রূপনারায়ণের তীরে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় উদ্ধার যুবকের মৃতদেহ !

রূপনারায়ণের তীরে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় উদ্ধার যুবকের মৃতদেহ !

মুখ এবং দেহের বিভিন্ন অংশ পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। পরিচয় গোপন রাখার উদ্দেশ্যেই আগুন লাগিয়ে পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে বলে পুলিশের ধারনা।

  • Share this:

#মহিষাদল: রূপনারায়ণের পাড় থেকে সাত সকালেই এক যুবকের মৃতদেহ উদ্ধার ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে মহিষাদলেত গেঁওখালি এলাকায়। অজ্ঞাত পরিচয় এক যুবকের মৃতদেহ আজ, সোমবার সকালে প্রথমেই দেখতে পান প্রাতভ্রমণকারীরা। দেখা যায়, হাত পা বাঁধা অবস্থায় দেহটি পড়ে রয়েছে নদীর তীরেই।

মুখ এবং দেহের বিভিন্ন অংশ পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। পরিচয় গোপন রাখার উদ্দেশ্যেই আগুন লাগিয়ে পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে বলে পুলিশের ধারনা। ঘটনাটি যে খুন, তাতে একপ্রকার নিশ্চিত পুলিশ। ইতিমধ্যেই মৃতদেহটি নদীর পাড় থেকে থানায় এনেছে মহিষাদল থানার পুলিশ। ঘটনাস্থলে পৌঁছে তদন্ত শুরু করেছেন হলদিয়ার এসডিপিও তন্ময় মুখোপাধ্যায়। পুলিশের প্রাথমিক ধারনা, অন্য কোথাও ভারী কিছু আঘাত করে, মারধর ও শ্বাসরোধ করে খুন করা হয়েছে এই যুবককে। পরে গেঁওখালির নদী পাড়ে এনে শরীরের বিভিন্ন অংশে আগুন লাগিয়ে জ্বালিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করা হয়েছে।

Sujit Bhowmik

First published: January 13, 2020, 11:10 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर