টাইটানিকের আলাদা শেষদৃশ্য ভাইরাল, ভিডিও দেখেছেন?

টাইটানিকের আলাদা শেষদৃশ্য ভাইরাল, ভিডিও দেখেছেন?

কী ছিল আলাদা দৃশ্যটি?

যদি নায়িকা রোজ বহু মূল্যবান দ্য হার্ট অফ দ্য ওসিয়ান নেকলেসটি সমুদ্রে ফেলে দিতেন, তাহলে কী হত?

  • Share this:

#ক্যালিফোর্নিয়া: জাহাজ ডুবে যাওয়ার পর বরফগলা জলে একটি কাঠের পাটাতনে একে অন্যের জীবন বাঁচাতে ব্যস্ত প্রেমিক-প্রেমিকা। আজও ভোলা যায় না টাইটানিকের (Titanic) সেই বিখ্যাত দৃশ্য। ছবিটি সেখানেই শেষ হয়ে যায়। তবে অনেকের মনেই বহু প্রশ্ন থেকে যায়। এর পর কী হয়েছিল? রোজ কি বাঁচিয়েছিল জ্যাককে? আচ্ছা এই সব জল্পনার ভিড়ে সিনেমার শেষ দৃশ্যটা যদি একটু অন্যরকম হত? যদি নায়িকা রোজ বহু মূল্যবান দ্য হার্ট অফ দ্য ওসিয়ান নেকলেসটি সমুদ্রে ফেলে দিতেন, তাহলে কী হত?

সম্প্রতি, টাইটানিকের এই মজাদার ক্ল্যাইম্যাক্সটি পোস্ট করেছেন প্যাট ব্রেনান (Pat Brennan)। এই অল্টারনেটিভ ক্লাইম্যাক্স ভিডিও ক্লিপে দেখা যাচ্ছে, রত্নসন্ধানী ব্রক লভেট (Brock Lovett) ও তাঁর টিমের লোকজন রীতিমতো ঘিরে ধরেছে বয়স্ক রোজকে। তাঁদের সবার পাখির চোখ রোজের গলার ওই বহু মূল্যবান নেকলেসটির দিকে। জ্যাকের আঁকা ছবিতেও মিলেছিল সেই নেকলেসের চিহ্ন। আর ঠিক এখানেই বেশ জমে উঠেছে এই নতুন ভার্সনের ক্ল্যাইম্যাক্স। হঠাৎই বয়স্ক রোজ অর্থাৎ গ্লোরিয়া স্টুয়ার্ট (Gloria Stuart) গলার ওই বহু মূল্যবান নীলার নেকলেসটি জলে ফেলে দেন। আর ধীরে ধীরে সমুদ্রের জলে মিলিয়ে যায় নেকলেস। এদিকে নেকলেসটা ছুড়ে দেওয়ার পর ব্রক লভেটের টিমের একজন রোজের উপরে রীতিমতো রেগে ওঠেন। চলতে থাকে কথোপকথন।

২ মিনিট ২০ সেকেন্ডের এই ভিডিও ক্লিপ ইতিমধ্যেই ব্যাপক মাত্রায় ভাইরাল হয়েছে। গত সপ্তাহে পোস্ট করা হয়েছিল ভিডিওটি। সপ্তাহ খানেকের মধ্যেই ভিউজ পেরিয়েছে ১.৩ মিলিয়ন। Twitter-এ ৬.২ হাজারের বেশি রি-ট্যুইট ও ৪২.২ হাজারের বেশি লাইক পড়েছে।

https://twitter.com/patbrennan88/status/1361778751072137222 https://twitter.com/Meg_Bobb/status/1361786490653609986

নব্বইয়ের দশকের জনপ্রিয় এই ছবির একদম অন্য ভার্সন তথা ভিডিও ক্লিপ দেখে অনেকেই বিস্ময় প্রকাশ করেছেন। এটি আদৌ সত্য কি না তা প্রায় সবাই জানতে চেয়েছেন। অনেকে আবার নানা ধরনের মজাও শুরু করেছেন।

https://twitter.com/MikeyD_OandBP/status/1361778918152355840 https://twitter.com/adi1486/status/1361804183599534083

এক ব্যবহারকারী খানিকটা অবাক হয়ে প্রশ্ন করেছেন, সিনেমাটি কি সত্যি ১৪টি অস্কার নমিনেশন পেয়েছিল? সত্যি কি ছবির নির্মাতারাই এই ক্লাইম্যাক্স ভার্সনটি রিলিজ করেছেন? এরকমই একাধিক প্রশ্ন ও বিভ্রান্তি তৈরি হয়েছে নেটিজেনদের একাংশের মনে। আর তা স্পষ্ট হয়ে উঠেছে কমেন্ট বক্সেও।

https://twitter.com/jdr99991/status/1361846542764830721

আপনি কি ভাবছেন, কেমন হতে পারে টাইটানিকের ক্ল্যাইম্যাক্স? আপাতত ট্যুইটের মজা নেওয়া যাক!

শোভন চন্দ

First published:

লেটেস্ট খবর