corona virus btn
corona virus btn
Loading

নৃশংস! জলখাবার দিতে দেরি, মেয়ের সামনেই মাকে জীবন্ত পুড়িয়ে মারল বাবা-দাদু

নৃশংস! জলখাবার দিতে দেরি, মেয়ের সামনেই মাকে জীবন্ত পুড়িয়ে মারল বাবা-দাদু

জলখাবার দিতে দেরি হয়েছিল বলেই স্ত্রীকে পুড়িয়ে মারার অভিযোগ

  • Share this:

#মুর্শিদাবাদ: এক গৃহবধূকে আগুনে পুড়িয়ে মারার অভিযোগ উঠল স্বামী-সহ শ্বশুরবাড়ির বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার রাতে মুর্শিদাবাদের বেলডাঙার বাজারে। জলখাবার দিতে দেরি হয়েছিল বলেই স্ত্রীকে পুড়িয়ে মারার অভিযোগ স্বামী ও শ্বশুরের বিরুদ্ধে। গুরুতর আহত অবস্থায় বেলডাঙ্গা হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা মৃত বলে ঘোষণা করে। বেলডাঙা থানার পুলিশ স্বামী অনিরুদ্ধ দাস ও শ্বশুর অনিল দাসকে গ্রেফতার করেছে।

বছর ১৮ আগে প্রতিমার বিয়ে হয় অনিরুদ্ধের সঙ্গে। পেশায় ডেকোরেটরের কর্মী। বিয়ের পর থেকেই স্ত্রীয়ের উপরে অত্যাচার চালাত বলে অভিযোগ। একাদশ শ্রেণির ছাত্রী বলেন, 'শনিবার সকালে জল খাবার দিতে দেরি হয় বলে মাকে প্রচন্ড গালাগালি করে বাবা। এরপর আমি কোনরকম ভাবে শান্ত করি। রাতে খাবার খেয়ে পর ঘুমিয়ে পড়েছিলাম। হঠাৎ শুনতে পাই মায়ের আর্তনাদ। ঘর থেকে বের হতেই দেখি মা দাউ দাউ করে জ্বলছে। বাবা আমার হাত ধরে নেয়। মায়ের গায়ে জল দিতেও দেয়নি। চোখের সামনে মা জ্বলতে জ্বলতে পড়ে গেল। বাবা আর দাদু নিজের হাতেই পুড়িয়ে মারল মাকে। চরম চরম শাস্তি চাই ওদের।'

মৃতের পরিবার বেলডাঙা থানা লিখিত অভিযোগ করে, এই ঘটনায় স্বামী-শ্বশুরকে আটক করেছে বেলডাঙা থানার পুলিশ, মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য বহরমপুর মেডিকেল কলেজ পাঠায়, ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে বেলডাঙা থানার পুলিশ ৷

Pranab Kumar Banerjee

Published by: Ananya Chakraborty
First published: April 5, 2020, 6:47 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर