corona virus btn
corona virus btn
Loading

স্বাধীনতা দিবসে বাড়িতেই 'বসে আঁকো' প্রতিযোগিতা, শিশুদের উৎসাহ দিতে অভিনব উদ্যোগ

স্বাধীনতা দিবসে বাড়িতেই 'বসে আঁকো' প্রতিযোগিতা, শিশুদের উৎসাহ দিতে অভিনব উদ্যোগ
নতুন সময়ে নতুন ধরনের বসে আঁকো প্রতিযোগিতা।

অনেকে মজা করেই বলছেন, বাড়িতে বসে বসে আঁকো প্রতিযোগিতা হয়তো নিউ নর্মাল এর অন্যতম উদাহরণ।

  • Share this:

#কলকাতা: স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে প্রত্যেক বছরই পাড়ায় পাড়ায় আয়োজিত হয় বিভিন্ন অনুষ্ঠান। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান থেকে পাড়ায় পাড়ায় ফুটবল প্রতিযোগিতা। আর ছোট ছোট শিশুদের নিয়ে বসে আঁকো প্রতিযোগিতা। স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে এই ছবিগুলোই ছিল সবার পরিচিত। তবে চলতি বছর এই ছবিগুলো উধাও। করোনা পরিস্থিতির জেরে মানুষ আজ গৃহবন্দি। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা নিয়ম। এক জায়গায় জমায়েত করায় রয়েছে নিষেধাজ্ঞা। এই কঠিন সময়ে হয়তো সবচেয়ে সমস্যায় পড়েছেন শিশুরা। দীর্ঘদিন ধরে স্কুল বন্ধ। খেলাধুলা বন্ধ। অনলাইনে স্কুলের ক্লাস থেকে চলছে নাচ-গান শেখাও। এই পরিস্থিতির মধ্যে শিশুদের জন্য অভিনব উদ্যোগ নিল রাজারহাট-গোপালপুর বিধানসভার যুব তৃণমূল কংগ্রেস। স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে রাজারহাট-গোপালপুর বিধানসভার অন্তর্গত শিশুদের জন্য বাড়িতে বসেই বসে আঁকা প্রতিযোগিতা আয়োজিত হল।

প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী প্রত্যেক বাচ্চাদের কাছে আঁকার প্রয়োজনীয় সামগ্রী পৌঁছে দেওয়া হয়। শিশুদের উৎসাহ দিতে প্রত্যেকের জন্যই মেডেলের ব্যবস্থা করা হয়। চকলেট উপহার দেওয়া হয়। স্বাধীনতা দিবসের সকালে প্রত্যেক প্রতিযোগী বাড়িতে বসে ছবি আঁকে। বিভিন্ন বিভাগ অনুযায়ী আগে থেকেই জানিয়ে দেওয়া হয় আঁকার বিষয়। উদ্যোক্তাদের পক্ষ থেকে প্রত্যেক প্রতিযোগীর বাড়িতে গিয়ে ছবিগুলো নিয়ে আসা হয়।

অভিনব ভাবে এই আঁকা প্রতিযোগিতার আয়োজন করা নিয়ে উদ্যোক্তারা বলেন, "দীর্ঘদিন ধরে বাচ্চারা বাড়িতে ঘরবন্দি। মানসিকভাবে  সমস্ত শিশুদের একটু উৎসাহ দিতেই এই অভিনব প্রতিযোগিতা আয়োজন। এই মুহূর্তে কোনও ক্লাবে বা মাঠে ছোট ছোট বাচ্চাদের নিয়ে অঙ্কন প্রতিযোগিতা করা সম্ভব নয়। তাই প্রত্যেক প্রতিযোগী নিজেদের বাড়িতে থেকেই ছবি এঁকে জমা দিয়েছে। এতে স্বাস্থ্যবিধি লঙ্ঘ‌ন হল না আবার বাচ্চারা উৎসাহ পেল। প্রত্যেক বাচ্চাদের পুরস্কৃত করা হয়েছে। এরপর প্রথম, দ্বিতীয়, তৃতীয় যারা হবেন তাদেরকে বাড়িতে গিয়ে পুরস্কার দিয়ে আসা হবে।"

প্রতিযোগিতায় অংশ নেওয়া চতুর্থ শ্রেণীর পড়ুয়া উত্তরণ জানায়, "বাড়িতে বসে মন খারাপ হচ্ছিল। কতদিন স্কুলে যেতে পারিনি। বন্ধুদের সঙ্গে দেখা হচ্ছে না। খেলতে যেতে পারছিনা। তবে এইভাবে বাড়িতে বসে আঁকা প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে পেরে খুব আনন্দ হচ্ছে। একটা মজার ঘটনা ঘটল।"

অনেকে মজা করেই বলছেন, বাড়িতে বসে বসে আঁকো প্রতিযোগিতা হয়তো নিউ নর্মাল এর অন্যতম উদাহরণ।

Published by: Arka Deb
First published: August 15, 2020, 7:06 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर