‘ প্রতিভার গুরুত্ব নেই, ভুয়ো দারিদ্রের গল্পই মুখ্য’, রিয়্যালিটি শো-কে তুলোধনা করলেন অভিজিৎ সাওয়ন্ত

অভিজিৎ সাওয়ন্ত, ছবি-ফেসবুক

প্রাক্তন ইন্ডিয়ান আইডলজয়ী এই শিল্পী তীব্র ভাষায় আক্রমণ করেছেন রিয়্যালিটি শো-কে ৷ তাঁর কথায়, এই মঞ্চে দারিদ্রের ভুয়ো গল্প বেশি বিক্রি হয় প্রকৃত প্রতিভার তুলনায় ৷

  • Share this:

    মুম্বই : রিয়্যালিটি শো-এর হাত ধরেই তাঁর উত্থান ৷ কিন্তু বিনোদন দুনিয়ার সেই মঞ্চকেই তুলোধনা করলেন অভিজিৎ সাওয়ন্ত ৷ প্রাক্তন ইন্ডিয়ান আইডলজয়ী এই শিল্পী তীব্র ভাষায় আক্রমণ করেছেন রিয়্যালিটি শো-কে ৷ তাঁর কথায়, এই মঞ্চে দারিদ্রের ভুয়ো গল্প বেশি বিক্রি হয় প্রকৃত প্রতিভার তুলনায় ৷

    তবে গায়কের কিছুটা হলেও সমর্থন আছে আঞ্চলিক রিয়্যালিটি শো-এর দিকে ৷ তিনি মনে করেন, সেখানে প্রতিযোগীদের প্রেক্ষাপট নিয়ে কেউ বিশেষ জানে না৷ সকলে তাঁদের গানে মনোযোগ দেন ৷ কিন্তু হিন্দি রিয়্যালিটি শো-এ প্রতিযোগীদে্র জীবনের দুঃখের অংশকে ভাঙিয়ে পর্ব চালানো হয় ৷ সব গুরুত্ব তার উপরেই ৷

    তিনি নিজেরই উদাহরণ দিয়েছেন ৷ তাঁর মনে পড়ে গিয়েছে, এক বার রিয়্যালিটি শো-এর মঞ্চে তিনি গানের কথা ভুলে গিয়েছিলেন ৷ কিন্তু বিচারকরা তাঁকে দ্বিতীয় সুযোগ দিয়েছিলেন ৷ অভিজিৎ মনে করেন, সেই ঘটনা এখনকার সময়ে হলে ওই মুহূর্তকে চরম নাটকীয় তৈরি করা হত ৷

    তবে অভিজিৎই প্রথম নন ৷ এর আগে কিশোরকুমারের ছেলে অমিতকুমারও ‘ইন্ডিয়ান আইডল’-এর সমালোচনা করেছিলেন ৷ কিশোর কুমারকে নিয়ে বিশেষ পর্ব তাঁর ভাল লাগেনি ৷ পছন্দ হয়নি প্রতিযোগীদের গায়কি ৷ পরে তিনি ক্ষোভে ফেটে পড়েছিলেন ৷ বলেছিলেন, তাঁকে বলা হয়েছিল বাজে গান করলেও প্রতিযোগীদের প্রশংসা করতে হবে ৷ তাছাড়া শো-এর আবহে প্রতিযোগীদের মধ্যে প্রেমের নকল গল্প তৈরি করাও তাঁর পছন্দ হয়নি ৷

    সঞ্চালক আদিত্য নারায়ণও স্বীকার করেছিলেন ‘ইন্ডিয়ান আইডল’-এ প্রেমের গল্প তৈরি করা হয় ৷ কিন্তু তাঁর দাবি, এ সবই নিছক বিনোদনের উদ্দেশে করা হয় ৷ অল্প বয়সি প্রতিযোগীদের মধ্যে সত্যি যদি কেউ কারও প্রেমে পড়েন, তাহলে তাঁদের শুভেচ্ছা থাকে ৷ আর যদি তা না হয়, তবে সেটা তাঁদের ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত ৷ ইন্ডিয়ান আইডল-এর গত মরসুমে আদিত্য এবং নেহা কক্করের মধ্যে কাল্পনিক প্রেমও ছিল বহু চর্চিত ৷

    এই পরিস্থিতিতে সমালোচকদের প্রশ্ন, ‘রিয়্যালিটি শো-এ রিয়্যালিটি কোথায়?’

    Published by:Arpita Roy Chowdhury
    First published: