সুইসাইড নোটের সঙ্গে রেখে গেলেন শ্মশান খরচ ! আত্মঘাতী গোটা পরিবার

সুইসাইড নোটের সঙ্গে রেখে গেলেন শ্মশান খরচ ! আত্মঘাতী গোটা পরিবার

একের পর এক রহস্য বেড়েই চলেছে গুলশন বাসুদেবের আত্মহত্যার ঘটনাকে ঘিরে ৷

  • Share this:

#গাজিয়াবাদ: গাজিবাদের এই ঘটনা রীতিমতো তাক লাগিয়েছে সবাইকে ৷ পুলিশ থেকে গোয়েন্দা, এলাকাবাসী কিছুতেই মেনে নিতে পারছেন না গোটা ঘটনা ৷ একের পর এক রহস্য বেড়েই চলেছে গুলশন বাসুদেবের আত্মহত্যার ঘটনাকে ঘিরে ৷

তা ঠিক কী ঘটেছে গাজিয়াবাদে?

পুলিশ সূত্রে পাওয়া খবর অনুযায়ী, গাজিয়াবাদের বহুদিনের বাসিন্দা ব্যবসায়ী গুলসন বাসুদেব থাকতেন নিজের স্ত্রী ও দুই সন্তানকে নিয়ে ৷ বহুদিন ধরেই নাকি তাঁর ব্যবসা ক্ষতির মুখে পড়েছিল ৷ সুইসাইড নোটে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, গুলশন এই ব্যবসায়ীক ক্ষতির দায় দিয়েছেন নিজের আত্মীয়স্বজ্জনের ওপরই ৷ সুইসাইড নোটে গুলশন লিখেছেন, আপন লোকদের জন্যই বড় ক্ষতি হয়ে গেল ৷

পুলিশ সূত্রে পাওয়া আরও খবর অনুযায়ী, গুলশন ও তাঁর স্ত্রী প্রথমে তাঁদের সন্তানদের হত্যা করেন ৷ তারপর বাড়ির চারতলা থেকে লাফিয়ে আত্মঘাতী হন স্ত্রী ও বাসুদেব গুলশন৷

gzb-suicide-1

Loading...

তবে চমকে দেওয়ার মতো ঘটনা ৷ সুইসাইড নোটের সঙ্গে গুলশন রেখে গিয়েছেন কিছু ব্ল্যাঙ্ক চেক ও দুটি ৫০০ টাকার নোট ৷ তিনি লিখেছেন, এই টাকাই তাঁদের শ্মশান খরচ ! আমাদের সবাইকে এক সঙ্গেই দাহ করা হোক! শুধু তাই নয়, মৃত্যুর আগে দেওয়ালে লিখে গিয়েছেন, ‘আমাদের মৃত্যুর জন্য দায়ী রাকেশ ভার্মা !’

কে এই রাকেশ ভার্মা? তাঁর সঙ্গে বাসুদেবের কী সম্পর্ক সব কিছুই খতিয়ে দেখছে পুলিশ ৷

First published: 12:19:27 PM Dec 03, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर