COVID19: নিজের বাড়িতেই করোনা রোগীদের নিয়ে এসে সেবায় মশগুল স্নেহাংশু, বাড়িতেই হয়েছে 'সেফ-হোম'

যেখানে নিজের বাড়িতে "সেফ হাউস"(Safe House) তৈরি করে করোনা আক্রান্ত রোগীদের রেখে সেবা-যত্ন করে সুস্থ করে তুলতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন পুরাতন মালদা পুরসভা এলাকার জনৈক ব্যবসায়ী স্নেহাংশু ভট্টাচার্য।

যেখানে নিজের বাড়িতে "সেফ হাউস"(Safe House) তৈরি করে করোনা আক্রান্ত রোগীদের রেখে সেবা-যত্ন করে সুস্থ করে তুলতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন পুরাতন মালদা পুরসভা এলাকার জনৈক ব্যবসায়ী স্নেহাংশু ভট্টাচার্য।

  • Share this:

#মালদহ: করোনা রোগী দেখে অনেকেই এখন পালিয়ে বাঁচার চেষ্টা করছেন। দিনকয়েক আগেই করোনা আক্রান্ত বৃদ্ধা মাকে ফেলে পরিবারের লোকজনের গা-ঢাকা দেওয়ার ঘটনা ঘটেছে মালদহের(Maldah) মানিকচকে। এর ঠিক উল্টো চিত্র পুরাতন মালদহে। যেখানে নিজের বাড়িতে "সেফ হাউস"(Safe House) তৈরি করে করোনা আক্রান্ত রোগীদের রেখে সেবা-যত্ন করে সুস্থ করে তুলতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন পুরাতন মালদা পুরসভা এলাকার জনৈক ব্যবসায়ী স্নেহাংশু ভট্টাচার্য।

পুরাতন মালদা পুরসভার সাত নম্বর ওয়ার্ডের বাচামারি কলোনি এলাকার বাসিন্দা ব্যবসায়ী স্নেহাংশু ভট্টাচার্য। পেশায় স্ট্ক ব্যবসায়ী। নেশা সমাজসেবা (Social Work)। দোতলা বাড়ির ওপর তলায় রয়েছে তাঁর পরিবার। আর নিচেরতলার একাংশকে সেফ হাউসের মতো তৈরি করে করোনা রোগীদের চিকিৎসায় রীতিমতো মশগুল হয়ে পড়েছেন স্নেহাংশুবাবু (Personal House turns Safe Home)। অসুস্থদের জন্য শয্যা, অক্সিমিটার থেকে অক্সিজেন সিলিন্ডারের ব্যবস্থা, সময়ে সময়ে করোনা আক্রান্ত রোগীদের ওষুধ খাওয়ানো। সকালের জলখাবার, দুপুর ও রাতের পেটপুড়ে খাবারের ব্যবস্থা করেছেন স্নেহাংশুবাবু। নিজের বাড়িতে রেখে চিকিৎসা চালাচ্ছেন অসহায় করোনা রোগীদের। ইতিমধ্যে ওই সহৃদয় ব্যবসায়ীর বাড়িতে থাকা অন্তত চার থেকে পাঁচজন করোনা রোগী সুস্থ হয়ে নিজেদের বাড়ি ফিরেছেন। আপাতত দু’জন করোনা রোগী রয়েছেন । যাঁদের নিয়ম করে ওষুধ দেওয়া থেকে খাবারের ব্যবস্থা কার্যত একাহাতেই করছেন ওই ব্যক্তি। পাশাপাশি, তাঁর পাশে দাঁডিয়ে নিয়ম করে এক চিকিৎসকও আসছেন করোনা আক্রান্ত রোগীদের দেখতে। তাঁর এই উদ্যোগ দেখে রীতিমতো হতবাক খোদ রোগীরাই।

গত ৩ মে থেকে বাড়ির একটা অংশে করোনা রোগীদের রেখে চিকিৎসা করার ব্যবস্থা করেছেন। রোগীদের বিনামূল্যে ওষুধ কিনে দেওয়া এবং সকালের জলখাবার থেকে দুপুর ও রাতের খাবারের ব্যবস্থা করেছেন। এই সেফ হাউসে সেবা যত্নে অসুস্থ করোনা রোগীরা সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরছেন। ফেরার সময় দুই হাত তুলে আশীর্বাদ করছেন স্নেহাংশু ভট্টাচার্যকে। ইতিমধ্যে তার এই সেন্টার থেকে পুরাতন মালদা পুরসভার ১৯ নম্বর ওয়ার্ডের তালপাড়া এলাকার বাসিন্দা কল্পনা মন্ডল, ৭ নম্বর ওয়ার্ডের বাচামারি এলাকার বাসিন্দা গোপাল সাহা সহ বেশ কয়েকজন করোনা রোগী সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন । করোনাকে হারিয়ে অসুস্থদের সুস্থ করছেন, এতেই খুশি স্নেহাংশুবাবু ।

Published by:Pooja Basu
First published: