• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • ANUBRATA MANDAL REACHED SSKM HOSPITAL FOR SHOWING SOLIDARITY TO YOUTH TMC LEADERS AKD

Anubrata Mandal: ত্রিপুরায় আক্রান্ত যুবনেতাদের দেখতে কলকাতায় তাঁদের 'কেষ্টদা', হুঙ্কার ছাড়লেন হাসপাতাল থেকেই

হাসপাতালে সুদীপদের দেখতে এলেন অনুব্রত মণ্ডল।

Anubrata Mandal: অনুব্রত বলে গেলেন, তিনি আছেন। দল বললেই তিনিও ঝাঁপিয়ে পড়বেন বাকিদের সঙ্গে নিয়ে।

  • Share this:

#কলকাতা: সবটাই দেখেছেন টিভি'তে। সবটাই পড়েছেন খবরের কাগজে। বাকি খোঁজ খবর নিয়েছেন দলের সহকর্মীদের থেকে। এবার এসে দেখে গেলেন সেদিনের ঘটনার যারা সাক্ষী তাঁদের। বলে গেলেন, তিনি আছেন। দল বললেই তিনিও ঝাঁপিয়ে পড়বেন বাকিদের সঙ্গে নিয়ে।

কথা হচ্ছে অনুব্রত মন্ডলকে নিয়ে। বীরভূমের তৃণমূল জেলা সভাপতি এসএসকেএম হাসপাতালে এসেছিলেন সুদীপ-জয়াদের দেখতে। আর সেখানেই তিনি বলছেন, "বাংলাতেও গোটা কেন্দ্রীয় মন্ত্রীসভা উড়িয়ে নিয়ে এসেছিল। মোদী-শাহ একাধিকবার এসেছেন। কিন্তু কাজের কাজ কিছুই হয়নি। ত্রিপুরাতেও এবার বিজেপি সরবে।"

শুধু নিজের রাজ্যে নয়, তাঁকে পাশে পেতে চেয়ে এবার আবেদন আসছে ভিন রাজ্য থেকেও। কেষ্টদা'কে পেতে যেন কষ্ট করতেও যেন ইচ্ছুক ভিন রাজ্যের তৃণমূল নেতারা। আগামী মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহেই রাজ্যে আসছেন ত্রিপুরার তৃণমূল নেতৃত্ব। উত্তর-পূর্বের এই ছোট রাজ্যে আগামী দিনে কী পরিকল্পনা করে দল এগোবে, তা জানতেই মমতা বন্দোপাধ্যায় ও অভিষেক বন্দোপাধ্যায়ের সাথে সাক্ষাৎ করতে চান তাঁরা। আর সেই পর্বে এসে তাদের আবদার, একটি বার যদি দেখা পাওয়া যায় কেষ্ট দা'র অর্থাৎ বীরভূমের জেলা তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলের।

বিজেপি বিরোধিতায় ইতিমধ্যেই ত্রিপুরায় আন্দোলন কর্মসূচি শুরু করে দিয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। কিন্তু রাজনৈতিক ভাবে বিজেপির মোকাবিলা কীভাবে করবেন, তা নিয়ে মতামত চাইছেন তাঁরা। ত্রিপুরার তৃণমূল নেতারা চাইছেন, মমতা বন্দোপাধ্যায় ও অভিষেক বন্দোপাধ্যায় একবার ত্রিপুরায় আসুন। তাঁদের দেখলে আরও উজ্জীবিত হবেন দলের কর্মী-সমর্থকরা। আর ত্রিপুরা জুড়ে হাওয়া তুলতে তাঁরা চাইছেন এখন থেকেই আসুন অনুব্রত মণ্ডল ওরফে কেষ্ট। কিন্তু কেষ্ট কেন?

ত্রিপুরা তৃণমূলের নেতা আশিষলাল সিং জানাচ্ছেন, "কেষ্ট দা'র মধ্যে একটা ব্যাপার আছে৷ ওনার গরম-গরম বক্তব্য ভীষণ আকৃষ্ট করে মানুষকে। ওনার একাধিক বক্তব্য ভাইরাল। আমাদের রাজ্যেও ওনার বক্তব্য শুনে শুনে এমন অভ্যাস হয়ে গেছে যে কেষ্ট দা'র ডায়লগ সবাই বলতে শুরু করেন। তাই দিদি ও অভিষেকের পাশাপাশি আমাদের আবদার থাকবে অনুব্রত মণ্ডলকে ত্রিপুরায় মাঝে মাঝে পাঠানো হোক।"

কখনও 'চড়াম-চড়াম', কখনও আবার 'গুড়-বাতাসা', কখনও আবার বিরোধীদের তাঁর কন্ঠে যেভাবে তিনি আক্রমণ শানিয়েছেন, তাতে ত্রিপুরা জুড়ে ব্যাপক অনুগামী তৈরি হয়েছে অনুব্রত মণ্ডলের। সেই কারণেই কলকাতায় এসে মমতা-অভিষেককে আমন্ত্রণের পাশাপাশি তাঁরা আবেদন জানিয়ে যাবেন, অনুব্রত মণ্ডলকে ত্রিপুরায় নিয়ে যাওয়ার জন্যে। ত্রিপুরার ৮ জেলা থেকে প্রায় ২০ জনের প্রতিনিধি দল আসবে কলকাতায়। তাঁরা জেলাওয়ারি রাজনৈতিক অবস্থান জানাবে মমতা-অভিষেককে। ছাত্র-যুব-মহিলা-সংখ্যালঘু-তফশিলী সহ সব বিভাগের প্রতিনিধিরা দেখা করতে চান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে।

Published by:Arka Deb
First published: