corona virus btn
corona virus btn
Loading

রাজ্যের ব্যাখ্যা পাওয়ার পরই বাজেটে অনুমোদন দিলেন রাজ্যপাল

রাজ্যের ব্যাখ্যা পাওয়ার পরই বাজেটে অনুমোদন দিলেন রাজ্যপাল

একঘন্টার আলোচনাতে অবশেষে সন্তুষ্ট হয়ে মুখ্য সচিবের সামনেই অনুমোদন দেন রাজ্য বাজেটের

  • Share this:

#কলকাতা: অবশেষে রাজ্য বাজেটে অনুমোদন দিলেন রাজ্যপাল জাগদীপ ধনখর। শুক্রবার রাজভবনে মুখ্য সচিব ও অর্থ সচিব কার্যত বাজেট নিয়ে গিয়ে হাজির হন রাজ্যপালের কাছে। এক ঘন্টার আলোচনাতেই সন্তুষ্ট হয়ে রাজ্য বাজেট অনুমোদন দিলেন রাজ্যপাল। অনুমোদন দেওয়ার পাশাপাশি রাজ্যকে খোঁচা দিলেন রাজ্যপাল। শুক্রবার সন্ধ্যায় এক বিবৃতিতে উল্লেখ করেন, বাজেট নিয়ে অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্র আলোচনাতে এলেও নির্দিষ্ট তথ্য না নিয়ে আশায় বাজেটের অনুমোদন দেওয়া যাচ্ছিল না। এদিকে শুক্রবার বিধানসভাতে মুখ্যমন্ত্রী ও রাজ্যপালকে বাজেট অনুমোদন করার জন্য অনুরোধও জানান। গত ১০ই জানুয়ারি রাজ্যের অর্থ দফতরের তরফে বাজেট অনুমোদনের জন্য রাজভবনে ফাইল পাঠানো হয়েছিল। ফাইল পাঠানো হলেও তার পরিপ্রেক্ষিতে নির্দিষ্ট তথ্য দেয়নি রাজ্য অর্থ দফতর। তার জেরে সন্তুষ্ট না হয়ে গত ১৫ই জানুয়ারি অর্থ দপ্তরে ফাইল ফেরতও পাঠিয়ে দেন রাজ্যপাল। ফাইল ফেরত পাঠানোর সঙ্গে সঙ্গে রাজভবনের তরফে জানানো হয় বাজেটের পক্ষে নির্দিষ্ট তথ্য না পাওয়ায় অনুমোদন দেওয়া যাচ্ছে না। রাজভবনের তরফে ফাইল ফেরত পাঠানো হলেও গত তিন সপ্তাহ ধরে অবশ্য অর্থ দপ্তরের কোন উত্তর আসেনি রাজভবনে। রাজভবন সূত্রের খবর, তা নিয়ে খানিকটা ক্ষুব্ধ হন রাজ্যপাল। শেষমেষ গত সোমবার শিক্ষা মন্ত্রীকে সঙ্গে নিয়ে অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্র রাজ্যপালের কাছে গেলেও অনুমোদন হয়নি রাজ্য বাজেটের। ওইদিনই রাজ্যপাল জানিয়ে দিয়েছিলেন সংবিধান অনুযায়ী তিনি কাজ করবেন। অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্র আলোচনাতে গেলেও নির্দিষ্ট তথ্য না নিয়ে আসায় খালি হাতেই ফিরতে হয়েছিল অর্থমন্ত্রী ও শিক্ষামন্ত্রীকে। শুক্রবার বাজেট অধিবেশন শেষে রাজ্য বাজেট নিয়ে অর্থ বিভাগের প্রিন্সিপাল একাউন্টেন্ট জেনারেলদের নিয়ে আধ ঘণ্টা বৈঠক করেন রাজভবনে। মূলত রাজ্যের আর্থিক হিসাব নিয়েই মতামত নেন ওই বৈঠকে বলেই রাজভবন সূত্রে জানা গেছে। যদিও তার পরপরই মুখ্য সচিব ও অর্থ সচিবের সঙ্গেও বৈঠক করেন রাজ্যপাল। বৈঠকে মুখ্য সচিব রাজ্যপালের চাওয়া ব্যাখ্যার উত্তর দেন। একঘন্টার আলোচনাতে অবশেষে সন্তুষ্ট হয়ে মুখ্য সচিবের সামনেই অনুমোদন দেন রাজ্য বাজেটের।

সোমরাজ বন্দ্যোপাধ্যায়

First published: February 8, 2020, 12:57 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर