্যে সাতটা ৪৫ মিনিট পর্যন্ত বিমান চলাচল বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

    Published by:Arka Deb
    First published: