নতুন মিশনে শ্রাবন্তী, এবার আর্সেনিকের বিরুদ্ধে লড়াই নায়িকার

নতুন মিশনে শ্রাবন্তী, এবার আর্সেনিকের বিরুদ্ধে লড়াই নায়িকার

শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়। কারণে অকারণে সব সময়েই খবরে থাকেন তিনি।

  • Share this:

#কলকাতা: শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়। কারণে অকারণে সব সময়েই খবরে থাকেন তিনি।তাঁর একটা ভিডিও পোস্ট হওয়া মানেই তা একেবারে ভাইরাল।এ ছাড়া নিজের ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে কম ট্রোলের মুখে পড়তে হয়নি শ্রাবন্তীকে। তিনবার বিয়ে থেকে নিজের ছেলে ঝিনুক, সারাক্ষণ ট্রোল্ড হয়েছেন দুষ্টু-মিষ্টি এই তারকা। তবে এবারে অন্য ভূমিকাতে দেখা যাবে শ্রাবন্তীকে। এবারে সমাজের জন্য কাজ করবেন তিনি। লড়বেন আর্সেনিকের বিরুদ্ধে।

আর্সেনিক আমাদের দেশ তথা রাজ্যের একটি বিশাল বড় সমস্যা যার জন্য প্রয়োজন যথেষ্ট সচেতনতা। বারবার এটা নিয়ে প্রচার হলেও গ্রামের মানুষ থেকে শহরের মানুষ কারোরই যেন হুশ ফেরানো যাচ্ছে না। এবারে সেই সচেতনতা মানুষের মনের ভেতরে রীতিমতন গেঁথে দিতে বদ্ধ পরিকর শ্রাবন্তী।

তবে তাঁকে এই বিশেষ সামাজিক কাজ করতে দেখা যাবে তার নতুন ছবি উড়ান-এ। এই ছবিতে শ্রাবন্তীকে দেখা যাবে পৌলমীর চরিত্রে। পৌলোমী একটি সাধারণ মধ্যবিত্ত পরিবারের সন্তান। তার অনেক স্বপ্ন। কিন্তু সে যখন দেখে তারই গ্রামের মানুষদের আর্সেনিক আস্তে আস্তে গ্রাস করে ফেলতে শুরু করেছে,তখন পৌলোমী সিদ্ধান্ত নেয় সে তার বিরুদ্ধে লড়াই করবে। সচেতন করবে গ্রামের সাধারণ সরল সোজা মানুষগুলোকে পাওয়া গেল শ্রাবন্তীকে ,সুপারহিট কমার্শিয়াল ছবি ছেড়ে হঠাৎ এই ধরণের একটা ছবিতে কেন রাজি হলেন তিনি? শ্রাবন্তী সাফ জানালেন "দেখো আমাদে চারপাশে কত কি তো ঘটে যায়, কিন্তু আমরা সেটা নিয়ে কতটাই বা কি করতে পারি? কিন্তু ছবির মাধ্যমে কিছু বললে, অনেক মানুষের কাছে পৌঁছে যায় যে কোনো বার্তা খুব সহজেই। সেক্ষেত্রে আমার মনে হয়েছে আর্সেনিকের মতন বিষয়ে নিয়ে যখন আমার একটা সোশ্যাল মেসেজ দেওয়ার সুযোগ রয়েছে তাহলে সেটা আমি কেন করব না? এখানে যে পৌলমীর চরিত্রে আমাকে দেখা যাবে, সেক্ষেত্রে আমি নিশ্চিত এরকম অনেক পৌলোমী আমার মতন লড়াই করে যাচ্ছে প্রতিনিয়ত। তাদের একজন হওয়ার জন্যই আমি মনে করি এটা দারুন একটা সুযোগ"৷

এই ছবিতে শ্রাবন্তীর সঙ্গে রয়েছেন সাহেব ভট্টাচার্য। এই প্রথমবার এক সঙ্গে কাজ করছেন এই দুই অভিনেতা। সাহেব মনে করেন এখনকার ছবিতে অনেক রিয়ালিস্টিক আ‍্যপ্রোচ আছে। এখানে দারুন একটা মেসেজ রয়েছে যেটা খুব কম ছবিতে দেখা যায়। শ্রাবন্তীর মতন সেও এই ছবিতে আর্সেনিকের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ায়।

ছবির পরিচালক ত্রিদিব রামানের এটি প্রথম প্রজেক্ট। নিজে বাঙালি না হয়েও,এই রাজ্যের মানুষ না হয়েও বাংলাকে আর বাংলা ভাষাকে তার নতুন ছবির জন্য বেছে নিয়েছেন তিনি। তাঁর এই ছবি যে আর্সেনিক নিয়ে খানিকটা হলেও সচেতনতা বাড়াতে সাহায্য করবে সে বিষয়ে নিশ্চিত পরিচালক ত্রিদিব।

First published: 08:07:27 PM Jan 09, 2020
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर