• Home
  • »
  • News
  • »
  • coronavirus-latest-news
  • »
  • কোভিডে আক্রান্ত প্রশাসক অশোক ভট্টাচার্য, টানা তিন দিন বন্ধ থাকবে শিলিগুড়ি পুরসভা

কোভিডে আক্রান্ত প্রশাসক অশোক ভট্টাচার্য, টানা তিন দিন বন্ধ থাকবে শিলিগুড়ি পুরসভা

রিপোর্ট পজিটিভ আসায় বৃহস্পতিবার থেকে টানা তিন দিন বন্ধ থাকবে শিলিগুড়ি পুরসভা। পুরসভার কমিশনার সোনম ওয়াংদি ভুটিয়া জানান, পুরসভা স্যানিটাইজ করার জন্য প্রধান ভবন বন্ধ থাকবে। তবে জরুরী পরিষেবা জারি থাকবে।

রিপোর্ট পজিটিভ আসায় বৃহস্পতিবার থেকে টানা তিন দিন বন্ধ থাকবে শিলিগুড়ি পুরসভা। পুরসভার কমিশনার সোনম ওয়াংদি ভুটিয়া জানান, পুরসভা স্যানিটাইজ করার জন্য প্রধান ভবন বন্ধ থাকবে। তবে জরুরী পরিষেবা জারি থাকবে।

রিপোর্ট পজিটিভ আসায় বৃহস্পতিবার থেকে টানা তিন দিন বন্ধ থাকবে শিলিগুড়ি পুরসভা। পুরসভার কমিশনার সোনম ওয়াংদি ভুটিয়া জানান, পুরসভা স্যানিটাইজ করার জন্য প্রধান ভবন বন্ধ থাকবে। তবে জরুরী পরিষেবা জারি থাকবে।

  • Share this:

#শিলিগুড়ি: এবারে কোভিড আক্রান্ত শিলিগুড়ি পুরসভার প্রশাসক অশোক ভট্টাচার্য। গতকালই তাঁকে ভর্তি করা হয় মাটিগাড়ার উত্তরায়নের একটি নার্সিংহোমে। সেখানে রাতে ফের সোয়াবের নমুনা নেওয়া হয়। বুধবার দুপুরে রিপোর্ট পজিটিভ এসছে। স্বাভাবিকভাবেই উদ্বেগ বেড়েছে পুরসভায়।

গত সপ্তাহে জ্বরে আক্রান্ত হন তিনি। তিন দিন পর নেওয়া হয় লালা রসের নমুনা। গত শনিবার রিপোর্ট নেগেটিভ আসে অশোক ভট্টাচার্য এবং তাঁর স্ত্রী রত্নাদেবীর। গতকাল ফের অসুস্থ বোধ করেন শিলিগুড়ির বিধায়ক। জ্বর ছাড়াও ইউরিন ইনফেকশন এবং নিউমেনিয়ায় ভুগছিলেন। চিকিৎসকের পরামর্শে ভর্তি হন বেসরকারী হাসপাতালে। রিপোর্ট পজিটিভ আসায় আজ তাঁকে ভর্তি করা হল কাওয়াখালির কোভিড স্পেশাল হাসপাতালে। তাঁর সংস্পর্শে আসা পরিবারের লোকেদের সোয়াবের নমুনা পরীক্ষা করা হবে।

এদিকে তাঁর রিপোর্ট পজিটিভ আসায় বৃহস্পতিবার থেকে টানা তিন দিন বন্ধ থাকবে শিলিগুড়ি পুরসভা। পুরসভার কমিশনার সোনম ওয়াংদি ভুটিয়া জানান, পুরসভা স্যানিটাইজ করার জন্য প্রধান ভবন বন্ধ থাকবে। তবে জরুরী পরিষেবা জারি থাকবে। প্রশাসকের সংস্পর্শে যারা এসেছে তাদের চিহ্নিত করে তালিকা তৈরী করা হচ্ছে। প্রত্যেককেই ১৪ দিনের হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। সকলেরই লালা রসের নমুনা সংগ্রহ করে ল্যাবে পাঠানো হবে।

বেশ কয়েকজন প্রাক্তন কাউন্সিলর তাঁর সংস্পর্শে এসেছিলেন। যদিও তিনি গত ১০ জুন পুরসভায় শেষ এসেছিলেন। তারপর থেকেই অসুস্থ থাকায় আর আসেননি। প্রথম রিপোর্টও নেগেটিভ এসছে। প্রশ্ন হল প্রশাসকের তো ট্র‍্যাভেল হিস্ট্রি নেই। এটাই ভাবাচ্ছে স্বাস্থ্য ও প্রশাসনিক কর্তাদের। তবে আক্রান্ত একাধীক ওয়ার্ড পরিদর্শনে যান। এমনকী সুস্থ হয়ে ফিরে আসা বাসিন্দাদের সঙ্গে সরাসরি কথা বলেন। এদিকে সিপিএমের দার্জিলিং জেলার সম্পাদক জীবেশ সরকার জানান, মানুষের সেবার জন্যেই ঝুঁকি নিয়েছেন পুরসভার প্রশাসক তথা শিলিগুড়ির বিধায়ক। এখন তাঁর শারিরীক অবস্থা স্থিতিশীল। তিনি দ্রুত সুস্থ হয়ে ফের জন সেবায় নামবেন।

Partha Pratim Sarkar

Published by:Elina Datta
First published: