Corona Virus | TB | Health | করোনা সেরে গেলে শরীর দেখা দিচ্ছে টিবি ! রক্ষা পেতে জানুন কি করতে হবে

photo source collected

Corona Virus | TB | সম্প্রতি করা একটি গবেষণায় পাওয়া গিয়েছে করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর টিবি রোগীর সংখ্যা বাড়ছে।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: চিকিৎসকরা আগেই সতর্ক করেছিলেন করোনা থেকে সেরে ওঠার পর অন্য রোগে আক্রান্ত হওয়ার ঘটনা সামনে আসবে। সেই মতো আশঙ্কা বাড়িয়ে সামনে এসেছে টিবির (TB) মতো মারাত্মক রোগ। টিবি আক্রান্তরাও করোনার মতোই শ্বাসকষ্টজনিত ফুসফুসের রোগে ভুগছেন। সম্প্রতি করা একটি গবেষণায় পাওয়া গিয়েছে করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর টিবি রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। কর্নাটকে মোট ২৪টি কেস ধরা পড়েছে, যাঁদের প্রত্যেকেই করোনা সংক্রমণ থেকে সুস্থ হয়ে উঠেছেন, কিন্তু আপাতত আক্রান্ত হয়েছেন টিবি-তে। কর্নাটক সরকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে মারাত্মক করোনা সংক্রমণ থেকে সেরে ওঠা ২৮ লক্ষ মানুষের বাড়িতে গিয়ে টিবি পরীক্ষা করার। বর্তমানে এমন কেস শুধু কর্নাটক নয় সারা দেশের মানুষকে নিয়ে চিন্তা বাড়িয়ে তুলছে। বিশেষজ্ঞদের মতে টিবিতে আক্রান্তের সংখ্যা ১৫ থেকে ১০ শংতাশ হতে পারে। একটি রিপোর্টে বলা হয়েছে বেশিরভাগ রোগীই ২ মাস আগে করোনা থেকে সেরে উঠেছেন। তার পরই টিবি ধরা পড়েছে। কর্নাটকের মতো কেরলেও সমীক্ষা করা হচ্ছে তবে সেটা বাড়ি বাড়ি গিয়ে নয়, বরং টেলিফোনের মাধ্যমে।

কর্নাটকের স্বাস্থ্যমন্ত্রী ড. কে সুধাকর (Dr. K. Sudhakar) বলেন, “টিবিতে আক্রান্ত ২৪ জনকে সনাক্ত করা হয়েছে যাঁদের আগে করোনা পজিটিভ হওয়ার রেকর্ড রয়েছে। তাই রাজ্যের মানুষের স্বার্থে করোনা থেকে সেরে ওঠা মানুষদের স্ক্রিনিং শুরু করা হয়েছে। করোনা মানবদেহের ফুসফুসে সংক্রমণ ঘটায়, ঠিক তেমনই টিবিও ফুসফুসের ক্ষতি করে। তাই আগে থেকে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে যাতে সকলকে সময়ের মধ্যে সুস্থ করা যায়”।

চিকিৎসকদের মতে করোনা সংক্রমণের কারণে রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা দুর্বল হয়ে পড়ে। ফলে টিবি হওয়ার ঝুঁকি বেড়ে যায়। নারায়ণ মাল্টিস্পেশ্যালিটি হাসপাতালের (Narayana Multispeciality Hospital) পালমোনোলজির কনসালট্যান্ট ড. দুবের (Dr. Dubey) মতে, “মারাত্মক করোনা সংক্রমণের ঝুঁকি এড়াতে স্টেরয়েড এবং অন্যান্য কিছু ওষুধ ব্যবহার করার ফলে রোগীর শরীরে রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা দুর্বল হয়ে যেতে পারে। তাই পরবর্তীতে টিবির মতো জটিল রোগের সংক্রমণ দেখা দিতে পারে ”।

ইতিমধ্যে ব্রাজিল, রাশিয়া, ভারত এবং দক্ষিণ আফ্রিকা যৌথ ভাবে টিবি রোগে করোনার প্রভাব নিয়ে গবেষণা চালাচ্ছে। বিশ্বের এই চারটি দেশেই টিবি রোগীর সংখ্যা সব চেয়ে বেশি। চিকিৎসকদের মতে করোনা থেকে সেরে ওঠার ৪-৬ সপ্তাহ পর যদি রোগীর শ্বাস নিতে অসুবিধা হয়, তবে তখনই চিকিৎসকের পরামর্শ মতো সমস্ত পরীক্ষা করাতে হবে। এছাড়াও ডায়াবেটিস ও হাই ব্লাড প্রেসারের রোগীদের ক্ষেত্রেও টিবির ভয় থাকছে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

Published by:Piya Banerjee
First published: