Delhi Covid Graph: কমছে সংক্রমণ, বাড়ছে হাসপাতালে ফাঁকা বেডের সংখ্যা, সেরে উঠছে দিল্লি !

Photo Courtesy: PTI

এখন পরিস্থিতি আগের চেয়ে কিছুটা হলেও আলাদা ৷ সুস্থতার হার কিছুটা হলেও বেড়েছে ৷ তাই হাসপাতালগুলিতে বেডও মিলছে ৷

  • Share this:

    নয়াদিল্লি: কিছুদিন আগেই ছবিটা ছিল সম্পূর্ণ অন্যরকম ৷ দেশের সর্বত্রই করোনার গ্রাফ বেড়ে চলেছে ৷ রাজধানী দিল্লির ছবিটা ছিল সবচেয়ে ভয়ঙ্কর ৷ হাসপাতালে বেড নেই, অক্সিজেনের জন্য হাহাকার ৷ শ্মশানের ছবিগুলিও ছিল ভয়ঙ্কর ৷ কিন্তু এখন পরিস্থিতি আগের চেয়ে কিছুটা হলেও আলাদা ৷ সুস্থতার হার কিছুটা হলেও বেড়েছে ৷ তাই হাসপাতালগুলিতে বেডও মিলছে ৷ মঙ্গলবারের হিসেব অনুযায়ী দিল্লিতে সবমিলিয়ে মোট ১২,৯০৭টি হাসপাতালের বেড ফাঁকা রয়েছে ৷ পাশাপাশি দিল্লির হাসপাতালগুলির মোট শয্যার মধ্যে ১৪,৮০৫টি-তে করোনা রোগী ভর্তি রয়েছেন ৷ তাই যে দিল্লিতে কিছুদিন আগেও দৈনিক প্রায় ২৫ হাজার মানুষ করোনায় আক্রান্ত হচ্ছিলেন ৷ সেই সংখ্যা এখন তুলনায় অনেকটাই কম ৷ হাসপাতালে বেড খালি পাওয়াটাও যথেষ্ট স্বস্তির খবর ৷

    দিল্লিতে লকডাউন জারি হওয়ার পর থেকেই করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ধীরে ধীরে কমেছে ৷ লকডাউনের সময়সীমাও বিভিন্ন সময় বাড়িয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল ৷ মঙ্গলবারের হিসেব অনুযায়ী রাজধানী দিল্লিতে একদিনে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৪৪৮২ জন ৷ যা ৫ এপ্রিলের পর সবচেয়ে কম ৷ পাশাপাশি সুস্থতার হারও ৯০ শতাংশের বেশি ৷ যা অবশ্যই ভাল খবর ৷

    দেশে গত কয়েকদিনে কমেছে দৈনিক করোনা সংক্রমণ। বেশ কিছু দিন ধরে দেশের দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা নিম্নমুখী। যা খানিকটা হলেও আশার আলো দেখাচ্ছে গবেষকদের। এই প্রথমবার দ্বিতীয় ওয়েভের সংক্রমণের পর দেশের বেশ কিছু অংশে সংক্রমণ কমতে দেখা গিয়েছে, যার প্রভাবে দেশের সক্রিয় করোনা কেসও খানিকটা হ্রাস পেয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় গোটা দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ২ লক্ষ ৬৭ হাজার ২৪৬ জন। এই বৃদ্ধির জেরে করোনায় আক্রান্তের মোট সংখ্যা গিয়ে দাঁড়িয়েছে ২ কোটি ৫৪ লক্ষ ৯৫ হাজার ৩৪৬ জন। ১০-১৬ মে থেকে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা অনেকটাই হ্রাস পেয়েছে আগের তিন সপ্তাহের তুলনায়। বিশ্বে করোনা আক্রান্তের সংখ্যায় দ্বিতীয় স্থানে ভারত। প্রথম স্থানে রয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র।

    Published by:Siddhartha Sarkar
    First published: