Corona In Bengal : ২৪ ঘণ্টায় রেকর্ড মৃত্যু রাজ্যে! আগামী ১৫ দিন বাড়তে পারে সংক্রমণ, সতর্ক থাকার বার্তা মুখ্যমন্ত্রীর

চব্বিশ ঘন্টায় মৃত্যু ১১৭ !

বৃহস্পতিবার করোনায় (Coronavirus Second Wave) মৃত্যুর নতুন রেকর্ড হল রাজ্যে। একদিনে রাজ্যে প্রাণ হারাল ১১৭ জন। তবে সক্রিয় করোনা রোগীর বৃদ্ধিতে লাগাম পরায় সামান্য বেড়েছে সুস্থতার হার।

  • Share this:

    #কলকাতা : করোনা সংক্রমণে বিপর্যস্ত বাংলা (West Bengal Corona)। বৃহস্পতিবার করোনায় (Coronavirus Second Wave) মৃত্যুর নতুন রেকর্ড হল রাজ্যে। একদিনে রাজ্যে প্রাণ হারাল ১১৭ জন। তবে সক্রিয় করোনা রোগীর বৃদ্ধিতে লাগাম পরায় সামান্য বেড়েছে সুস্থতার হার। সংক্রমণ ও রোগমুক্তিতেও নতুন রেকর্ড হয়েছে এদিন। রাজ্যে এই মুহূর্তে সক্রিয় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ২২ হাজার ৭৭৪ জন।

    করোনা ভাইরাসের তৃতীয় ঢেউ (Coronavirus Third Wave) নিয়ে ইতিমধ্যেই দেশ জুড়ে শুরু হয়েছে আতঙ্ক। দ্বিতীয় ঢেউ এর পর আরও কত ভয়ঙ্কর হয়ে উঠবে এই মারণ ভাইরাস। তাই নিয়ে চলছে পরীক্ষা নিরীক্ষা ও গবেষণা। পরিস্থিতি পর্যালোচনা করে তৎপর হয়েছে রাজ্য প্রশাসনও। বৃহস্পতিবার নবান্নে সাংবাদিক বৈঠকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Bandopadhyay) জানান, আগামী ১৫ দিন বাংলায় করোনা সংক্রমণের দাপট অত্যন্ত বাড়তে পারে। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, 'আমি কাউকে ভয় দেখাচ্ছি না, তবে সতর্ক হতে বলছি।" একইসঙ্গে প্রয়োজনে রাজ্যবাসীর পাশে থাকার আশ্বাসও দেন মুখ্যমন্ত্রী।

    বৃহস্পতিবার রাজ্যে ১৮,৪৩১ জনের দেহে করোনা সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। যা এক নতুন রেকর্ড। সুস্থ হয়েছেন ১৭,৪১২ জন। আর মৃত্যু হয়েছে ১১৭ জনের। যা এখনো পর্যন্ত সর্বোচ্চ। কলকাতায় মৃত্যু হয়েছে ৩৩ জনের। উত্তর ২৪ পরগনায় ৩৬ জনের। এর ফলে রাজ্যে মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হল ৯,৩৫,০৬৬। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১৭ হাজার ৪১২ জন। ফলে সুস্থতার সংখ্যা বেড়ে হল ৮,০০,৩২৮। আর মোট মৃত্যু বেড়ে হল ১১,৯৬৪।

    বৃহস্পতিবার রাজ্যে করোনার অ্যাক্টিভ কেসে বেড়েছে ৯০২টি। যার ফলে মোট অ্যাক্টিভ কেস বেড়ে বয়েছে ১,২২,৭৭৪ জন। সুস্থতার হার সামান্য বেড়ে হয়েছে ৮৫.৫৯ শতাংশ। বৃহস্পতিবার রাজ্যে রেকর্ড সংখ্যায় ৬০.১০৫টি করোনার নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। সংক্রমণের হার হয়েছে ৮.৬৮ শতাংশ।

    রাজ্যের সামগ্রিক করোনা পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে শুক্রবারই একগুচ্ছ বিধিনিষেধ আরোপ করেছিল রাজ্য সরকার। নির্দেশিকায় বলা হয়েছিল, পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত রাজ্যে বড় কোনও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান যেমন বিয়ে, অন্নপ্রাশন,শ্রাদ্ধানুষ্ঠান জলসা ইত্যাদি বন্ধ রাখা হবে। এদিকে গত শনিবার সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান সংক্রান্ত নতুন একটি নির্দেশিকা জারি করে রাজ্য সরকার। নতুন নির্দেশিকায় বলা হয়েছিল, বিয়েবাড়ির ক্ষেত্রে সর্বাধিক ৫০ জনকে আমন্ত্রণ জানানো যাবে। শুধু বিয়েবাড়ি নয়, অন্যান্য পারিবারিক অনুষ্ঠানের ক্ষেত্রেও একই নিয়ম প্রযোজ্য থাকবে। বিয়েবাড়়িতে করোনা সংক্রান্ত বিধি মেনে চলা যেমন মাস্ক পরা, স্যানিটাইজারের ব্যাবহার এবং সামাজিক দূরত্ববিধি মেনে চলা বাধ্যতামূলক।

    গত শুক্রবার রাজ্যের স্বাস্থ্য দফতরের তরফে একটি নির্দেশিকা জারি করা হয়। এই নির্দেশিকা অনুযায়ী, এদিন থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য রাজ্যের সমস্ত শপিং মল, শপিং কমপ্লেক্স, বিউটি পার্লার, সিনেমা হল, রেস্তোরাঁ, বার, স্পোর্টস কমপ্লেক্স, জিম,স্পা, সুইমিং পুল বন্ধ থাকবে।

    Published by:Sanjukta Sarkar
    First published: