হোম » ছবি » উত্তরবঙ্গ » মুখে মাস্ক, নতুন শাড়িতে বঙ্গনারীরা, কোভিড নিয়ম মেনে দিলেন অষ্টমীর অঞ্জলি

মুখে মাস্ক, নতুন শাড়িতে বঙ্গনারীরা, কোভিড নিয়ম মেনে দিলেন অষ্টমীর অঞ্জলি

  • Bangla Editor

  • 15

    মুখে মাস্ক, নতুন শাড়িতে বঙ্গনারীরা, কোভিড নিয়ম মেনে দিলেন অষ্টমীর অঞ্জলি

    আজ মহা অষ্টমী। আর অষ্টমী পুজা মানেই অঞ্জলি। নতুন শাড়ি পরে মায়ের চরণে অঞ্জলি নিবেদন। কিন্তু কোভিড আবহে নিউ নর্মালে বদলেছে সব কিছু। বদলেছে পুজোর ধরন। সে মণ্ডপ তৈরীর ক্ষেত্রেই হোক। কিংবা প্রতিমা দর্শনে। সবেতেই করোনার কোপ। অষ্টমীর অঞ্জলিতেও সেই করোনার থাবা। শিলিগুড়ির বেশীরভাগ বারোয়ারি এবং সার্বজনীন ক্লাবের পুজোয় অঞ্জলি হয়নি।

    MORE
    GALLERIES

  • 25

    মুখে মাস্ক, নতুন শাড়িতে বঙ্গনারীরা, কোভিড নিয়ম মেনে দিলেন অষ্টমীর অঞ্জলি

    আনন্দময়ী কালীবাড়িতেও এবারে হয়নি পুষ্পাঞ্জলি। মন খারাপ অনেক ভক্তেরই। তবু তারা মেনে নিয়েছেন কোভিড পরিস্থিতির দিকে তাকিয়ে। আবার অধিকাংশ পুজো কমিটি ভার্চুয়াল অঞ্জলির আয়োজন করেছে। কিছু পুজো উদ্যোক্তা দূরত্ব বিধি মেনে আয়োজন করে অঞ্জলির। সেক্ষেত্রে বাড়ি থেকেই ফুল ও বেলপাতা নিয়ে আসতে হয়েছে ভক্তদের।

    MORE
    GALLERIES

  • 35

    মুখে মাস্ক, নতুন শাড়িতে বঙ্গনারীরা, কোভিড নিয়ম মেনে দিলেন অষ্টমীর অঞ্জলি

    কোথাও প্রতিমা থেকে ৩০ ফুট, আবার কোথাও ৫০ ফুট দূর থেকে দাঁড়িয়ে হয়েছে অঞ্জলি। মিত্র সম্মিলনীর পুজোতে অঞ্জলি হল দূর থেকে দাঁড়িয়ে। একবারে নয়, একাধিকবার পুরোহিত মন্ত্রোচ্চারণ করলেন। মাইকে ভেসে আসা মন্ত্রোপাঠ শুনেই অনেকেই আবার বাড়িতে বসেই দিলেন অঞ্জলি।

    MORE
    GALLERIES

  • 45

    মুখে মাস্ক, নতুন শাড়িতে বঙ্গনারীরা, কোভিড নিয়ম মেনে দিলেন অষ্টমীর অঞ্জলি

    তারপর পাড়ার মণ্ডপের দেবী দূর্গার চরণে সেই ফুল ও বেলপাতা অর্পন করা হয়। সন্ধি পুজা হল। সেখানেও পুজো উদ্যোক্তা ছাড়া কোনো ভক্তের সমাগম হয়নি। নিউ নর্মালে এভাবেই শহরজুড়ে হল অষ্টমীর অঞ্জলি। তারপরই ঠাকুর দেখতে বেড়িয়ে পড়া। বিভিন্ন মণ্ডপে সকাল থেকেই দর্শনার্থীদের ভিড় লক্ষ্য করা গিয়েছে।

    MORE
    GALLERIES

  • 55

    মুখে মাস্ক, নতুন শাড়িতে বঙ্গনারীরা, কোভিড নিয়ম মেনে দিলেন অষ্টমীর অঞ্জলি

    সপ্তমীর রাত থেকেই গুটিগুটি পায়ে ঠাকুর দেখতে বেড়িয়ে পড়া। সকাল থেকেই আকাশের মুখ ভার। কখনও ঝিরঝির, কখনও বা ঢিমেতালে বৃষ্টি পড়তে থাকে। তাতে আর কি এসে যায়! বাঙালীর সেরা পার্বন বলে কথা। বৃষ্টি মাথায় নিয়েই এক মণ্ডপ থেকে অন্য মণ্ডপে ঘুরে বেড়ানো। পাড়ার পুজো তো বটেই, শহরের অন্য মণ্ডপেও ঠাকুর দেখতে বেড়িয়ে পড়েন অনেকেই। একেই করোনা আবহ, তারওপর বৃষ্টি, মন বিষন্ন হয়ে পড়েছে শহরবাসীর। Input-Partha Sarkar

    MORE
    GALLERIES